বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'শীঘ্রই দেখতে পারবে ভারত...', মোদীর উক্তিতে বিদ্ধ হয়ে পাল্টা জবাব তালিবানের
আফগানিস্তানের দখল নিয়েছে তালিবান জঙ্গি গোষ্ঠী (রয়টার্স)
আফগানিস্তানের দখল নিয়েছে তালিবান জঙ্গি গোষ্ঠী (রয়টার্স)

'শীঘ্রই দেখতে পারবে ভারত...', মোদীর উক্তিতে বিদ্ধ হয়ে পাল্টা জবাব তালিবানের

  • কয়েকদিন আগেই আফগানিস্তানের বর্তমান পরিস্থিতির প্রেক্ষিতে পরোক্ষে বার্তা দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। 

কয়েকদিন আগেই আফগানিস্তানের বর্তমান পরিস্থিতির প্রেক্ষিতে পরোক্ষে বার্তা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেছিলেন, 'যারা সন্ত্রাসের আদর্শ নিয়ে সাম্রাজ্য স্থাপন করতে চাইছে, তারা কিছু সময়ের জন্য সফল হতে পারে। তবে তাদের অস্তিত্ব কখনও চিরস্থায়ী হয় না, কারণ তারা কোনওদিন মানবতাকে দমন করে রাখতে পারে না।' আর প্রধানমন্ত্রীর এহেন উক্তিতেই বিদ্ধ হয়ে পাল্টা জবাব দিল তালিবান। মোদীর এই বক্তব্যকে চ্যালেঞ্জ রূপে গ্রহণ করেছএল তালিবানি নেতা শাহাবুদ্দিন দিলাওয়ার। তিনি দাবি করেন যে আফগানিস্তানে তাঁর সংগঠন দীর্ঘ সময়ের জন্যই সফল হবে।

রেডিয়ো পাকিস্তানকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে ভারতকে সতর্ক করে দিয়ে শাহাবুদ্দিন দিলাওয়ার বলনে যাতে ভারত আফগানিস্তানের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নাক না গলায়। পাশাপাশি পাকিস্তানকে তালিবানের বন্ধু রাষ্ট্র হিসেবে উল্লেখ করে ৩০ লক্ষ আফগান শরণার্থীকে আশ্রয় দেওয়ার জন্য পাকিস্তানকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন দিলাওয়ার। তাছাড়া পাকিস্তানকে যে তালিবান দ্বিতীয় ভর হিসেবে মানে, তাও উল্লেখ করেন এই জঙ্গি নেতা। পাশাপাশি তালিবান নেতা দাবি করেন যে তাঁর সংগঠন চায় সব দেশের সঙ্গে শান্তিপূর্ণ সম্পর্ক তৈরি করতে।

গত ২০ অগস্ট প্রধানমন্ত্রী মোদীর করা মন্তব্যের প্রেক্ষিতে প্রশ্ন করা হলে শাহাবুদ্দিন বলেন, 'খুব শীঘ্রই ভারতে জেনে যাবে যে তালিবান কত মসৃণ ভাবে দেশ পরিচালনা করতে পারে।' যদিও এই মন্তব্যের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই কাবুলের ভয়াবহ হামলার ঘটনিটি ঘটে। তার জেরে ফের তালিবানি দক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। কাবুলের নিরাপত্তার দায়িত্ব তালিবানের তরফে দেওয়া হয়েছে জঙ্গিগোষ্ঠী হক্কানির শীর্ষ নেতাকে। এককালে আমেরিকার মোস্ট ওয়ান্টেড তালিকায় থাকা সেই জঙ্গি নেতা নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ব্যর্থ। তালিবানের মাথা ব্যথার কারণ, তাদের থেকেও কট্টরপন্থী জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট খোরাসান। এই আবহে মোদীকে করা পালটা চ্যালেঞ্জ কতটা পূরণ করতে পারবে তালিবান, সেটাই দেখার বিষয় হবে।

 

বন্ধ করুন