ভারতীয় পদে মার্কিনি স্বাদের ছোঁয়া আনার পরিকল্পনা করেছেন রাইসিনা হিলস-এর পাচককূল।
ভারতীয় পদে মার্কিনি স্বাদের ছোঁয়া আনার পরিকল্পনা করেছেন রাইসিনা হিলস-এর পাচককূল।

রাইসিনার নৈশভোজে মার্কিনি মেজাজের ভারতীয় রসনায় তৃপ্ত ট্রাম্প

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তাঁর সঙ্গী অতিথিদের জন্য খাদ্য তালিকা তৈরির সময় এই আপ্তবাক্যই মাথায় রেখেছিলেন রাইসিনা হিলসের পাচককূল। রান্নার প্রশংসা করলেন প্রেসিডেন্টও।

ভারতীয় রসনায় আমেরিকান মেজাজ। মঙ্গলবার রাষ্ট্রপতি ভবনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তাঁর সঙ্গী অতিথিদের জন্য খাদ্য তালিকা তৈরির সময় এই আপ্তবাক্যই মাথায় রেখেছেন রাইসিনা হিলসের পাচককূল।

আমেরিকার প্রেসিডেন্টের প্রিয় পদের মধ্যে সিংহভাগ দখল করে রেখেছে মিটলোফ, ম্যাকডোনাল্ডস-এর বার্গার ও স্টেক উইথ কেচাপ-এর মতো আদ্যন্ত মার্কিন খাদ্যসম্ভার। বলা বাহূল্য, এই সমস্ত পদে গোমাংসের উপস্থিতি প্রবল। রাষ্ট্রপতি ভবনে তার প্রবেশ অসম্ভব বলেই ভোজসভায় পাঁঠার মাংস সমৃদ্ধ রান আলি-শান পরিবেশনের পরিকল্পনা করেছেন দায়িত্বপ্রাপ্ত শ্যেফরা।

এ ভাবেই, ভোজসভায় হাজির খাঁটি মার্কিনি পদ অ্যাটলান্টিক স্যমন-এর নয়া নামকরণ করা হয়েছে ফিশ টিক্কা। শুধু তাই নয়, প্রচলিত টিক্কার উপরে ছড়ানো গরম মশলার পরিবর্তে তার উপরে ছড়ানো হয়েছে আমেরিকান খাদ্যরসিকদের অতিপ্রিয় ক্যাজুন স্পাইস।

এই প্রসঙ্গে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দায়িত্বপ্রাপ্ত এক শ্যেফ জানিয়েছেন, ‘আমাদের পরিকল্পনায় সরকারি এই ভোজে ভারতীয় খাবারে আমেরিকান মশলা প্রয়োগ করে পরিবেশন করা হবে বলে ঠিক হয়েছে।’

প্রবল মাংশাষী ট্রাম্পের মনোহরণ করতে ১২ ঘণ্টা ধরে ম্যারিনেড করে রাখা পাঁঠার আস্ত পা ঢিমে আঁচে ঝলসে রাঁধা হয়েছে রান আলি-শান। আগ্রহীদের জন্য আলাদা গ্রেভির ব্যবস্থাও ককরা হয়েছে, যা তৈরি হয়েছে কাশ্মীরের প্রসিদ্ধ রোগন জোশের রন্ধনপ্রণালী মেনে।

ট্রাম্পের জন্য ১২ ঘণ্টা ধরে ম্যারিনেড করে রাখা পাঁঠার আস্ত পা ঢিমে আঁচে ঝলসে রাঁধা হয়েছে রান আলি-শান।
ট্রাম্পের জন্য ১২ ঘণ্টা ধরে ম্যারিনেড করে রাখা পাঁঠার আস্ত পা ঢিমে আঁচে ঝলসে রাঁধা হয়েছে রান আলি-শান।

নৈশভোজে থাকছে রাষ্ট্রপতি ভবনের সুবিখ্যাত পদ ডাল রাইসিনাও। তবে বিদেশি অভ্যাগতদের স্বাদকোরকের কথা মাথায় রেখে আমিষ ও নিরামিষ প্রতিটি পদই বেশি মশলাদার করা থেকে বিরত থেকেছেন রাঁধিয়েরা। এমনকি, কিছু কিছু পদে মার্কিনি রসনায় হামেশা ব্যবহৃদ উপাদানের উপস্থিতি বহাল রাখা হয়েছে।

তবে মূল ভোজ শুরুর আগে অতিথিদের পাতে পড়তে চলেছে সোনার তবক মোড়া ও সোনার রেণু ছড়ানো কমলালেবু। এরপেরই থাকছে পালং পাপড়ি ছড়ানো আলু টিক্কি, লেবু-ধনেপাতার শোরবা, দম গুচি মটরের মতো মুখরোচক আইটেম। এর পরেই পরিবেশিত হবে দম গো,্ত বিরিয়ানি এবং নিরামিশাষীদের জন্য ডেগ কি বিরিয়ানি।

ভোজসভায় সংগীত পরিবেশনের দায়িত্বে থাকছে ভারতীয় নৌসেনা ব্যান্ড। জনপ্রিয় ইংরেজি ও হিন্দি গানের সুর বাজাবেন ব্যান্ডের সদস্যরা।এ দিন রাষ্ট্রপকতি ভবনের ঐতিহাসিক ব্যাঙ্কোয়েট হলের নৈশভোজে আমন্ত্রিত প্রায় ১০০ অতিথিকে খাবার পরিবেশন করা হবে খাঁটি রুপোর তৈরি বাসনে। প্রায় দেড় ঘণ্টা ধরা হয়েছে ভোজের মেয়াদ। রাত ১০টায় আমেরিকার উদ্দেশে রওনা দেবে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিশেষ বিমান।

বন্ধ করুন