বিশ্ব আর্থিক মন্দা থেকে বাঁচবে ভারত, দাবি রাষ্ট্রপুঞ্জের রিপোর্টে।
বিশ্ব আর্থিক মন্দা থেকে বাঁচবে ভারত, দাবি রাষ্ট্রপুঞ্জের রিপোর্টে।

করোনা সংকটে বিশ্বজুড়ে আর্থিক মন্দার মাঝেও বাঁচবে ভারত, দাবি রাষ্ট্রপুঞ্জের

এই পরিস্থিতিতে বিশেষ বিপদে পড়তে চলেছে উন্নয়নশীল দেশগুলি, যার মধ্যে ব্যতিক্রম চিন এবং সম্ভবত ভারত।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের জেরে বিশ্বজুড়ে প্রবল আর্থিক মন্দা দেখা দিলেও তার থেকে রেহাই পেতে পারে চিন ও ভারত। সম্প্রতি এই তথ্য জানিয়েছে রাষ্ট্রপুঞ্জের বাণিজ্য রিপোর্ট।

চলতি বছরে বিশ্বব্যাপী আর্থিক মন্দার জেরে কয়েক লক্ষ কোটি ডলার ক্ষতি হতে চলেছে বিশ্ব অর্থনীতির, জানিয়েছে রাষ্ট্রপুঞ্জের রিপোর্ট। COVID-19 সংকটের শিকার হতে চলেছে বিশেষ করে উন্নয়নশীল রাষ্ট্রগুলি। এই পরিস্থিতিতে আগামী দুই বছর বিনিয়োগে মন্দা দেখা দেওয়ার সম্ভাবনা প্রবল।

সংকট থেকে ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলিকে বাঁচাতে ২৫,০০০ কোটি ডলার উদ্ধারকারী অনুদানের আবেদন জানিয়েছে রাষ্ট্রপুঞ্জ।

তবে মার্কিন সাহায্য পাওয়া গেলেও বিশ্ব আর্থিক মন্দা রোখা অসম্ভব বলে জানিয়েছে ওই রিপোর্ট। বলা হয়েছে, ‘তা সত্ত্বেও চলতি বছরে বিশ্ব অর্থনীতিতে মন্দা আসতে বাধ্য, যার মোট ক্ষতির পরিমাণ কয়েক লক্ষ কোটি ডলার ছাপিয়ে যাবে। এই পরিস্থিতিতে বিশেষ বিপদে পড়তে চলেছে উন্নয়নশীল দেশগুলি, যার মধ্যে ব্যতিক্রম চিন এবং সম্ভবত ভারত।’

এই রিপোর্ট অনুযায়ী, চিনে করোনাভাইরাস সংক্রমণ শুরু হওয়ার দুই মাসের মধ্যে তা বিশ্বের অন্যান্য দেশে ছড়াতে থাকে, যার শিকার হয় উন্নয়নশীল দেশগুলি। সংক্রমণের জেরে বিশেষ ভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এই দেশগুলির বিনিয়োগ নীতি ও সরকারি বন্ড ছাড়ার পরিকল্পনা। দেখা দিয়েছে মুদ্রাস্ফীতি এবং মার খাচ্ছে রফতানিসূত্রে আয়। এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে পণ্যের মূল্যহ্রাস এবং পর্যটনক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য লোকসানের হার।

এই মহাসংকট পাড়ি দিতে উপযুক্ত অর্থনৈতিক ও প্রশাসনিক পরিকাঠামো না থাকায় বিশ্বজুড়ে আর্থিক মন্দার মুখে উন্নয়নশীল দেশগুলির উন্নতির সম্ভাবনা প্রবল ধাক্কা খাবে বলে আশঙ্কা করা হয়েছে রাষ্ট্রপুঞ্জের রিপোর্টে।

বন্ধ করুন