বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি, অরুণাচলের তামাঙে লাল ফৌজের ২০০ জওয়ানকে রুখে দেয় ভারতীয় সেনা
প্রতীকী ছবি (সৌজন্যে হিন্দুস্তান টাইমস) (HT_PRINT)
প্রতীকী ছবি (সৌজন্যে হিন্দুস্তান টাইমস) (HT_PRINT)

কোনও ক্ষয়ক্ষতি হয়নি, অরুণাচলের তামাঙে লাল ফৌজের ২০০ জওয়ানকে রুখে দেয় ভারতীয় সেনা

  • গত সপ্তাহে অরুণাচল সীমান্তের তামাঙে ভারত-চিন সেনা মুখোমুখি হয়। তবে এই ঘটনায় ভারতের তরফে কোনও ক্ষয়ক্ষতির খবর নেই।

গত সপ্তাহে অরুণাচল সীমান্তের তামাঙে ভারত-চিন সেনা মুখোমুখি হয় বলে খবর প্রকাশিত হয় আজকেই। এরপরই ঘটনার বিস্তারিত তথ্য প্রকাশ করতে মুখ খুলল ভারত। জানানো হল, ঘটনায় কোনও চিনা সেনাকে আটক করা হয়নি। পাশাপাশি চিনা সেনা ভারতীয় সোনর বাঙ্কার ভাঙার চেষ্টা করলেও তাতে সফল হয়নি বলে জানানো হয়েছে। ভারতের তরফে কোনও ক্ষয়ক্ষতির খবর নেই এই ঘটনায়।

প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা নিয়ে বিবাদের জেরেই এই ফেস-অফ হয় বলে জানা গিয়েছে। টহলদারি করতে করতে ভারতীয় সীমান্তের খুব কাছে চলে আসে প্রায় ২০০ জন চিনা সেনা। পরে ভারতীয় সেনা সেখানে রুখে দাঁড়ালে ভারতীয় ভুখণ্ডে ঢুকতে পারেনে লাল ফৌজের জওয়ানরা।

এই বিষয়ে হিন্দুস্তান টাইমসকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক সরকারিকর্তা বলেন, 'ভারত-চিন সীমান্ত আনুষ্ঠানিকভাবে নির্ধারিত করা হয়নি এবং তাই দেশগুলির মধ্যে এলএসি নিয়ে বিবাদ বা মতপার্থক্য রয়েছে। দুই দেশের মধ্যকার চুক্তি এবং প্রটোকল মেনে চলার মাধ্যমে বিভিন্ন এলাকায় শান্তি বজায় রাখা সম্ভব হয়েছে।'

অরুণাচলের সীমান্ত নিয়ে চিন এবং ভারতের মধ্যে বিবাদ দীর্ঘদিনের। জানা গিয়েছে, এই ফেস-অফ বেশ কয়েক ঘণ্টা চলে। পরে প্রোটোকল অনুযায়ী এই বিবাদ মেটানো হয়। জানা গিয়েছে, অরুণাচলপ্রদেশে প্রায় চিনা সেনার ২০০ জওয়ান প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় ভারতীয় ভূখণ্ডের খুব কাছে এসে পড়ে। চিনা সেনাকে সীমান্ত অতিক্রম করে ভারতের মাটিতে ঢুকতে বাধা দেয় ভারতীয় সেনা। জানা গিয়েছে, দুই দেশের সেনাবাহিনী মুখোমুখি হলেও সংঘর্ষ হয়নি। বরং আলোচনার মাধ্যমে মেটানো হয় বিবাদ।

বন্ধ করুন