বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কুলগামে জঙ্গি হানায় মৃত্যু ৩ বিজেপি কর্মীর, দায় স্বীকার পাক মদতপুষ্ট সংগঠনের
কুলগামে জঙ্গি হানায় মৃত্যু ৩ বিজেপির কর্মীর, দায় স্বীকার পাক মদতপুষ্ট সংগঠনের (ছবি সৌজন্য টুইটার)
কুলগামে জঙ্গি হানায় মৃত্যু ৩ বিজেপির কর্মীর, দায় স্বীকার পাক মদতপুষ্ট সংগঠনের (ছবি সৌজন্য টুইটার)

কুলগামে জঙ্গি হানায় মৃত্যু ৩ বিজেপি কর্মীর, দায় স্বীকার পাক মদতপুষ্ট সংগঠনের

  • হামলার দায় স্বীকার করেছে একটি জঙ্গি সংগঠন।

বৃহস্পতিবার রাতে দক্ষিণ কাশ্মীরে কুলগাম জেলায় জঙ্গিদের গুলিতে মৃত্যু হল তিন বিজেপি কর্মীর। মৃতদের মধ্যে একজন বিজেপির যুবমোর্চার জেলা সাধারণ সম্পাদক ছিলেন।

এক পুলিশ আধিকারিক জানিয়েছেন, হামলার দায় স্বীকার করেছে ‘দ্য রেসিস্ট্যান্ট ফ্রন্ট’ (টিআরএফ)। যে জঙ্গি সংগঠন তৈরি করেছে পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা। ওই আধিকারিক বলেন, ‘রাজনীতিবিদদের নিশানা করে আরও আরও হামলা চালানোর হুমকি দিয়েছে।’ সংবাদসংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, লস্কর-ই-তৈবার ছায়া সংগঠন টিআরএফ। যা ইংরেজি ও হিন্দিতে নিজেদের সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছে ওই জঙ্গি সংগঠন। তাতে লেখা হয়েছে, ‘শ্মশান ভরতি হয়ে যাবে।’

আধিকারিকরা জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার রাত আটটা নাগাদ ওয়াই কে পোরায় বিজেপি কর্মীদের উপর হামলা চালায় অজ্ঞাতপরিচয় জঙ্গিরা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান পুলিশের শীর্ষ আধিকারিকরা। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় তিন কর্মীকে কাজিগন্ধ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। মৃতেরা হলেন - ফিদা হুসেন ইটু, ওমর রাজনান হাজাম এবং উমের রশিদ বেগ। ফিদা হচ্ছেন বিজেপি যুবমোর্চার সাধারণ সম্পাদক।  বিজেপির জেলা কমিটির সদস্য ছিলেন ওমর।

সেই হামলার নিন্দা করেছে জম্মু ও কাশ্মীর বিজেপি। টুইটারে রাজ্য বিজেপির তরফে বলা হয়েছে, 'জঙ্গিদের হতাশার প্রতিফলন ঘটাচ্ছে এই নিকৃষ্টতম কাজ। মৃতদের শান্তি কামনা  করছি এবং এই ক্ষতি সহ্য করার জন্য তাঁদের পরিবারকে শক্তি জোগানোর প্রার্থনা করছি। তাঁদের পরিবারের প্রতি গভীরভাবে সমবেদনা জানাচ্ছি।

উল্লেখ্য, গত জুন থেকে উপত্যকায় বিজেপি নেতাকর্মীদের উপর জঙ্গি হামলার ঘটনা বেড়েছে। এখনও পর্যন্ত আটজনের মৃত্যু হয়েছে। গত জুলাইয়ে বন্দিপোরায় এক বিজেপি নেতা ও তাঁর ভাইকে হত্যা করেছিল জঙ্গিরা।

বন্ধ করুন