বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > আবর্জনার স্তূপে মোদী, যোগীর ছবি দেখতে পেয়ে তুলকালাম! শেষে ধুয়ে তোলা হল সমস্ত
আবর্জনার স্তূপে মোদী, যোগীর ছবি দেখতে পেয়ে তুলকালাম! শেষে ধুয়ে তোলা হল সমস্ত

আবর্জনার স্তূপে মোদী, যোগীর ছবি দেখতে পেয়ে তুলকালাম! শেষে ধুয়ে তোলা হল সমস্ত

  • মথুরার সুভাষ ইন্টার কলেজের সংলগ্ন এলাকায় হয়েছে। আবর্জনায় এই ছবিগুলি দেখে অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করেন সাফাই কর্মীর উপর। এরপর কয়েক জন এসে আবর্জনার স্তূপ থেকে ওই ছবি তুলে নিয়ে তা পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করে ঘরে তোলেন। এই ভিডিয়ো ভাইরাল হতেই ওই সফাই কর্মীর চাকরি চলে যায় বলে খবর।

উত্তরপ্রদেশের মথুরায় মুখ্যমন্ত্রী যোগি আদিত্যনাথ ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ছবি আবর্জনার স্তূপে রয়েছে, এমন ভিডিয়ো ভাইরাল হতেই তুলকালাম শুরু হয়েছে। ঘটনায় পুরসভাকে কাঠগড়ায় দাঁড় করানো হয়। এলাকার সাফাই কর্মী যাঁরা চুক্তি ভিত্তিক কাজ করে থাকেন, তাঁদের চুক্তির মেয়াদ বাতিলের দাবিও উঠেছে।

ভিডিয়োয় দৃশ্য বন্দি হওয়ার সময় দুলিচাঁদ নামে এক সাউ কর্মী নোংরা আবর্জনা একত্রিত করছিলেন। সেই আবর্জনায় ছিল যোগী আদিত্যনাথ ও নরেন্দ্র মোদীর ছবি। দেখা যায়, ফটোগুলিকে মূল আবর্জনার জায়গায় রেখে দেন দুলাচাঁদ। মথুরার সুভাষ ইন্টার কলেজের সংলগ্ন এলাকায় হয়েছে। আবর্জনায় এই ছবিগুলি দেখে অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করেন সাফাই কর্মীর উপর। এরপর কয়েক জন এসে আবর্জনার স্তূপ থেকে ওই ছবি তুলে নিয়ে তা পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করে ঘরে তোলেন। এই ভিডিয়ো ভাইরাল হতেই ওই সফাই কর্মীর চাকরি চলে যায় বলে খবর।

জানা গিয়েছে, ভিডিয়ো ভাইরাল হওয়ার পর পুরসভার তরফে সাফাই কর্মীর কাজ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এদিকে জানা গিয়েছে, আলোয়ার থেকে মথুরা বেড়াতে আসা ডক্টর পঙ্কজ গুপ্তা নরেশ ধানবত ও অশ্বিনী জওয়ালি নামের তিনজনের চোখে ওই ছবি পড়ে প্রথম। যে ছবিগুলি ছিল আবর্জনার স্তূপে। তাঁদের ভিডিয়ো ভাইরাল হতেই তুলকালাম ছড়িয়ে পড়ে যোগীরাজ্যে। এরপর পঙ্কজ গুপ্তা এই ছবি তুলে নিয়ে গিয়ে তাকে পরিচ্ছন্ন করে আলোয়ারে তাঁদের দফতরে লাগিয়েছেন।

বন্ধ করুন