বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > ISL-এর ১১ দল নিয়ে হবে এ বারের ডুরান্ড? সুপার কাপ কবে? বড় আপডেট দিলেন AIFF সচিব
কুশল দাস।

ISL-এর ১১ দল নিয়ে হবে এ বারের ডুরান্ড? সুপার কাপ কবে? বড় আপডেট দিলেন AIFF সচিব

  • ডুরান্ডের আয়োজকরা চাইছে, ২০টি দল নিয়ে এ বারের ডুরান্ড কাপ করতে। যেখানে ১১টি দলই হবে আইএসএলের।

গত বছর কলকাতায় সাফল্যের সঙ্গে ডুরান্ড কাপের আয়োজন করা হয়েছিল। আর আগামী ভারতীয় মরশুমে সম্ভবত শুরু হতে চলেছে, সেই ডুরান্ডের হাত ধরে। ফেডারেশন সূত্রের খবর অনুযায়ী সেই সম্ভাবনাই প্রবল।

জানা গিয়েছে, ডুরান্ডের আয়োজকরা চাইছে, ২০টি দল নিয়ে এ বারের ডুরান্ড কাপ করতে। যেখানে ১১টি দলই হবে আইএসএলের।

কিন্তু এখানে জল্পনা তৈরি হয়েছে, আইএসএলের প্রতিটি ফ্র্যাঞ্চাইজিকে ডুরান্ড কাপ খেলতেই হবে, এমন নির্দেশিকা দিতে পারে অল ইন্ডিয়া ফুটবল ফেডারেশন। যদিও এআইএফএফ সচিব কুশল দাস পুরো বিষয়টি পরিষ্কার করে দিয়েছে।

কুশলবাবু বলেছেন, ‘বাধ্যতার কোনও ব্যাপার নেই। ডুরান্ড কাপ চাইছে ২০টি দলকে নিয়ে টুর্নামেন্ট হোক, এবং তাতে ১১টি আইএসএল দল খেলুক। বাকি নয়টা দলকে ওরা আমন্ত্রণ করবে। আইএসএল ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলিও ভাবছে, এটি ওদের জন্য খুব ভালো প্রাক মরশুম পর্ব হবে। সে জন্য ওরা জানিয়েছে যে ওরা খেলতে চায়। খুব সম্ভবত এটিকে একটি কাপ টুর্নামেন্ট হিসেবে ধরা হবে।’

পাশাপাশি কুশল দাস স্পষ্ট ভাষায় করে দিয়েছেন, সুপার কাপ আগামী বছরের এপ্রিল মাসে আয়োজিত হবে। তবে এএফসির যোগ্যতা মানের থেকে অনেক কম ম্যাচ খেলা হয় আইএসএলে। ফলে এ বার কী আইএসএলের ম্যাচের সংখ্যা বাড়বে?

এই নিয়ে কুশল দাস বলেছেন, ‘এএফসি কাপ যদি কাপ টুর্নামেন্ট হয়ে যায়, তাহলে আট মাস খেলা হয়ে যাচ্ছে। তাহলে সমস্ত প্রতিটা আইএসএল ফ্র্যাঞ্চাইজি ৩০টা ম্যাচ খেলে নিচ্ছে।’

আইএসএলে কি দলের সংখ্যা বাড়ছে? এই নিয়ে কুশল দাস বলেছেন, ‘এই বছর নয়। তবে ২০২৩-২৪ সালে বাড়বে। যারা আইলিগ চ্যাম্পিয়ন হবে, তারা সরাসরি সেই বছর আইএসএলে খেলার সুযোগ পাবে। এবং সেই দলকে কোনও ফ্র্যাঞ্চাইজি ফি দিতে হবে না। শুধু স্পোর্টিং মেরিটের উপরেই ভিত্তি করে তাদের সুযোগ দেওয়া হবে।’

বন্ধ করুন