বাড়ি > ঘরে বাইরে > কাশ্মীরের ৩ প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর দ্রুত মুক্তির জন্য প্রার্থনা করছেন রাজনাথ
কাশ্মীরে স্বাভাবিক পরিস্থিতি ফিরিয়ে আনতে তাঁরা অবদান রাখবেন বলেও আশা পোষণ করছেন রাজনাথ।
কাশ্মীরে স্বাভাবিক পরিস্থিতি ফিরিয়ে আনতে তাঁরা অবদান রাখবেন বলেও আশা পোষণ করছেন রাজনাথ।

কাশ্মীরের ৩ প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর দ্রুত মুক্তির জন্য প্রার্থনা করছেন রাজনাথ

কাশ্মীরে এখন শান্তি বিরাজ করছে। দ্রুত পরিস্থিতির উন্নয়ন হচ্ছে। এর সঙ্গেই আটক রাজনীতিকদের মুক্তি দেওয়ার সিদ্ধান্তও এবার চূড়ান্ত হবে।

জম্মু ও কাশ্মীরের তিন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর বন্দিদশা থেকে দ্রুত মুক্তিলাভের জন্য প্রার্থনা করছেন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিং। শনিবার এই কথা জানানোর পাশাপাশি কাশ্মীরে স্বাভাবিক পরিস্থিতি ফিরিয়ে আনতে তাঁরা অবদান রাখবেন বলেও আশা পোষণ করেন রাজনাথ।

সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিলের জেরে জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা প্রত্যাহারের পরে রাজ্যের তিন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আবদুল্লা, ওমর আবদুল্লা ও মেহবুবা মুফতি-সহ বেশ কয়েক জন নেতাকে কেন্দ্রীয় সরকারের নির্দেশে নিরাপত্তার স্বার্থে আটক করা হয়।

তাঁদের মধ্যে অধিকাংশকে পরে মুক্তি দেওয়া হলেও তিন প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী-সহ প্রায় একডজন নেতার এখনও বন্দিদশা ঘোচেনি। এঁদের মধ্যে ফারুক আবদুল্লার বিরুদ্ধে জননিরাপত্তা আইনে অভিযোগ দায়ের হয় গত সেপ্টেম্বর মাসে। সম্প্রতি ওমর ও মেহবুবার বিরুদ্ধে একই অভিযোগ আনা হয়েছে। প্রমাণ হিসেবে, ৩৭০ ধারা রদের আগে তিন নেতার উস্কানিমূলক বিবৃতির দিকেই আঙুল তোলা হয়েছে।

শনিবার সংবাদসংস্থা আইএএনএস-কে দেওয়া এক্সক্লুসিভ সাক্ষাত্কারে কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রী বলেন, ‘কাশ্মীরে এখন শান্তি বিরাজ করছে। দ্রুত পরিস্থিতির উন্নয়ন হচ্ছে। এর সঙ্গেই আটক রাজনীতিকদের মুক্তি দেওয়ার সিদ্ধান্তও এবার চূড়ান্ত হবে। সরকার কারও উপরে অত্যাচার করেনি।’

সেই সঙ্গে তিনি বলেন, ‘প্রার্থনা করি, তাঁরা মুক্তি পাওয়ার পরে কাশ্মীরে পরিস্থিতি উন্নয়নের কাজে অবদান রাখবেন।’

বন্ধ করুন