বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > KIFF: ‘কার্ড থাকলেই ছবি দেখতে দিতে হবে’, বললেন মমতা, সেইমতো জারি নির্দেশিকা
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় 
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় 

KIFF: ‘কার্ড থাকলেই ছবি দেখতে দিতে হবে’, বললেন মমতা, সেইমতো জারি নির্দেশিকা

  • ১১ জানুয়ারি থেকে ছবি উত্সবে সম্পূর্নভাবে অনলাইনে টিকিট সংরক্ষণ ব্যবস্থা উঠে গেল। 

অনলাইনে সিট বুক করতে সমস্যায় পড়তে পারেন সেই সব মানুষ যাঁরা স্মার্টফোনের সঙ্গে সরগড় নন। তাঁদের কথা ভেবেই অনলাইনে টিকিট সংরক্ষণের নিয়ম বাতিল করবার কথা কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উত্সবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবছর নেতাজি ইন্ডোরে বার্ণাঢ্য অনুষ্ঠান নয়, নবান্নের সভাঘরে আয়োজন করা হয়েছিল ২৬তম কিফের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।

এদিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘অনেকের তো স্মার্টফোন নেই? তাঁরা কী করে টিকিট বুক করবে?’। সঞ্চালক পরমব্রত আশ্বাস দেন, এর জন্য সহায়তাকেন্দ্র খোলা হয়েছে। তবে মুখ্যমন্ত্রী ছবি উত্সবের উদ্যোক্তাদের এই বিষয়টি বিবেচনা করতে দেখতে বলেন। ‘সবাই তো আর ই-টিকিট কাটতে পারে না। অনেকেই ভাবে কার্ড থাকলেই ছবি দেখতে পাবে। যাঁদের কাছে কার্ড আছে আমার মনে হয় তাঁদের ছবি দেখতে দেওয়া উচিত’, বলেন মমতা। 

জারি হল বিজ্ঞপ্তি 
জারি হল বিজ্ঞপ্তি 

এরপর শুক্রবার সন্ধ্যাতেই কলকাতা চলচ্চিত্র উত্সবের আয়োজকরা জারি করেন নির্দেশিকা। বলা হয়. ১০ তারিখ পর্যন্ত যাঁরা টিকিট বুক করেছেন অনলাইনে, তাঁদের আসন সংরক্ষিত থাকছে। তবে যে সব শোয়ের টিকিট বুক হয়নি সেগুলি কার্ড (ডেলিগেট,প্রেস এবং গেস্ট) থাকলেই করোনাবিধি মেনে ছবি দেখতে পারবেন দর্শকরা। ১১ জানুয়ারি থেকে উত্সব শেষ হওয়ার পর্যন্ত অনলাইনট টিকিট সংরক্ষণ ব্যবস্থা থাকছে না। 

এর আগে চলচ্চিত্র উত্সব কমিটির তরফে জানানো হয়েছিল, বুক মাই শোয়ের মাধ্যমে দু-দিন আগে থেকে নির্দিষ্ট শোয়ের সিট বুকিং করে রাখতে হবে। 

করোনা আবহে এবছর ছবি উত্সবের জাঁকজমক অনেকখানি কম। ভেন্যুর সংখ্যা কমেছে। ছবির সংখ্যাও সীমিত। অতিমারীর আবহে দু-মাস পিছিয়ে আজ থেকে শুরু হল ২৬তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উত্সব। করোনার জেরে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক স্তরে বাতিল হয়েছে একাধিক উত্সব। ভারতের মধ্যে কলকাতাতেই প্রথম করোনা আবহে ছবি উত্সব আয়োজিত হল। তাই এদিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন- ‘আমরা কিন্তু করে দেখালাম’। 

বন্ধ করুন