বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবলের মহারণ > এক-আধ জন নয়, একেবারে ৫ বিদেশি সই করিয়ে চমক ইস্টবেঙ্গলের, ডার্বির আগে জমে গেল লড়াই

এক-আধ জন নয়, একেবারে ৫ বিদেশি সই করিয়ে চমক ইস্টবেঙ্গলের, ডার্বির আগে জমে গেল লড়াই

একসঙ্গে ৫ বিদেশিকে সই করাল ইস্টবেঙ্গল।

আইএসএলে খেলা অভিজ্ঞ এবং নতুন মুখ মিলিয়ে এক সঙ্গে মোট ৫ জন বিদেশিকে সই করিয়েছে লাল-হলুদ ব্রিগেড। বিদেশিদের তালিকায় রয়েছে বড় চমক।

দল বদলের বাজারে সবচেয়ে বড় চমক দিল ইস্টবেঙ্গল। এক-আধ জন নয়। একেবারে পাঁচ জন বিদেশিকে সই করিয়ে চমকে দিল লাল-হলুদ। নিঃসন্দেহে ডার্বির আগে বড় বোমা ফাটাল ইস্টবেঙ্গল।

শুক্রবার এক বিবৃতি প্রকাশ করে এ কথা জানানো হয় লাল-হলুদের তরফে। আইএসএলে খেলা অভিজ্ঞ এবং নতুন মুখ মিলিয়ে মোট ৫ জন বিদেশিকে সই করানো হয়েছে। বিদেশিদের তালিকায় রয়েছে চমক।

ইভান গঞ্জালেজকে নেওয়ার কথা আগেই জানানো হয়েছিল। তিনি তো তালিকায় রয়েছেনই। এ ছাড়া আইএসএলে খেলে যাওয়া অ্যালেক্স লিমা এবং ক্লেটন সিলভাকেও সই করিয়েছে ইস্টবেঙ্গল। এ ছাড়া নতুন দুই বিদেশি হলেন কারালাম্বোস কিরিয়াকু এবং এলিয়ান্দ্রো।

আরও পড়ুন: বিগ-বি কোন ফুটবল দলের সমর্থক জানেন? উত্তর জানলে খুশি হবে দু' প্রধানের একটি ক্লাব

ইভান গঞ্জালেস হলেন রিয়াল মাদ্রিদ অ্যাকাডেমির ফুটবলার। যিনি এর আগে এফসি গোয়ার জার্সিতে ইন্ডিয়ান সুপার লিগে খেলেছেন। ৪২টির মধ্যে ৩৬টি ম্যাচেই খেলেছেন তিনি। রিয়াল মাদ্রিদের যুব দল থেকে উঠে আসা এই ফুটবলার গত বছর ডুরান্ড কাপও জিতেছেন।

অ্যালেক্স লিমা ইস্টবেঙ্গলের আবার খেলেছেন জামশেদপুরে। লিমার স্কিল এবং পাস বাড়ানোর ক্ষমতা সকলেরই জানা। বাঁ -পায়ের এই মিডফিল্ডার যথেষ্ট অভিজ্ঞ। লিগ উইনার্স শিল্ড জয়ী দলের সদস্য তিনি।

আরও পড়ুন: ডার্বির জন্য টিকিটের হাহাকার, ৩০ মিনিটে শেষ অনলাইন টিকিট

এ দিকে ক্লেটন সিলভা বেঙ্গালুরুতে খেলেছেন সুনীল ছেত্রীর পাশে। অত্যন্ত বুদ্ধিমান এবং কৌশলী ফুটবলার। গত দুই মরশুমে ৩৭টি ম্যাচে তিনি ১৬টি গোল এবং সাতটি অ্যাসিস্ট করেছেন। তাইল্যান্ডে দীর্ঘ দিন খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে। প্রথম বিদেশি ফুটবলার হিসাবে তাইল্যান্ডের ঘরোয়া লিগে ১০০টি গোল করেছেন।

নতুন মুখ ব্রাজিলের এলিয়ান্দ্রোর বহু ক্লাবে খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে। লিথুয়ানিয়া এবং মাল্টার বিভিন্ন ক্লাবের হয়ে ঘরোয়া লিগ জিতেছেন তিনি। এ ছাড়া তাইল্যান্ডের বিভিন্ন ক্লাবে খেলেছেন। গত দুই মরসুমে ২৩টি গোল করেছেন তিনি। সামুত প্রাকান সিটি থেকে যোগ দিচ্ছেন লাল-হলুদে।

এর মধ্যে কিরিয়াকু শনিবারই শহরে চলে আসছেন। ৩২ বছরের এই ডিফেন্ডার জাতীয় দলের হয়ে ১১টি ম্যাচ খেলেছেন। সাইপ্রাসের ঘরোয়া লিগে প্রায় সব ট্রফি জিতেছেন। আপোলন লিমাসল, ওমোনিয়া, আচনাসের মতো ক্লাবে খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে তাঁর। রক্ষণে বিভিন্ন জায়গায় খেলতে পারেন তিনি। তবে এই পাঁচ ফুটবলারের চূড়ান্ত কাগজপত্রে সই এখনও বাকি।

বন্ধ করুন