বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মমতার বৈঠকে থাকছে কংগ্রেস, রাষ্ট্রপতি নির্বাচন নিয়ে বাঁধছে বিরোধী জোট
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মমতার বৈঠকে থাকছে কংগ্রেস, রাষ্ট্রপতি নির্বাচন নিয়ে বাঁধছে বিরোধী জোট

  • তৃণমূল কংগ্রেস সূত্রে খবর, রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে নিজেদের প্রার্থীকে অনায়াসে জয়ী করানোর মতো ভোট সংখ্যা এনডিএ’‌র কাছে নেই। ফলে আতঙ্ক বাড়ছে বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্বের। রাষ্ট্রপতি নির্বাচন উপলক্ষ্যে আগামীকালের এই বৈঠক। 

আগামীকাল, বুধবার নয়াদিল্লির কনস্টিটিউশন ক্লাবে বৈঠক ডেকেছেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। হাজির থাকার কথা দেশের তামাম অবিজেপি নেতৃত্বের। আজ, মঙ্গলবার বিকেলেই নয়াদিল্লি পৌঁছবেন তিনি। নয়াদিল্লির ১৮২ সাউথ অ্যাভিনিউতে থাকবেন মুখ্যমন্ত্রী। আজ কয়েকজন নেতা–নেত্রী মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে আসতে পারেন বলে সূত্রের খবর।

কেন এই বৈঠক ডাকা হয়েছে?‌ তৃণমূল কংগ্রেস সূত্রে খবর, রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে নিজেদের প্রার্থীকে অনায়াসে জয়ী করানোর মতো ভোট সংখ্যা এনডিএ’‌র কাছে নেই। ফলে আতঙ্ক বাড়ছে বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্বের। রাষ্ট্রপতি নির্বাচন উপলক্ষ্যে আগামীকালের এই বৈঠক। এখানে অবিজেপি দলগুলিকে ঐক্যবদ্ধ করে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিজেপিকে বেগ দিতে চান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর সেটা যদি সম্ভব হয় তাহলে ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির ক্ষমতায় আসা বেশ চাপের।

ঠিক কী জানিয়েছে কংগ্রেস?‌ লোকসভায় প্রধান বিরোধী দল কংগ্রেস। বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর এই বৈঠকে তাঁরা সাড়া দেবেন বলে খবর। সূত্রের খবর, কংগ্রেসের পক্ষ থেকে মল্লিকার্জুন খাড়গে, জয়রাম রমেশ এবং রণদীপ সিং সুরজেওয়ালার উপস্থিত থাকার কথা। আর অন্যান্য আঞ্চলিক দলও থাকছে সেখানে। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল, কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়ন, ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েক, তেলঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী কেসি রাও, তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী এমকে স্টালিন, মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে–সহ অনেকেই উপস্থিত থাকার কথা।

সমীকরণ ঠিক কোথায় দাঁড়িয়ে?‌ এমপি–এমএলএ মিলিয়ে যে সংখ্যা মোদী–অমিত শাহের কাছে রয়েছে, তার বাইরে আরও ২১ হাজার ভোটমূল্য প্রয়োজন। সেটা কোথা থেকে আসবে? এখন বিজেপির প্রধান ভরসা শাসক জোটের বাইরে থাকা দুই বন্ধু দল। নবীন পট্টনায়কের বিজু জনতা দল এবং জগন্মোহন রেড্ডির ওয়াই এস আর কংগ্রেস। এই দুই দলের কাছে রয়েছে যথাক্রমে ৩১ হাজার এবং ৪৩ হাজার মূল্যের ভোটশক্তি। যে কোনও একটি দলের ভোটও যদি বিজেপি মনোনীত রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী পেয়ে যান, তাহলে তিনি অনায়াসেই বসবেন ষোড়শ রাষ্ট্রপতির কুর্সিতে। আর এটাই আটকাতে উদ্যোগী বিরোধী শিবির।

বন্ধ করুন