বাড়ি > বায়োস্কোপ > সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তভার সিবিআইকে দেওয়ার কোনও প্রশ্নই নেই: মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
মুম্বই পুলিশ এই মামলার তদন্ত জারি রাখবে
মুম্বই পুলিশ এই মামলার তদন্ত জারি রাখবে

সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তভার সিবিআইকে দেওয়ার কোনও প্রশ্নই নেই: মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  • সিবিআইয়ের হাতে সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তভার নয়,বৈঠক শেষে বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

মুম্বই পুলিশ সুশান্তের মৃত্যুর তদন্ত করছে এবং তাঁরা এই তদন্ত চালিয়ে যাবে। বুধবার মুম্বই পুলিশের উচ্চ পদস্থ কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক শেষে সাফ জানিয়ে দিলেন মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অনিল দেশমুখ। তিনি বলেন, মুম্বই পুলিশ এই মামলার তদন্ত করতে সম্পূর্নরূপে সক্ষম,তাই কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার হাতে এই মামলার দায়িত্ব তুলে দেওয়ার কোনও প্রয়োজনীয়তা নেই। যদিও এই মামলায় এখনও পর্যন্ত কোনও এফআইআর দায়ের করেনি মুম্বই পুলিশ। যা নিয়ে আপত্তি জানিয়েছে সুশান্তের পরিবার। মুম্বই পুলিশের উপর পূর্ণ আস্থা না থাকাতেই পাটনা পুলিশের কাছে এফআইআর দায়ের করে প্রয়াত অভিনেতার পরিবার।  

গতকাল, সুশান্তের মৃত্যুর ৪৪তম দিনে সামনে আসে প্রয়াত অভিনেতার বাবা কেকে সিং সুশান্তের গার্লফ্রেন্ড রিয়া চক্রবর্তী ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়া, প্রতারণা, ষড়যন্ত্র সহ একাধিক ধারায় এফআইআর দায়ের করেছেন পাটনার রাজীব নগর পুলিশ থানায়। গত শনিবার, ২৫শে জুলাই এফআইআর দায়ের করেন কেকে সিং। সুশান্তের মৃত্যুকে অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা হিসাবেই তদন্ত করছে মুম্বই পুলিশ। অন্যদিকে পাটনা পুলিশের কাছেই প্রথম এফআইআর দায়ের করা হয়েছে সুশান্তের মৃত্যুর তদন্তের। দুটি রাজ্যের পুলিশ এই মামলায় জড়িয়ে পড়ায় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার হস্তক্ষেপ ছাড়া বাকি কোনও রাস্তা দেখছেন না আইন বিশেষজ্ঞরা। যদিও সেই দাবি কার্যত উড়িয়ে দিলেন মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।  অন্যদিকে সূত্রের খবর পাটনা পুলিশের তদন্তকারী অফিসারের সঙ্গে পূর্ণ সহযোগিতা করছে না মুম্বই পুলিশ, সেই অভিযোগ উঠছে।

মুম্বই পুলিশ নিজেদের সাফাইয়ে জানিয়েছে, সুশান্তের মৃত্যুর পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অভিনেতার পরিবারের তরফে কারুর বিরুদ্ধে অভিযোগ জানানো হয়নি কিংবা রিয়া চক্রবর্তীর নাম নেওয়া হয়নি। অন্যদিকে সুশান্তের পরিবারের আইনজীবীর মুম্বই পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ, 'মুম্বই পুলিশ এফআইআর দায়ের করছিল না। তাঁরা বেশ কিছু বড় প্রযোজক সংস্থা নাম জোর করে জড়ানোর চেষ্টা করছিল এবং মামলাটি অন্যদিকে ঘুরে যাচ্ছিল'।

উল্লেখ্য, রিয়া ও অভিনেত্রীর পরিবারের এবং ম্যানেজারের বিরুদ্ধে চক্রান্ত, সুশান্তের সঙ্গে প্রতারণা (আর্থিক ও মানসিক) এবং তাঁকে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার মতো অভিযোগ এনেছেন কেকে সিং। ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০৬ (আত্মহত্যায় প্ররোচনা), ৩৪১,৩৪২,৩৮০,৪০৬, ৪২০-ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে। অন্যদিকে রিয়া চক্রবর্তী এই মামলা মুম্বইয়ে স্থানান্তরিত করার আর্জি জানিয়ে দ্বারস্থ হয়েছেন দেশের শীর্ষ আদালতের। 

 

 

বন্ধ করুন