বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > মন খারাপ রচনার! লাইভে এসে ক্ষমা চাইলেন ‘দিদি নম্বর ১’
রচনা। (ছবি-ফেসবুক)
রচনা। (ছবি-ফেসবুক)

মন খারাপ রচনার! লাইভে এসে ক্ষমা চাইলেন ‘দিদি নম্বর ১’

  • কী কারণে অনুরাগীদের কাছে ক্ষমা চাইলেন রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়? 

ভীষণ মন খারাপ অভিনেত্রী রচনা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। ফেসবুক লাইভে এসে অনুরাগীদের কাছে হাত জোড় করে ক্ষমা চেয়ে নিলেন টেলিভিশনের এই জনপ্রিয় সঞ্চালিকা।ভাবছেন আচমকা কী ভুল করে বলছেন ‘দিদি নম্বর ১’? আসলে বিগত কয়েকদিন ধরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় দেখা নেই রচনার। নববর্ষের শুভেচ্ছাও অনুরাগীদের সঙ্গে ভাগ করে দেননি অভিনেত্রী। 

নববর্ষ পেরিয়ে যাওয়ার দিন দশের পরে লাইভে এসে নতুন বাংলা বছরের শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি ক্ষমা চাইলেন রচনা। তবে কী কারণে এত দেরিতে শুভেচ্ছা বিনিময় সেকথাও জানিয়েছেন তিনি। গাড়িতে বসে একটি ভিডিয়ো রেকর্ড করে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন রচনা। তিনি পরিষ্কারভাবে জানান অনুরাগীদের ভোলেননি, তবে তাঁর ভ্যারিফায়েড ফেসবুক পেজে কিছু টেকনিক্যাল সমস্যা দেখা দিয়েছিল। যার ফলে এই পেজ থেকে কোনও কিছুই পোস্ট করতে পারছিলেন না তিনি। 

রচনা ভিডিয়োতেে সকলকে করোনা নিয়ে সচেতন থাকবার কথা জানান। বলেন সবসময় মাস্ক পরে থাকতে, কেবলমাত্র ভিডিয়ো রেকর্ড করবার জন্যই মাস্কটি নিজে খুলেছেন বলে জানান অভিনেত্রী। প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে না বেড়ানো, এবং খুব বেশি ভিড়ে না যাওয়ার আবেদন জানান রচনা। কিছুদিন আগে করোনা ভ্যাক্সিন নিয়েছেন অভিনেত্রী, সেই খবরও সোশ্যাল মিডিয়ায় জানিয়েছিলেন তিনি।করোনামুক্ত পৃথিবীর প্রার্থনা করলেন অভিনেত্রী। 

ভিডিয়োতে সবুজ-সোনালি শাড়িতে পাওয়া গেল রচনাকে। খুব সম্ভবত দিদি নম্বর-১-এর শ্যুটের লুকেই ছিলেন তিনি। আপতত দিদি নম্বর ১ ছাড়া অন্য কোনও প্রোজেক্টের কাজে হাত দেননি অভিনেত্রী, বাকি সময়টা পরিবার আর বন্ধুদের সঙ্গে কাটাতেই ভালোবাসেন রচনা।

চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে নিজের ছেলে এবং বান্ধবীদের সঙ্গে সুন্দরবন বেড়াতে গিয়েছিলেন রচনা। সেই সবছবি ইন্সটাগ্রামে শেয়ার করেছিলেন রচনা। মুহূর্তেই ভাইরাল হয় রচনার সুন্দরবন ডায়েরি।

বন্ধ করুন