বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > একতার ‘ইউ টার্ন’এ আলিয়া এফ! থ্রিলারে মুখ্য ভূমিকায় ধরা দেবেন সাংবাদিক হিসেবে
আসন্ন ছবিতে আলিয়া
আসন্ন ছবিতে আলিয়া

একতার ‘ইউ টার্ন’এ আলিয়া এফ! থ্রিলারে মুখ্য ভূমিকায় ধরা দেবেন সাংবাদিক হিসেবে

  • বাংলা, মালয়ালম, তামিল, তেলুগুর পর ‘ইউ টার্ন’ আসছে হিন্দিতে। থ্রিলারে মুখ্য় চরিত্রে সাংবাদিক হিসেবে দেখা যাবে আলিয়া এফকে। কন্নড় ছবির হিন্দি রিমেক এই ছবি। বাংলায় এই ছবির নাম ‘ফ্লাইওভার’।

‘জাওয়ানি জানেমান’ ছবি দিয়ে বলিউডে ডেবিউ করেন আলিয়া এফ। শীঘ্রই তাঁকে দেখা যাবে একটি কন্নড় থ্রিলারের হিন্দি রিমেকে। ২০১৮ সালের ব্লকবাস্টার হিট ছিল ‘ইউ টার্ন (U Turn)’। যাঁর মুখ্য চরিত্রে ছিলেন শ্রদ্ধা শ্রীনাথ। তেমনি তেলুগুতেও এই ছবি তৈরি হয়েছিল। যার মুখ্য ভূমিকায় ছিলেন সামান্থা আক্কেনি। বাংলা, মালয়ালম এবং তামিল ভাষায়ও তৈরি হয়েছে এই ছবি।

আসন্ন এই ছবির হিন্দি ভার্সনের পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছে ডেবিউট্যান্ট পরিচালক আরিফ খান। ৬ জুলাই অর্থাৎ আজ থেকে শুরু হয়েছে ছবির শ্যুটিং। আরবান ব্যাকড্রপ দিয়ে ‘ইউ টার্ন’এর সেট তৈরি করা হয়েছে। ছবি প্রযোজনায় রয়েছেন কাল্ট মুভিজ। যেটা শোভা কাপুর এবং একতা কাপুরের বালাজি টেলিফিল্মসের নতুন ভাগ। এরা মূলত নতুন যুগ এবং উদ্দীপক কন্টেন্ট নিয়ে কাজ করছে।

কাল্ট মুভিজের প্রযোজনায় ‘ইউ টার্ন’ কে তৃতীয় ছবি হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। তার আগে অনুরাগ কাশ্যপের 'দোবারা' এবং দিবাকর বন্দ্যোপাধ্যায়ের ‘এলএসডি ২’এর নাম ঘোষণা করা হয়েছিল।

বিস্তারিত কিছু না জানালেও প্রযোজকরা ইতিমধ্যে ছবির একঝলক প্রকাশ্যে এনেছেন।  ঘোষণার পর দর্শকদের থ্রিলারের এক ঝলক দেখিয়েছেন তাঁরা। সংক্ষিপ্ত ক্লিপটি সাসপেন্স থ্রিলারের জন্য যে মিউজিকের ব্যবহার হয়েছে, ইতিমধ্যে দর্শকদের আগ্রহকে আরো বাড়িয়ে তুলেছে। 

ইউ টার্নে একজন সাংবাদিককে প্রধান চরিত্র হিসেবে দেখানো হবে। তিনি বেশ কিছু মানুষের মৃত্যুর সঙ্গে নিজের সংযোগ মনে করবেন। যারা হাইওয়েতে রোড ব্লক দেখে ইউ টার্ন নিতে গিয়ে কোনও না কোনও ভাবে রহস্যজনক মৃত্যুর সম্মুখীন হয়েছেন। রহস্য-থ্রিলারে সামান্থা ও শ্রদ্ধার অভিনয় তাঁদের সংস্করণগুলিতে প্রশংসা পেয়েছিলেন।

কোলাবোরেশন সম্পর্কে বলতে গিয়ে একতা জানিয়েছেন, ‘ডেবিউ ছবিতে আলিয়ার অভিনয় অসাধারণ ছিল। ওর কাছে নিজের বেশ কিছু গুণ রয়েছে, আমি জানি সেগুলোর মধ্যে দিয়ে ও দর্শকদের সঙ্গে সংযোগ স্থাপন করতে পারবে। ইউ টার্ন টুইস্টে ভরপুর। নতুন প্রজন্মের উদ্দীপনা বাড়াবে। আমি আলিয়ার সঙ্গে কাজ করতে পেরে খুব খুশি’।

আলিয়া-একতা
আলিয়া-একতা

এই প্রসঙ্গে আলিয়া বলেছেন, ‘কেরিয়ারের প্রথম দিকে একতা ম্যামের সঙ্গে কাজ করা একটা দারুণ সুযোগ, বিশেষত একটি আকর্ষণীয় প্রোজেক্টের জন্য। এইরকম আকর্ষণীয় প্রোজেক্টের জন্য আমাকে নির্বাচন করায় আমি কৃতজ্ঞতা বোধ করি। এই যাত্রা শুরু করতে পেরে আমি খুব খুশি’। 

ডেবিউ পরিচালক আরিফ খান এর আগে ১০ টিরও বেশি ছবিতে সহ-পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন। তারমধ্য়ে রয়েছে গুঞ্জন সাক্সেনা, টু স্টেটস, স্টুডেন্টস অব দ্য ইয়ারের ছবিগুলিতেও। নব প্রজন্মের থ্রিলারে নতুন মাত্রা যোগ করতে প্রস্তুত তিনি।

 

 

বন্ধ করুন