বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > অস্কারজয়ী পরিচালক কাজ করতে চেয়েছিলেন, জানার আগেই না ফেরার দেশে চলে গেলেন ইরফান
ইরফান খান। ছবি সৌজন্যে - ট্যুইটার
ইরফান খান। ছবি সৌজন্যে - ট্যুইটার

অস্কারজয়ী পরিচালক কাজ করতে চেয়েছিলেন, জানার আগেই না ফেরার দেশে চলে গেলেন ইরফান

  • অস্কারজয়ী পরিচালক আলেহান্দ্রো গঞ্জালেজ ইনারেইত্তু কাজ করতে চেয়েছিলেন ইরফানের সঙ্গে! প্রয়াত অভিনেতার প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে এ কথা জানালেন তাঁর স্ত্রী সুতপা শিকদার।

পেরিয়ে গেল আস্ত একটা বছর। গত বছর আজকের দিনেই প্রয়াত হয়েছিলেন ইরফান খান। ক্যানসারের বিরুদ্ধে দীর্ঘ লড়াই শেষ হয়েছিল আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন এই অভিনেতার। ইরফান যে কতটা দর্শকদের মধ্যে প্রিয় ছিলেন তা অনুভব করা গেল গতকাল থেকেই। সাধারণত, কারোর মৃত্যুবার্ষিকীতে স্মরণ করা হয় প্রয়াত ব্যক্তিকে। কিন্তু নেটিজেনরা এই 'কপিবুক' নিয়মকে হেলায় সরিয়ে ফেলে গতকাল থেকেই শুরু করেছে তাঁদের প্রিয় তারকাকে স্মরণ। ইরফানের অভিনয় নিয়ে নতুন করে কিছু বলাটা বাতুলতা। বলিউড তো বটেই,হলিউডেও তাঁকে নিয়ে নামি পরিচালকদের আগ্রহ ছিল দেখার মতো। দু'দুটি অস্কারজয়ী ছবি 'স্লামডগ মিলিওনেয়ার' এবং 'লাইফ অফ পাই'-এ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় দেখা গেছে ইরফানকে। গত এক বছরে বিভিন্ন সময়ে সংবাদমধুমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে কিংবা সোশ্যাল মিডিয়ায় ইরফান -পত্নী সুতপা সিকদার এবং ইরফান-পুত্র বাবিল জানিয়েছেন নানান অজানা তথ্য প্রয়াত এই তারকার ব্যাপারে।

অস্কারজয়ী পরিচালক আলেহান্দ্রো গঞ্জালেজ ইনারেইত্তু .  ছবি সৌজন্যে - ট্যুইটার
অস্কারজয়ী পরিচালক আলেহান্দ্রো গঞ্জালেজ ইনারেইত্তু .  ছবি সৌজন্যে - ট্যুইটার

সদ্য ইরফানের স্মৃতিচারণা করতে গিয়ে উঠে এসেছে এক চমকপ্রদ খবর। সুতপা জানালেন, অস্কারজয়ী পরিচালক আলেহান্দ্রো গঞ্জালেজ ইনারেইত্তু কাজ করতে চেয়েছিলেন ইরফানের সঙ্গে! এ খবর তাঁকে জানিয়েছিলেন বিখ্যাত পরিচালক মীরা নায়ার। তাঁর পরিচালিত 'বার্ডম্যান' এবং 'দ্য রেভেনেন্ট' এই দুটি ছবি অস্কার জেতার ফলে সিনেমাপ্রেমীদের কাছে সম্ভ্রমের সঙ্গে উচ্চারিত হয় আলেহান্দ্রোর নাম। সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া একাধিক সাক্ষাৎকারে ইরফান জানিয়েছিলেন এই পরিচালকের ছবির ভীষণ ভক্ত তিনি। শুধু তাই নয়, আলেহান্দ্রোর সঙ্গে কাজ করার ইচ্ছেও প্রকাশ করেছিলেন 'মকবুল' অভিনেতা। সুদীপা আরও জানান, পরিচালক মীরা নেয়ার তাঁকে এ খবর জানালেও ইরফানকে জানায়নি। হতে পারে,ইরফান তখন অসুস্থ ছিলেন ভীষণ এবং সেইমুহূর্তে ছবি থেকে একটু দূরে সরে এসেছিলেন তাই একথা জানার পর হয়তো তাঁর কষ্ট হতে পারে সেসব ভেবেই হয়তো বলেননি মীরা। সুতপার আফসোস,' চলেযাওয়ার আগে একবার জেনে যেতে পারলো না ইরফান যে তাঁর প্রিয় পরিচালকই নিজের ইচ্ছেপ্রকাশ করেছিলেন ইরফানের সঙ্গে কাজ করার ব্যাপারে।'

বন্ধ করুন