বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > হচ্ছিল ছাগল-বলি, কোপ পড়ল পাশে থাকা ব্যক্তির গলায়! হাড়হিম করা ঘটনায় চাঞ্চল্য
প্রতীকী ছবি। সৌজন্য এএনআই  (ANI)
প্রতীকী ছবি। সৌজন্য এএনআই  (ANI)

হচ্ছিল ছাগল-বলি, কোপ পড়ল পাশে থাকা ব্যক্তির গলায়! হাড়হিম করা ঘটনায় চাঞ্চল্য

  • বলির সময়, মন্দিরে চারিদিকে প্রবল করতাল বেজে চলেছে। এমন একটা সময় যে ব্যক্তি বলি দিচ্ছিলেন তিনি খাঁড়া উঁচিয়ে ধরেন, ততক্ষণে ছাগলকে শক্ত করে ধরে রেখেছেন সুরেশ। এরপরই ঘটে যায় মর্মান্তিক কাণ্ড।

পুজোয় বলি প্রথা দেশের বিভিন্ন অংশে প্রচলিত রয়েছে। অনেকেই মানত কিম্বা আস্থার বশে মন্দিরে পশু বলি দেওয়াকে বিশ্বাসী। যদিও বহু পশুপ্রেমী সংগঠন এই বিষয়ের ঘোর বিরোধিতা করেছে। এদিকে, উৎসবের মরশুমে বহু জায়গাতেই ধর্ম বিশ্বাস থেকে পশুবলি হয়ে থাকে। যেরকমটা ঘটেছিল অন্ধ্রপ্রদেশে। সেখানে এক মন্দিরে একটি ছাগলকে বলি দিতে নিয়ে যাওয়া হয়। যখন ছাগলের বলি চলছিল, তখন ঘটে গেল এক হাড়হিম করা ঘটনা।

 স্থানীয় সূত্রে খবর, ঘটনার সময় ছাগলের মাথা হাড়িকাঠে প্রথম থেকেই চেপে ধরেছিলেন সুরেশ। এদিকে বলির সময়, মন্দিরে চারিদিকে প্রবল করতাল বেজে চলেছে। এমন একটা সময় যে ব্যক্তি বলি দিচ্ছিলেন তিনি খাঁড়া উঁচিয়ে ধরেন, ততক্ষণে ছাগলকে শক্ত করে ধরে রেখেছেন সুরেশ। তবে খাঁড়া ছাগলের গলায় পড়ার জায়গায় , পড়ে যায় সুরেশের গলায়। মুহূর্তে রক্তাক্ত হয়ে ছটফট করতে থাকেন ওই আহত সুরেশ। ততক্ষণে মন্দিরে পড়ে গিয়েছে শোরগোল। সঙ্গে সঙ্গে আহতকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তখনই সেখানে তিনি মারা যান। অন্ধ্রপ্রদেশের চিত্তুরে বলসাপেল্লের এক মন্দিরে সংক্রান্তির দিন এমন ঘটনা ঘটতেই সাড়া পরে যায় এলাকায়।

উল্লেখ্য, পুলিশ জানিয়েছে ঘটনায় অভিযুক্তকে সঙ্গে সঙ্গেই ধরা হয়েছে। পুলিশ সূত্রের খবর, বলি দেওয়ার সময় ওই ব্যক্তি মদের নেশায় ছিল। আর মদের ঘোরের বশে এসে তিনি এভাবে খাঁড়া তুলে ছাগলের জায়গায় তাকে ধরা থাকা ব্যক্তির গলায় কোপ বসিয়ে দেয়। এদিকে, মৃত সুরেশ বিবাহিত বলে জানা গিয়েছে। তাঁর সন্তানও রয়েছে। এদিকে, পুলিশ ঘটনা ঘিরে শুরু করেছে তদন্ত। অভিযুক্ত ব্যক্তির সঙ্গে মৃত সুরেশের কোনও শত্রুতা বা দ্বন্দ্ব ছিল কিনা তার খোঁজ নিচ্ছে পুলিশ।

 

বন্ধ করুন