বাংলা নিউজ > ময়দান > চোটের জন্য ছিটকে গেছেন, তবু কেন দলের সঙ্গে রয়েছেন আফ্রিদি!

চোটের জন্য ছিটকে গেছেন, তবু কেন দলের সঙ্গে রয়েছেন আফ্রিদি!

চোট পেয়েও দলের সঙ্গে কেন রয়েছেন শাহিন আফ্রিদি

২০২২ এশিয়া কাপ শুরু হওয়ার আগে, পাকিস্তান ক্রিকেট দল বড় ধাক্কা খেয়েছে। চোটের কারণে এই টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে গেছেন দলের তারকা ফাস্ট বোলার শাহিন শাহ আফ্রিদি। ম্যানেজমেন্ট তার ইনজুরি পুনর্বাসন ঘনিষ্ঠভাবে পর্যবেক্ষণ করতে চায়। দলের সঙ্গে দুবাইতেই থাকবেন তিনি।

২০২২ এশিয়া কাপ শুরু হওয়ার আগে,পাকিস্তান ক্রিকেট দল বড় ধাক্কা খেয়েছে। চোটের কারণে এই টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে গেছেন দলের তারকা ফাস্ট বোলার শাহিন শাহ আফ্রিদি। শ্রীলঙ্কা সফরে আফ্রিদি চোট পেয়েছিলেন, সেই কারণে তাকে চার থেকে ছয় সপ্তাহ বিশ্রামে থাকতে বলা হয়েছে।

বহুজাতিক এই টুর্নামেন্ট থেকে বাদ পড়লেও দলের সঙ্গেই রয়েছেন শাহিন শাহ আফ্রিদি। এমন পরিস্থিতিতে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের এক মুখপাত্র নিজের বক্তব্য রেখেছন। তিনি জানিয়েছেন কেন টুর্নামেন্টের বাইরে থাকা সত্ত্বেও শাহিন দলের সঙ্গে সঙ্গে রয়েছেন। এই ঘটনার আসল কারণ জানিয়েছেন তিনি।

পিসিবির একজন মুখপাত্র পাকিস্তানের স্থানীয় গণমাধ্যমকে বলেছেন যে বাবর চান যে তিনি দলের সঙ্গে থাকুক। ম্যানেজমেন্ট তার ইনজুরি পুনর্বাসন ঘনিষ্ঠভাবে পর্যবেক্ষণ করতে চায়। দলের সঙ্গে দুবাইতেই থাকবেন তিনি।

আরও পড়ুন… টেস্ট ক্রিকেটে অনন্য রেকর্ড গড়লেন জেমস অ্যান্ডারসন! পিছনে ফেললেন সচিন, পন্টিংকে

আমরা আপনাকে জানিয়ে রাখি শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টে ফিল্ডিংয়ের সময়, শাহিন বাউন্ডারিতে রান বাঁচানোর চেষ্টায় ডাইভ দিয়েছিলেন। সেই সময় তিনি হাঁটুতে চোট পেয়েছিলেন। এই ইনজুরির পর থেকে তিনি ক্রমাগত পাকিস্তান দলের বাইরে রয়েছেন।

এই ইনজুরির কারণে ২০২২ সালের এশিয়া কাপের পাশাপাশি ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে হোম টি-টোয়েন্টি সিরিজেও অংশ নিতে পারবেন না শাহিন আফ্রিদি। এশিয়া কাপের পর ঘরের মাঠে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৭ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলতে হবে পাকিস্তানকে।

আরও পড়ুন…  ‘ওকে আউট কর, না হলে পরের পাঁচটা সেশন ও আমাদের পিটাবে,’ আক্রমের কথা ভোলেননি আখতার

আশা করা হচ্ছে ২০২২ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে ত্রিদেশীয় সিরিজে ফিরবেন শাহিন আফ্রিদি। এই সিরিজেও যদি আফ্রিদি কামব্যাক করতে না পারেন, তাহলে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য পাকিস্তানের প্রস্তুতি বড় ধাক্কার মুখে পড়বে। এশিয়া কাপের কথা বললে, ২৮ অগস্ট ভারতের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করবে পাকিস্তান। এরপর ২ সেপ্টেম্বর হংকংয়ের বিরুদ্ধে মাঠে নামবে বাবর আজমের দল। গ্রুপ থেকে শীর্ষ দুইটিম সুপার ফোর -এর জন্য যোগ্যতা অর্জন করবে।

বন্ধ করুন