বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > পাহাড় চূড়ায় ‘সান্তা’ সানির এই কীর্তি দেখে হেসে খুন এষা দেওল! দেখে নিন এক্ষুণি
পোস্ট করা ইনস্টাগ্রাম ভিডিয়োতে সানি।

পাহাড় চূড়ায় ‘সান্তা’ সানির এই কীর্তি দেখে হেসে খুন এষা দেওল! দেখে নিন এক্ষুণি

  • বরফ ঘেরা পাহাড় চূড়ায় নিজের একটি ভিডিয়ো পোস্ট করেছেন সানি দেওল। বলি-তারকার কাণ্ড দেখে হাসির রোল উঠেছে নেটপাড়ায়।

পর্দায় তিনি দুরন্ত অ্যাকশন হিরো। তাঁর জান্তব গর্জন শুনে পিলে চমকে ওঠে ষন্ডা চেহারার ভিলেনদেরও। আবার পর্দার বাইরে তাঁর মিষ্টি, মজাদার সব কাণ্ড কারখানা দেখে আপ্লুত হন নেটপাড়ার বাসিন্দারা। 'তিনি' সানি দেওল। সম্প্রতি, নিজের একটি ছোট্ট ভিডিয়ো ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেছেন এই অভিনেতা-রাজনীতিবিদ। 

সেখানে দেখা যাচ্ছে বরফের চাদরে মোড়া একটি পাহাড়ি উপত্যকায় দাঁড়িয়ে রয়েছেন তিনি। হঠাৎই বলা নেই, কওয়া নেই সামনে থাকা বরফের মধ্যে আচমকা মুখ ঢুকিয়ে দিলেন তিনি! খানিকক্ষণ পরে ফের যখন মুখ তুললেন, দেখা গেল তাঁর মুখ, চাপদাড়ি, টুপিতে বরফ এমনভাবে লেগে গেছে যে তাঁকে চেনাই দায়। আর সানির এই মুখের হাল দেখে হেসে কুটিপাটি হয়েছেন বোন তথা বলি-অভিনেত্রী এষা দেওল। পোস্টের ক্যাপশনে অট্টহাসির ইমোজির সঙ্গে 'ঠিক আছে দাদা' লেখাই তার অকাট্য প্রমাণ।

ভিডিয়োর ক্যাপশনেও ততোধিক মজা করে নিজের বরফমাখা মুখের সঙ্গে কেক-এর তুলনা করেছেন তিনি। পাশাপাশি বলেছেন জীবনে প্রতিটি মুহূর্ত তিনি এভাবেই উপভোগ করেন। সানির এহেন আদুরে ছেলেমানুষি দেখে খুশি নেটিজেনেরাও। কেউ মজা করে তাঁদের প্রিয় নায়ককে 'সান্তাক্লজ' এর তকমা দিয়েছেন কেউ বা বলেছে সানি 'প্রাকৃতিক ফেস মাস্ক' ব্যবহার করছেন।

গত বছরের সেপ্টেম্বরে মা প্রকাশ কউরের সঙ্গে পাহাড়ে ছুটি কাটাতে গেছিলেন 'গদর'-এর নায়ক। বরফ ঘেরা পাহাড় চূড়ায় তাঁদের মা-ছেলের কাণ্ড সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টও করেছেন এই বলি-তারকা, যা দেখে আপ্লুত নেটপাড়া।ইতিমধ্যেই ভাইরাল হওয়া সেই ভিডিওয়ে দেখা যাচ্ছে পাহাড়ের গায়ে জমে থাকা বরফকুচির নিয়ে খেলায় মেতে উঠেছেন মা-ছেলে। কখনও বরফ দিয়ে বল পাকিয়ে সানির গায়ে ছুড়ে মারছেন তাঁর মা আবার পরমুহূর্তেই একমুঠো বরফ কুচি নিয়ে মায়ের মাথায় হাসতে হাসতে ছড়িয়ে দিচ্ছেন এই 'ঘাতক'-এর নায়ক।

 ইনস্টাগ্রামের দেওয়ালে এই ভিডিও পোস্টারের সঙ্গে ক্যাপশনে সানির লেখা কথাও মন ছুঁয়েছে নেটিজেনদের।সানির কথায়, মায়ের সঙ্গে কাটানো এই বিশেষ মুহূর্ত যে তাঁর জীবনের অন্যতম স্মরণীয় ঘটনা হয়ে থাকবে তা নিয়ে তাঁর মনে কোনও সন্দেহ নেই। এ যেন তাঁর সেই হারিয়ে যাওয়া শৈশবকে ফিরে পাওয়া।

বন্ধ করুন