বাংলা নিউজ > ময়দান > Australia vs India: কী অবস্থা চোটের? টেস্ট সিরিজের আগে ইঙ্গিত দিলেন খোদ ঋদ্ধিমান
ঋদ্ধিমান সাহা (ফাইল ছবি, সৌজন্য রয়টার্স)
ঋদ্ধিমান সাহা (ফাইল ছবি, সৌজন্য রয়টার্স)

Australia vs India: কী অবস্থা চোটের? টেস্ট সিরিজের আগে ইঙ্গিত দিলেন খোদ ঋদ্ধিমান

  • অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজের জন্য ১৯ জনের দলে আছেন বিশ্বের অন্যতম সেরা উইকেটরক্ষক।

কবে ফিট হয়ে উঠবেন, তা নিয়ে জল্পনা ক্রমশ বাড়ছিল। ফিট হয়ে উঠলেও টেস্ট শুরুর আগে কতদিন অনুশীলন করতে পারবেন, সেই ধোঁয়াশাও ছিল। অবশেষে খানিকটা স্বস্তি দিয়ে নেটে ব্যাট করলেন ঋদ্ধিমান সাহা। 

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টেস্ট সিরিজের জন্য ১৯ জনের দলে আছেন বিশ্বের অন্যতম সেরা উইকেটরক্ষক। সেজন্য আইপিএল শেষ হতেই দলের সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ার উড়ান ধরেন। তারপর বুধবার নেটে কিছুক্ষণ ব্যাট করেন ঋদ্ধি। যা ক্যামেরায় রেকর্ড করা হয়।

ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) টুইটার অ্যাকাউন্টে ৩২ সেকেন্ডের সেই ভিডিয়ো পোস্ট করা হয়। তাতে দেখা যায়, ঋদ্ধিকে থ্রো-ডাউন দিচ্ছেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের সাপোর্ট স্টাফরা। একজন বাঁ-হাতে থ্রো-ডাউন এবং অপরজন ডানহাতে থ্রো-ডাউন দিচ্ছেন। তাতে মোটামুটি স্বচ্ছন্দ দেখাচ্ছিল ঋদ্ধিকে। সঙ্গে টুইটারে লেখা হয়, ‘দেখুন, আজ নেটে কে ব্যাট করছেন। হ্যালো, ঋদ্ধিমান সাহা।’

এবার আইপিএলে প্রথমদিকে মাত্র একটি সুযোগ পেলেও নিজের আত্মবিশ্বাস কমতে দেননি ঋদ্ধি। টুর্নামেন্টের শেষ পর্যায়ে প্রথম একাদশে সুযোগ পেয়ে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের ভাগ্যে পালটে দেন। চার ম্যাচে করেন ২১৪ রান। স্ট্রাইক রেট ১৩৯.৮৬। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে দুটি হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পেয়ে প্লে-অফে একটি ম্যাচও খেলতে পারেননি। শেষ। এলিমিনেটর এবং দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে তাঁর অভাব রীতিমতো অনুভব করে সানরাইজার্স। বিশেষত অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ঋদ্ধি খেলতে পারবেন কিনা, তা নিয়ে একাধিক প্রশ্ন উঠছিল।

যদিও বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় বলেছিলেন, ‘আমার মতে, বিসিসিআই কীভাবে কাজ করে, তা মানুষ জানেন না। বিসিসিআইয়ের ট্রেনার, ফিজিয়ো এবং ঋদ্ধি নিজে জানে যে দুটি হ্যামস্ট্রিংয়েই সমস্যা আছে। ঋদ্ধি অস্ট্রেলিয়া যাচ্ছে, কারণ ও টেস্টের আগে ফিট হয়ে উঠবে। ও সংক্ষিপ্ত ফর্ম্যাটে দলগুলিতে নেই।’

শেষপর্যন্ত আত্মবিশ্বাসী সৌরভের আশ্বাসই সঠিক প্রমাণিত হয়েছে। নেটে ব্যাট করা থেকে স্পষ্ট যে ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছেন ঋদ্ধি। আপাতত হয়তো পেস বোলারদের খেলার মতো জায়গায় পৌঁছাননি। তবে টেস্ট সিরিজ শুরু হতে এখনও এক মাস বাকি। ততদিনে তারকা ব্যাটসম্যান-উইকেটরক্ষক পুরোপুরি ফিট হয়ে যাবেন বলে আশা সংশ্লিষ্ট মহলের।

বন্ধ করুন