বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > দূষণের জেরে এই রাজ্যে ১ সপ্তাহের জন্য বন্ধ থাকছে স্কুল, যেতে হবে না সরকারি অফিসে
এক সপ্তাহ অনলাইনে ক্লাস চলবে। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)
এক সপ্তাহ অনলাইনে ক্লাস চলবে। (ছবি সৌজন্য পিটিআই)

দূষণের জেরে এই রাজ্যে ১ সপ্তাহের জন্য বন্ধ থাকছে স্কুল, যেতে হবে না সরকারি অফিসে

  • সকালে সুপ্রিম কোর্টে ধমক খেতে হয়েছিল। তারপরই নেওয়া হল সিদ্ধান্ত।

সকালে সুপ্রিম কোর্টে ধমক খেতে হয়েছিল। বিকেলেই দিল্লি সরকারের তরফে জানানো হল, আগামী সোমবার (১৫ নভেম্বর) এক সপ্তাহ সশরীরে স্কুলে যেতে হবে না। অনলাইনে ক্লাস চলবে। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল জানান, পড়ুয়াদের যাতে দূষিত বায়ুতে শ্বাস-প্রশ্বাস না নিতে হয়, তাই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সেইসঙ্গে আগামী এক সপ্তাহ সরকারি অফিসে চলবে 'ওয়ার্ক ফ্রম হোম'।

রাজধানীতে ক্রমহ্রাসমান বায়ুর মান নিয়ে দায়ের হওয়া একটি পিটিশনের শুনানিতে শনিবার সকালেই সুপ্রিম কোর্টের ভর্ৎসনার মুখে পড়ে দিল্লি সরকার। কেজরিওয়াল সরকারের আইনজীবীকে উদ্দেশ করে প্রধান বিচারপতি এন ভি রামান্নার নেতৃত্বাধীন ডিভিশন বেঞ্চের অন্যতম সদস্য তথা বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় বলেন, 'আপনারা এক সপ্তাহ আগে স্কুল খুলে দিয়েছেন। আপনারা ওদের (পড়ুয়াদের) দূষণের মুখে ঠেলে দিচ্ছেন। এটা কেন্দ্রের আওতাভুক্ত নয়। এটা দিল্লি সরকারের আওতায় আছে।' সেইসঙ্গে বায়ুদূষণের মাত্রা কমানোর জন্য জরুরি ভিত্তিতে পদক্ষেপ করার জন্য কেন্দ্রকে নির্দেশ দেয় শীর্ষ আদালত। তারপর তড়িঘড়ি ময়দানে নামেন কেজরিওয়াল। বিকেলে একগুচ্ছ পদক্ষেপের ঘোষণা করেন তিনি।

১) সোমবার থেকে এক সপ্তাহের জন্য বন্ধ থাকবে স্কুল। 

২) আগামিকাল (রবিবার) থেকে বুধবার পর্যন্ত কোনও নির্মাণকাজ করা যাবে না। 

৩) এক সপ্তাহের জন্য সরকারি অফিসে চলবে 'ওয়ার্ক ফ্রম হোম'। কাউকে অফিসে যেতে হবে না। বেসরকারি অফিসগুলিতেও কর্মীদের যতটা সম্ভব বাড়ি থেকে কাজ করার চেষ্টা করতে হবে। সেই মতো নির্দেশিকা জারি বেসরকারি অফিসগুলি।

৪) কেজরিওয়াল: দূষণের পরিস্থিতির যদি আরও অবনিত হয়, তাহলে দিল্লিতে পুরো লকডাউনের পরামর্শ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। আমরা একটি খসড়া তৈরি করছি। যা নিয়ে বিভিন্ন সংস্থা এবং কেন্দ্রের সঙ্গে আলোচনা করা হবে। যদি সম্পূর্ণ লকডাউন হয়, তাহলে পুরোপুরি বন্ধ করতে হবে নির্মাণকাজ এবং গাড়ি চলাচল।

বন্ধ করুন