বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > দূষণের চিহ্ন যমুনার জলে, ভাসল বিষাক্ত ফেনা, দিল্লিতে ব্যাহত জল সরবরাহ!
যমুনায় ভাসতে দেখা গেল বিষাক্ত সাদা ফেনা (ছবি সৌজন্যে পিটিআই) (PTI)
যমুনায় ভাসতে দেখা গেল বিষাক্ত সাদা ফেনা (ছবি সৌজন্যে পিটিআই) (PTI)

দূষণের চিহ্ন যমুনার জলে, ভাসল বিষাক্ত ফেনা, দিল্লিতে ব্যাহত জল সরবরাহ!

  • পরিবেশ দূষণের চিহ্ন ফুটে উঠল দিল্লির কালিন্দি কুঞ্জের কাছে যমুনা নদীর জলেও। 

রবিবার দিল্লির কালিন্দি কুঞ্জের কাছে যমুনা নদীতে বিষাক্ত ফেনা ভাসতে দেখা গেল। রাজধানীতে নাগরিকরা টানা তৃতীয় দিনের জন্য কুয়াশা আচ্ছন্ন সকাল দেখে। এই আবহে পরিবেশ দূষণের চিহ্ন ফুটে উঠল যমুনার জলেও।

যমুনায় অ্যামোনিয়ার মাত্রা বৃদ্ধি পাওয়ায় শনিবার সন্ধ্যা থেকে রাজধানীর জল সরবরাহ ব্যাহত হয়েছে। দিল্লির সামগ্রিক বায়ুর মান 'গুরুতর'। রবিবার সকাল ৬টা ১৫ মিনিট নাগাদ বায়ুর গুণমান (AQI) সূচক ৪৩৬ ছিল।

উল্লেখ্য, পঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তরপ্রদেশে ফসলের গোড়া পোড়ানোকে ঘিরে গত কয়েক বছর ধরেই দূষণের সঙ্গে যুঝছে দিল্লি। প্রতিবছরই শীতকালে দিল্লির বাতাসে ভাসমান ধূলিকণার পরিমাণ মারাত্মক পর্যায়ে পৌঁছে যায়। এর জেরে হৃদরোগ, শ্বাসকষ্ট এমনকি ফুসফুসের ক্যানসার পর্যন্ত হতে পারে। এই আবহে দীপাবলিতে দিল্লিতে সবরকমের বাজি ফাটানো নিষিদ্ধ করেছিল আদালত। তবে তা সত্ত্বেও রাজধানীর বায়ুর গুণমান 'গুরুতর' অবস্থায় পৌঁছে গিয়েছে। যদিও হাওয়ার ফলে সন্ধ্যার পর রাজধানীর বাতাসের গুণমানের উন্নতি হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

দ্য আর্থ সিস্টেম অফ এয়ার কোয়ালিটি অ্যান্ড ওয়েদার ফোরকাস্টিং অ্যান্ড রিসার্চ (SAFAR) মন্ত্রক বলে যে শনিবার রাতে দিল্লির AQI ছিল ৪৩৭। সেই সময় বাতাসে সূক্ষ্ম কণা পদার্থ (PM) ২.৫-এর ঘনত্ব ছিল ৩১৮। আর সূক্ষ্ম কণা পদার্থ ১০-এর ঘনত্ব ছিল ৪৪৮।

বন্ধ করুন