বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > আন্দোলনের সময় প্রাণ হারানো ৭৫০ কৃষকের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন এই আইন: রাকেশ তিকাইত
কৃষক নেতা রাকেশ তিকাইত (ছবি সৌজন্যে হিন্দুস্তান টাইমস) (HT_PRINT)

আন্দোলনের সময় প্রাণ হারানো ৭৫০ কৃষকের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন এই আইন: রাকেশ তিকাইত

  • এদিন লোকসভায় কৃষি আইন প্রত্যাহার বিল পাশ হতেই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন কৃষক নেতা রাকেশ তিকাইত।

কৃষি আইন প্রত্যাহার বিল আন্দোলনের সময প্রাণ হারানো ৭৫০ কৃষকদের প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপন। এদিন লোকসভায় কৃষি আইন প্রত্যাহার বিল পাশ হতেই সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে এই কথা বললেন কৃষক নেতা রাকেশ তিকাইত। তবে তিনি জানান, ন্যূনতম সহায়ক মূল্য সহ একাধিক দাবিতে তাদের আন্দোলন জারি থাকবে। 

তিকাইত এদিন বলেন, ‘সরকার চায় দেশে যেন কোনও আন্দোলন না হয়। এমএসপি সহ অন্যান্য সমস্ত বিষয়ে কোনও আলোচনা ছাড়া আমরা আন্দোলন থেকে সরে আসব না। আজকের এই বিল আন্দোলনের সময় প্রাণ হারানো ৭৫০ কৃষকের প্রতি শ্রদ্ধা জ্ঞাপন। ’

উল্লেখ্য, এদিন লোকসভায় বিরোধীদের তুুমুল হট্টগোলের মাঝে পাশ হয় কৃষি আইন প্রত্যাহার বিল। লোকসভায় কৃষি আইন প্রত্যাহার বিল পেশ করেন কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর। এরপরই এই বিল প্রসঙ্গে আলোচনা চেয়ে হট্টগোল শুরু করেন বিরোধী সাংসদরা। এরই মাঝে লোকসভায় ধ্বনি ভোটে পাশ হয়ে যায় কৃষি আইন প্রত্যাহাক বিল। মনে করা হয়েছিল, এই বিলটি অন্তত নির্বিঘ্নে পাশ হবে সংসদে। তবে এই বিল নিয়েও হইচই শুরু করে বিরোধীরা।

এই বিষয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রহ্লাদ যোশীর বক্তব্য, ‘সরকারের উদ্দেশ্য পরিষ্কার- আমরা লোকসভায় কৃষি আইন বাতিল বিল ২০২১ পাস করতে চাই এবং পরবর্তীকালে এটি রাজ্যসভায় নিয়ে যেতে চাই। বিলটি যখন রাজ্যসভায় নিয়ে যাওয়া হবে তখন আমি বিরোধীদের কাছে বিলটি পাশ করার জন্য সহযোগিতা করার আবেদন করছি।’

এরপর লোকসভায় আজকের হইচইয়ের জন্য বিরোধীদের বিঁধে মন্ত্রী বলেন, ‘কৃষি আইন প্রত্যাহার বিল পাসের সময় যথেষ্ট আলোচনা হয়। সব বিরোধীরা এতদিন আইনগুলি বাতিলের দাবি জানিয়ে এসেছিল। কিন্তু আমরা যখন আইন বাতিল করতে গিয়ে বিরোধীরা তোলপাড় সৃষ্টি করে, আমি বিরোধীদের জিজ্ঞেস করতে চাই, তাদের উদ্দেশ্য কী?’

 

বন্ধ করুন