বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > এবার আতঙ্কের নাম নবাগত ‘স্টেলথ ওমিক্রন’, কী জানা গেল করোনার সাব-স্ট্রেনের বিষয়ে?
এবার আতঙ্কের নাম নবাগত ‘স্টেলথ ওমিক্রন’ (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্যে পিটিআই)

এবার আতঙ্কের নাম নবাগত ‘স্টেলথ ওমিক্রন’, কী জানা গেল করোনার সাব-স্ট্রেনের বিষয়ে?

  • ব্রিটেন, ডেনমার্ক, নরওয়ে এবং সুইডেনে মিলেছে বি.২ সাব-স্ট্রেনটি।

করোনাভাইরাসের স্ট্রেন ওমিক্রনের নয়া সাব-স্ট্রেন আবিষ্কার হল। গত ডিসেম্বরের এই নয়া সাব-স্ট্রেনের খোঁজ পান বিজ্ঞানীরা। আর এই নয়া সাব-স্ট্রেনের খোঁজ মিলতেই আতঙ্ক ছড়িয়েছে যে ওমিক্রনের প্রাথমিক সাব-স্ট্রেনের থেকেও বেশি সংক্রামক প্রজাতি বিশ্ব জুড়ে ছড়িয়ে পড়তে পারে। আপাতত ব্রিটিশ স্বাস্থ্য আধিকারিকরা জানিয়েছেন যে নয়া বিএ.২ ভ্যারিয়েন্টটি নিয়ে ‘তদন্ত’ (গবেষণা) চলছে।

জানা গিয়েছে গত এক মাসেরও কম সময়ে বিএ.২ ভ্যারিয়েন্টে মোট ৫৩টি কেস সামনে এসেছে ব্রিটেনে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে ওমিক্রনের মোট তিনটি সাব-স্ট্রেন রয়েছে। এখনও পর্যন্ত গোটা বিশ্বে যত ওমিক্রন কেসের সিকোয়েন্সিং হয়েছে, তার মধ্যে থেকে দেখা গিয়েছে যে ৯৯ শতাংশই বিএ.১ সাব-স্ট্রেন। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা আরও বলে যে বি.১.১.৫২৯ সম্পর্কে আরও গবেষণা চলছে। এই সংক্রান্ত সমস্ত কিছউ এখনও জেনে উঠতে পারেননি বিজ্ঞানীরা।

এদিকে ব্রিটেন ছাড়াও বি.২ সাব-স্ট্রেনটি ডেনমার্ক, নরওয়ে এবং সুইডেনে মিলেছে। ফ্রান্স এবং ভারতের বিজ্ঞানীরাও বিএ.২ সাব-ভ্যারিয়েন্টের দ্রুত বিস্তার সম্পর্কে সতর্ক করেছেন। তাঁদের মতে দ্রুতই এই সাব-ভ্যারিয়েন্টটি অন্য সব সাব-ভ্যারিয়েন্টকে ছাপিয়ে যেতে পারে।

ইতিমধ্যেই ডেনমার্কে ক্রমেই ছড়িয়ে পড়ছে ওমিক্রনের বি.২ সাব-স্ট্রেনটি। গত ডিসেম্বরে যেখানে ডেনমার্কের মোট ওমিক্রন আক্রান্তদের ২০ শতাংশ রোগী বি.২ আক্রান্ত ছিলেন। গত কয়েক সপ্তাহে সেই শতাংশের হার ৪৫ হয়েছে। গত এক সপ্তাহে ডেনমার্কে করোনা আক্রান্ত হয়েছে ৩০ হাজার। ডেনমার্কে এর আগের করোনা ঢেউতে এত সংক্রমণ দেখা যায়নি। এর জেরেই ইউরোপের অন্যান্য দেশে আতঙ্ক বাড়ছে নয়া এই সাব-স্ট্রেন নিয়ে।

 

বন্ধ করুন