বাড়ি > ঘরে বাইরে > ফাঁসি হচ্ছে আজই, নির্ভয়া দণ্ডিতদের আর্জি খারিজ দিল্লি হাইকোর্টের
নির্ভয়াকাণ্ডের চার দণ্ডিত, তাদের মধ্যে তিনজন শেষ বেলায় আপিল করেছিল দিল্লি হাইকোর্টে (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
নির্ভয়াকাণ্ডের চার দণ্ডিত, তাদের মধ্যে তিনজন শেষ বেলায় আপিল করেছিল দিল্লি হাইকোর্টে (ছবি সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

ফাঁসি হচ্ছে আজই, নির্ভয়া দণ্ডিতদের আর্জি খারিজ দিল্লি হাইকোর্টের

  • দণ্ডিত আইনজীবীকে দিল্লি হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ বলে, 'আমরা সেই সময়ের কাছে এসে গিয়েছি যখন আপনার মক্কেলরা ভগবানের সঙ্গে দেখা করবে।'

চূড়ান্ত অপদস্থ ও ভর্ৎসিত হল নির্ভয়াকাণ্ডের দণ্ডিত ও তাদের আইনজীবী – রাতের দিকে দিল্লি হাইকোর্টের জরুরি শুনানির এটাই ছিল নির্যাস। ফলে নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী, শুক্রবার ভোর সাড়ে পাঁচটায় ফাঁসি হতে চলেছে চার দণ্ডিতের।

আরও পড়ুন : ফাঁসি নয়, নির্ভয়া দণ্ডিতদের ভারত-পাক সীমান্তে পাঠানো হোক, সওয়াল আইনজীবীর

বৃহস্পতিবার সকাল শুরু থেকেই কোনও আদালতেই ধোপে টেকেনি দণ্ডিতদের কোনও আর্জি। বিকেলের দিকে চতুর্থ মৃত্যু পরোয়ানা অনুযায়ী ফাঁসিতে স্থগিতাদেশ দেয়নি দিল্লির পাতিয়ালা হাউস কোর্ট। সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ করে দিল্লি হাইকোর্টে আপিল করে নির্ভয়াকাণ্ডের তিন দণ্ডিত – অক্ষয় কুমার সিং, পবন গুপ্ত ও বিনয় শর্মা।

আরও পড়ুন : কাল ফাঁসির আগে কী কী পর্ব, পরখ করে দেখল তিহাড়

আপিলে দিল্লি হাইকোর্টের রেজিস্ট্রি আধিকারিকদের মামলাটি প্রধান বিচারপতির বেঞ্চের কাছে শুনানির আর্জি জানানো হয়। যদিও তা বিচারপতি মনমোহন ও বিচারপতি সঞ্জীব নারুলার বেঞ্চের কাছে পাঠান প্রধান বিচারপতি ডি এন প্যাটেল। শেষপর্যন্ত শুনানিতে তীব্র ভর্ৎসনা মুখের পড়েন দণ্ডিতদের আইনজীবীরা।

আরও পড়ুন : মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করতে ভারত ছাড়াও ফাঁসি চালু এই দেশগুলিতে

কী বলল দিল্লির হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ, দেখে নিন –

১) শুনানি চলাকালীন দিল্লি হাইকোর্ট জানায়, চার দণ্ডিতের মৃত্যুদণ্ডের চূড়ান্ত রায় দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। তা রিভিউ করতে পারি না।

২) দিল্লি হাইকোর্ট : কেউ সিস্টেম নিয়ে খেলছে। কিছু ষড়যন্ত্র আছে বলে মনে হচ্ছে। কারণ প্রাণভিক্ষার আর্জি দাখিলের ক্ষেত্রে আড়াই বছর দেরি হল।

৩) দিল্লি হাইকোর্ট : যাঁরা উপযুক্ত সময় পদক্ষেপ করে, তাঁদের সমর্থন করে আইন। আড়াই বছর ধরে গত ৪ মার্চ পর্যন্ত আপনারা কী করেছিলেন? আপনারা আমাদের দোষারোপ করছেন? ইতিমধ্যে ১০টা ৪৫ মিনিট হয়ে গিয়েছে। ফাঁসি হবে ভোর সাড়ে পাঁচটায়। উপযুক্ত পয়েন্ট দিন।

৪) দণ্ডিতদের আইনজীবীকে দিল্লি হাইকোর্ট বলে, প্রাণভিক্ষা আর্জি দাখিলের ক্ষেত্রে চূড়ান্ত দেরি হয়েছে। যদি আপনার কাছে উপযুক্ত আইনি দিক থাকে, তাহলে বলুন।

৫) দিল্লি হাইকোর্ট : দণ্ডিতরা ফাঁসিতে স্থগিতাদেশের যে আর্জি দাখিল করেছেন, তাতে কোনও ভিত্তি নেই। এগুলি মৃত্যু পরোয়ানা। এটা চতুর্থ। সেগুলিকে কিছুটা পবিত্রতা দিন।

৬) এ পি সিংয়ের উদ্দেশে দিল্লি হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ বলে, 'আমরা সেই সময়ের কাছে এসে গিয়েছি যখন আপনার মক্কেলরা ভগবানের সঙ্গে দেখা করবে। সময় নষ্ট করবেন না। যদি কোনও গুরুত্বপূর্ণ দিক উত্থাপন করতে না পারেন, তাহলে শেষমুহূর্তে আমরা কোনও সাহায্য করতে পারব না। আপনার কাছে মাত্র চার-পাঁচ ঘণ্টা আছে। যদি আপনার কোনও পয়েন্ট থাকে, তাহলে সেটা বলুন।'

বন্ধ করুন