বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > বেতন বন্ধ হবে না করোনায় প্রাণ হারানো কর্মীদের, টাটার উদ্যোগকে কুর্নিশ নানা মহলের
রতন টাটা
রতন টাটা

বেতন বন্ধ হবে না করোনায় প্রাণ হারানো কর্মীদের, টাটার উদ্যোগকে কুর্নিশ নানা মহলের

  • টাটা স্টিলের তরফে জানানো হয়, অতিমারীতে প্রাণ হারানো কর্মীদের বেতন বন্ধ করা হবে না সংস্থার তরফে।

করোনা অতিমারীর জেরে মৃত্যুমিছিল চলছে দেশে। রোজ নতুন করে আক্রান্ত হচ্ছেন কয়েক লক্ষ মানুষ। এদিকে করোনার জেরে লকডাউন জারি হয়েছে দেশে। এই আবহে বহু মানুষ কাজ হারিয়েছেন। কর্মসংস্থানের অভাবে দু'মুঠো ভাত জোগাড় করতে কালঘাম ছুটছে সবার। এই আবহে বেনজির উদ্যোগ নিল টাটা স্টিল।

এদিন টাটা স্টিলের তরফে জানানো হয়, অতিমারীতে প্রাণ হারানো কর্মীদের বেতন বন্ধ করা হবে না সংস্থার তরফে। সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্পের অধীনে কোভিডে মৃত কর্মীদের পরিবারকেই দেওয়া হবে তাঁর বেতন। তাছাড়া পরিবারের লোকজন সংস্থার অধীনে চিকিৎসা এবং আবাসন সংক্রান্ত যাবতীয় সুযোগ-সুবিধা পাবেন।

টাটা স্টিলের তরফে এই বিষয়ি টুইট করে ঘোষণা করা হয়৷ টুইট বার্তায় সংস্থার তরফে লেখা হয়, কোম্পানির পক্ষ থেকে একটি সামাজিক সুরক্ষা স্কিম চালু করা হল৷ করোনায় কোনও কর্মচারী মারা গেলে, তাঁর ৬০ বছর পর্যন্ত তার পরিবারকে মাসিক বেতন দেওয়া হবে৷ পাশাপাশি চিকিৎসা ও বসবাস সংক্রান্ত সুযোগ সুবিধাও প্রদান করা হবে৷ এছাড়াও মৃতের সন্তানদের পড়াশোনার সমস্ত খরচাও বহন করবে সংস্থা৷

তাছাড়া টাটা স্টিলের তরফে ঘোষণা করা হয়, যে সমস্ত কর্মী ফ্রন্টলাইনে থেকে করোনার বিরুদ্ধে লড়াই করছেন, তাঁদের ছেলে-মেয়েদের জন্য বিশেষ ঘোষণা করা হয়েছে সংস্থার তরফে। টাটা স্টিলের তরফে বলা হয়েছে, ফ্রন্টলাইন কর্মীদের মধ্যে কারও মৃত্যু হলে তাঁদের ছেলে-মেয়েদের স্নাতক স্তর পর্যন্ত পড়াশোনার দায়িত্ব নেবে সংস্থা। রতন টাটার এই উদ্যোগকে কুর্নিশ জানিয়েছে বহু মানুষ৷ এর আগে সংকটকালে অক্সিজেন জোগান দিয়েছিল টাটা স্টিল অথোরিটি অফ ইন্ডিয়া৷ তাঁর সেই মানবিক উদ্যোগ প্রশংসা করেছে শিল্পমহলেও৷

বন্ধ করুন