বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বেঙ্গালুরুর নার্সিং কলেজে কোভিড আক্রান্ত কেরল-বাংলার ৩৪, বন্ধ করা হল কলেজ
ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই
ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য পিটিআই

বেঙ্গালুরুর নার্সিং কলেজে কোভিড আক্রান্ত কেরল-বাংলার ৩৪, বন্ধ করা হল কলেজ

  • বেঙ্গালুরুর হোরামাভু-আগারা রোডে অবস্থিত ক্রিশ্চান কলেজ অফ নার্সিংয়ে কোভিড সংক্রমিত হলেন ৩৪ জন।

কর্ণাটকের আরও একটি নার্সিং কলেজে কোভিডের প্রকোপ। বেঙ্গালুরুর হোরামাভু-আগারা রোডে অবস্থিত ক্রিশ্চান কলেজ অফ নার্সিংয়ে কোভিড সংক্রমিত হলেন ৩৪ জন। আক্রান্তরা সবাই কেরল এবং বাংলার বলে জানা গিয়েছে। এই কলেজকে কোভিড ক্লাস্টার হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। কলেজে আক্রান্ত সকল পড়ুয়াকে হিন্দুস্তান অ্যারোনটিকস লিমিটেডের কোভিড কেয়ার সেন্টারে স্থানান্তরিত করা হয়েছে।

এর আগে দক্ষিণ কর্ণাটকের কোলার নূরউননিসা ইনস্টিটিউট অফ নার্সিংয়ে ৬৫ জন পড়ুয়া একসঙ্গে কোভিড আক্রান্ত হয়েছিলেন। উল্লেখ্য, এই আক্রান্ত পড়ুয়াদের অধিকাংশ কেরল থেকে ফিরেছিলেন নিজেদের কলেজে। তবে উভয় কলেজের ক্ষেত্রেই নাকি পড়ুয়ারা যখন কর্ণাটকে আসেন, তাঁদের কাছে কোভিড নেগেটিভ রিপোর্ট ছিল। পাশাপাশি রাজ্যে এসে পরীক্ষা করানোর পরও দেখা যায় যে তাঁদের শরীরে করোনা সংক্রমণ নেই।

প্রসঙ্গত, কেরলে করোনা সংক্রমণের বাড়বাড়ন্ত চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে গোটা দেশের। শুধু এই রাজ্যেই দৈনিক সংক্রমণ ওনামের পর থেকে ধারাবাহিক ভাবে ৩০ হাজারের গণ্ডি পার করেছে প্রায় রোজ। জানা গিয়েছে বেঙ্গালুরুর কলেজের পড়ুয়ারা কর্ণাটকে আসেন ৫ অগস্ট। সেই সময় তাদের নমুনা পরীক্ষা করে যায় তাঁদের শরীরে করোনা সংক্রমণ নেই। পরে ২৮ অগস্ট ১০ জন পড়ুয়া করোনা আক্রান্ত হন। এরপর ৩০ অগস্ট আরও ১২ জন করোনা সংক্রমিত হন। পরে বৃহস্পতিবার আরও ১২ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণের খোঁজ পাওয়া গিয়েছে।

এদিকে অসুস্থ ২২ মহিলা এবং ১২ জন পুরুষের কারোর শারীরিক অবস্থার সেরম কোনও অবনতি হয়নি। তাঁদের সকলের উপসর্গ হাল্কা। এদিকে তাঁদের সবাই কোভিড টিকার প্রথম ডোজ পেয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। এদিকে তাঁদের সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে বেঙ্গালুরু পৌরনিগমের তরফে।

 

বন্ধ করুন