বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > গোমাংস ঘিরে চরম উত্তেজনা ত্রিপুরায়, BSF-গ্রামবাসী সংঘর্ষে জখম এক জওয়ান সহ পাঁচ

গোমাংস ঘিরে চরম উত্তেজনা ত্রিপুরায়, BSF-গ্রামবাসী সংঘর্ষে জখম এক জওয়ান সহ পাঁচ

ত্রিপুরায় BSF-গ্রামবাসী সংঘর্ষে জখম এক জওয়ান সহ পাঁচ (ছবি সৌজন্যে পিটিআই) (ফাইল ছবি )

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয় এলাকায়। সন্ধ্যায় জাতীয় সড়ক অবরোধ করে গ্রামবাসীরা ।

কাটা হচ্ছে গোমাংস! আর তাই নিয়ে নাকি চরম উত্তেজনা ছড়াল ত্রিপুরায়। ঘটনাটি ঘটেছে ত্রিপুরার সোনামুড়ার মতিনগর ফকিরাদোলা এলাকায়। এর জেরে গতকাল সন্ধ্যায় জাতীয় সড়ক অবরোধ করা হয়। এর জেরে সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ায় স্থানীয় গ্রামবাসীরা। সংঘর্ষের জেরে দুই পক্ষেরই মোট পাঁচজন জখম হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয় এলাকায়।

জানা গিয়েছে, রবিবার মতিনগর গ্রাম পঞ্চায়েতের ফকিরাদোলা এলাকা বাসিন্দারা অনুষ্ঠানের জন্য গোমাংস কাটছিল রান্না করার উদ্দেশ্যে। এদিকে গোমাংস কাটার খবর পেয়ে সেখানে পৌঁছান ইউএনসি নগর বর্ডার আউটপোস্টে নিযুক্ত বিএসএফ জওয়ানরা। দুই পক্ষের বচসা শুরু হয় গোমাংস নিয়ে। বচসা বাড়তে থাকলে বিএসএফ গ্রামবাসীদের উপর লাঠিচার্জ করে বলে অভিযোগ। এরপরই নাকি গ্রামবাসীরা পাল্টা বিএসএফ জওয়ানদের তাড়া করে। গ্রামবাসীদের তাড়াতে গুরুতর জখম হন এক বিএসএফ জওয়ান। জখম জওয়ান সোনামুড়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। বিএসএফ-এর দাবি, টহলের সময় জওয়ানরা দেখতে পান যে রাস্তার ধআরে গোমাংস কাটছে গ্রামবাসীরা। সেখানে গোমাংস কাটতে বারণ কার হলে চটে যায়।

জানা গিয়েছে, বিএসএফ-এর লাঠিচার্জে এক মহিলা সহ চার গ্রামবাসীও জখম হয়েছেন। এই ঘটনার প্রতিবাদে রবিবার সন্ধ্যায় সোনামুড়া ও বক্সনগর জাতীয় সড়ক অবরোধ করে স্থানীয়রা। ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও সঠিক বিচারের দাবি তোলে গ্রামবাসীরা। পরে গোকুলনগরের হেড কোয়ার্টার থেকে বিএসএফের উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে গ্রামবাসীদের সঙ্গে কথা বলেন। পরে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে পুলিশ, টিএসআর ও বিএসএফ জওয়ানদের মোতায়েন করা হয়েছে এলাকায়। গোটা এলাকায় এখনও থমথমে পরিস্থিতি বলে জানা গিয়েছে।

 

বন্ধ করুন