বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'বদল আনতে এসেছি', প্রত্যয়ী লিয়েন্ডার; 'এতদিন কোথায় ছিলে?' পালটা প্রশ্ন গোয়ানদের
গোয়ার রাস্তায় লিয়েন্ডার (ছবি সৌজন্যে এএনআই) (ANI)
গোয়ার রাস্তায় লিয়েন্ডার (ছবি সৌজন্যে এএনআই) (ANI)

'বদল আনতে এসেছি', প্রত্যয়ী লিয়েন্ডার; 'এতদিন কোথায় ছিলে?' পালটা প্রশ্ন গোয়ানদের

  • তৃণমূল কোমর কষে নেমেছে গোয়ার ময়দানে গোল দাগতে। আর সেখানে তাঁদের কোর্টে আছে লিয়েন্ডারের মতো 'এস'।

ভারতীয় টেনিস তারকা তথা সদ্য তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেওয়া লিয়েন্ডার পেজ এমন এক কাজ করলেন যা তিনি আগে কখনও করেননি। গোয়ার রাস্তায় চলাফেরা, সাধারণ গোয়ানদের সমস্যাগুলি খুঁজে বের করার চেষ্টা করা এবং তাদের সমাধানের আশ্বাস দেওয়া এবং গোয়ার রাজনৈতিক আদালতে তাঁর পূর্বপুরুষের উত্তরাধিকারের সন্ধান করতে দেখা গেল তাঁকে। উল্লেখ্য, আগামী বছরের ফেব্রুয়ারি-মার্চে নির্বাচন হতে পারে গোয়ায়। তার আগে তৃণমূল কোমর কষে নেমেছে গোয়ার ময়দানে গোল দাগতে। আর সেখানে তাঁদের কোর্টে আছে লিয়েন্ডারের মতো 'এস'।

নিজের টেনিস কেরিয়ারের দিনগুলির মতোই রাজনৈতিক ময়দানে তাঁর দিন শুরু হয় মিটিং এর মাধ্যমে। দিনের কর্মপন্থা ও কৌশল স্থির করে এবং জনগণের প্রতিক্রিয়া পর্যালোচনা করে তিনি প্রচার শুরু করেন। সভা শেষ হতেই গোয়ায় এই সেলিব্রিটি প্রচারক তথা অলিম্পিক ব্রোঞ্জ পদকজয়ী তাঁর সঙ্গী বলিউড অভিনেত্রী কিম শর্মার সাথে রাস্তায় নামেন। রাস্তায় সভা ও মানুষের সঙ্গে কথা বলার পাশাপাশি ফটোগ্রাফের জন্যও পোজ দেন তিনি। অনেক গোয়ানরাই রাস্তার ধারে দাঁড়িয়ে দূর থেকে তাঁর দিয়ে তাকিয়ে থাকেন। হয়ত তাঁরা ভাবেন সত্যিই কি লিয়েন্ডার পেজ তাদের চোখের সামনে।

হিন্দুস্তান টাইমকে লিয়েন্ডার বলেন, 'আমি টেনিস খেলে ৩০ বছর ধরে আমার দেশের সেবা করেছি। আমি বিশ্বজুড়ে ভ্রমণ করেছি এবং আমাদের পতাকা এবং আমাদের জনগণের জন্য খ্যাতি আনার চেষ্টা করেছি। কিন্তু এখন আমি টেনিস থেকে অবসর নিয়েছি। আমার এখন মূল লক্ষ্য হল আমাদের জনগণের জীবনযাত্রার মান উন্নত করা এবং সমাজে শান্তি এবং সম্প্রীতি স্থাপন করা। যেখানে আমরা ভারতীয় হিসাবে এবং গোয়ান হিসাবে আমরা 'এক'। ধর্ম, বর্ণ নির্বিশেষে আমরা এক সম্প্রদায়।'

লিয়েন্ডারকে নিয়ে প্রশ্ন করায় গোয়াবাসী মাইকেল বেনি দ্য কোস্টার গলায় অভিমানের সুর ঝরে পড়ছিল। তিনি বলেন, 'পেজ যা করেছেন এবং দেশের জন্য যে খ্যাতি এনেছেন তার জন্য আমরা তাঁর প্রশংসা করি, কিন্তু রাজনীতি একটি ভিন্ন খেলা। আমার মনে হয় না তিনি খুব একটা প্রভাব ফেলেছেন। তিনি তাঁর খেলার দিনগুলিতেও গোয়া আসেননি এবং এখন হঠাৎ নির্বাচনের আগে তিনি এখানে এসেছেন।'

তাছাড়া আরও বহু প্রশ্ন রয়েছে গোয়ার মানুষদের মনে। যেমন, 'কেন তৃণমূল নির্বাচনের তিন মাস আগে এখানে এসেছে? তৃণমূল কি এখানে বিজেপি বিরোধী ভোট ভাগ করতে এবং বিজেপিকে সাহায্য করতে এসেছে? লুইজিনহো ফেলেইরোকে পার্টির নেতৃত্ব দেওয়ার সিদ্ধান্ত কতটা সঠিক? ২০১২ সালের বিধানসভা নির্বাচনে একটিও আসন জিততে ব্যর্থ হওয়ার পর তৃণমূল যেভাবে ফিরে গিয়েছিল, এবারও কি সেভাবেই ফিরে যাবে?'

তবে এই সব প্রশ্ন, অভিমান, অভিযোগ 'হজম' করে লিয়েন্ডার দলের হয়ে প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন। লিয়েন্ডারের কথায়, 'আমি মনে করি অনেক গোয়ান এবং অনেক ভারতীয় আছেন যাঁরা জীবিকা নির্বাহের জন্য নিজেদের শিকড় ত্যাগ করেছেন। কিন্তু আমরা আমাদের হৃদয়ের মধ্যে আমাদের শিকড় ত্যাগ করি না। আমি কি দশ বছর আগে আসতে পারতাম? আমি কি পাঁচ বছর আগে আসতে পারতাম? আমি কি ছয় মাস আগে আসতে পারতাম? হতে পারে পারতাম। কিন্তু আমি এখন এখানে এসেছি, সেটাই বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আমার লোকেদের জন্য একটা পার্থক্য গড়ে দিতে আমি এখন এখানে এসেছি।'

 

বন্ধ করুন