প্রথম তিন দিনে তানাজির কালেকশন দাঁড়াল প্রায় ৬২ কোটি টাকা
প্রথম তিন দিনে তানাজির কালেকশন দাঁড়াল প্রায় ৬২ কোটি টাকা

তানাজি বনাম ছপাক: প্রথম তিন দিনের লড়াইয়ে এগিয়ে তানাজি, কালেকশন ৬২ কোটি

  • মুক্তির প্রথম তিনদিনে অজয়-কাজল জুটির ছবির আয় দাঁড়াল প্রায় ৬২ কোটি টাকা। সে জায়গায় অনেকটাই পিছিয়ে ছপাক। তিনদিনে ছপাকের কালেকশন দাঁড়াল ১৯ কোটি টাকার আশেপাশে।

বক্স অফিসের লড়াইয়ে দীপিকা পাড়ুকোনের ছপাককে বেশ খানিকটা পিছনে ফেলে দিল অজয় দেবগণের তানাজি: দ্য আনসাং ওয়ারিয়ার। বক্স অফিস ইন্ডিয়ার প্রাথমিক রিপোর্ট অনুযায়ী মুক্তির প্রথম রবিবার তানাজির কালেকশন প্রায় ৩০ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। রবিবার দেশের বক্স অফিসে ছবির আয় ছিল ২৫-২৬ কোটি টাকার আশেপাশে। সেই অনুযায়ী মুক্তির প্রথম তিনদিনে অজয়-কাজল জুটির এই ছবির আয় দাঁড়াল প্রায় ৬২ কোটি টাকা। যা অজয় দেবগণের গত বছরের মুক্তিপ্রাপ্ত ছবি টোটাল ধামালের প্রথম সপ্তাহান্তের কালেকশনের প্রায় সমান। মুক্তির প্রথম তিনদিনে টোটাল ধামালের কালেকশন ছিল ৬২.৪০ কোটি টাকা। মরাঠা ইতিহাসের প্রেক্ষাপটে তৈরি হয়েছে এই ছবি, তাই স্বাভাবিক ভাবে মহারাষ্ট্রে ছবির কালেকশন দুর্দান্ত।

রিপোর্ট বলছে প্রথম দু’দিনের তুলানায় রবিবারও ছপাকের কালেকশনে তেমন কোনও হেরফের হয়নি। রবিবার ছবির কালেকশন ছিল ৭ কোটি টাকার আশেপাশে। সব মিলিয়ে তিনদিনে ছপাকের কালেকশন দাঁড়াল ১৯ কোটি টাকার মতো।

প্রথমদিনই বক্স অফিসে প্রত্যাশা অনুযায়ী ভালো ফল করে নি দীপিকা পাড়ুকোনের ‘ছপাক’। প্রথম দু’দিনে ছবির কালেকশন(১১.৬৭ কোটি টাকা) ছিল মূলত মাল্টিপ্লেক্স এবং শহরাঞ্চল কেন্দ্রিক।



জেএনইউ ক্যাম্পাসে দীপিকার উপস্থিতি গেরুয়া শিবির ও তাঁদের সমর্থকরা ভালোভাবে গ্রহণ করে নি।ক্যাম্পাসে চত্বরে পড়ুয়াদের উপর বহিরাগত হামলায় মর্মাহত দীপিকা সেখানে হাজির হয়েছিলেন সহমর্মিতা জানাতে, সেখানে কারুর বিরুদ্ধে কোনও কথা না বললেও দীপিকার উপস্থিতিই বিতর্কের ঝড় তুলেছে। বক্স অফিসে ছপাকের খুব ভাল ফল না করার কারণ হিবাসে অনেকেই দীপিকার জেএনইউ বিতর্ককে দায়ি করছেন। এ ব্যাপারে ফিল্ম পরিবেশক অক্ষয় রাঠি হিন্দুস্তান টাইমসকে জানিয়েছেন, যদি সত্যিই টুইটারের কোনও প্রভাব বাস্তবে থাকত তাহলে অনেক মানুষ ছপাক দেখত কারণ দীপিকা যা করেছে তারা সেটা সমর্থন করে, আবার অনেকে দেখত না কারণ তারা দীপিকার মতাদর্শের সঙ্গে সহমত নয়। এটা মনে রাখতে দীপিকা একজন ব্যক্তি এবং গণতন্ত্রে প্রত্যেক মৌলিক অধিকার সুরক্ষিত রয়েছে। এই বিষয়টাকে ছবির সঙ্গে জুড়ে বয়কট করা দুর্ভাগ্যজনক। একটা ছবিতে একটা স্টুডিও অনেক টাকা ঢেলেছে। হতে পারে দীপিকাও ছবির প্রযোজক কিন্তু বেশি টাকা ব্যয় করেছে সংশ্লিষ্ট প্রযোজক সংস্থা। যারা গোটা ঘটনায় কোনও পক্ষ নেয় নি। পাশাপাশি একটা ছবির সঙ্গে জড়িয়ে থাকে একাধিক লগ্নিকারী, পরিবেশকসহ আরও অনেক পক্ষ। সেটা তাঁদের প্রতি অন্যায়'।

তবে একটা বিষয় উল্লেখযোগ্য তানাজি অনেক বড় স্কেলে তৈরি ছবি। দেশের প্রায় ৩৫০০ থিয়েটারে মুক্তি পেয়েছে এই ছবি, সে জায়াগায় ছপাক রিলিজ করেছে মাত্র ১৫০০ প্রেক্ষাগৃহে। পাশাপাশি তানাজির বাজেট প্রায় ১৫০ কোটি টাকা, সে জায়গায় ছপাক তৈরি হয়েছে মাত্র ৪০ কোটির বাজেটে। তাই হিট বা ফ্লপের তুল্যমূল্য বিচার শুধু ছবির মোট আয় নয়, নির্ধারণ করবে ছবির মোট লাভের পরিমাণ।



বন্ধ করুন