বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > ভিডিও: Euro জয়ের ঘোর কাটার আগেই রোমে পৌঁছে উপচে পড়া আবেগে ভাসল মানচিনির দল
রোমে পৌঁছলেন চেলিনিরা।
রোমে পৌঁছলেন চেলিনিরা।

ভিডিও: Euro জয়ের ঘোর কাটার আগেই রোমে পৌঁছে উপচে পড়া আবেগে ভাসল মানচিনির দল

  • এর আগে সেই ১৯৬৮ সালে শেষবার ইউরো কাপ চ্যাম্পিয়ান হয়েছিল ইতালি। ফলে ৫৩ বছর পর দ্বিতীয় বার ইউরো কাপের খেতাব জিতে আজ্জুরিরা ইতিহাস তৈরি করল। সে কারণে উচ্ছ্বাসের বাঁধ ভাঙাটাই যে স্বাভাবিক ছিল।

রবিবার রাতের ঘোর এখনও কাটেনি। পেনাল্টি শ্যুট আউটে ইংল্যান্ডকে হারিয়ে দ্বিতীয় বারের জন্য ইউরো কাপ জিতে নিয়েছেন রবার্তো মানচিনির ছেলেরা। লড়াইটা নিঃসন্দেহে কঠিন ছিল। কিন্তু রবিবার ওয়েম্বলিতে অন্য গল্প লিখেছে ইতালি। আর সেই জয়ের ঘোর কাটার আগেই সোমবার রোমে পৌঁছে গিয়েছে মানচিনির দল। নায়কদের বরণ করে নিতে রোমের রাস্তায় উপচে পড়ছিল ভিড়।

ইউরোর লম্বা সফরের পরেও কোচ রবার্তো মানচিনি, অধিনায়ক জিয়োর্জিও চেলিনি সহ বাকি টিমের মধ্যে কোনও ক্লান্তি ছিল না। বরং দেশের হাজার হাজার মানুষের শুভেচ্ছায় তাঁরা আরও অনুপ্রাণিত হয়ে উঠেছিল। এই নিয়ে দ্বিতীয় বার উয়েফা ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপ জিতল ইতালি। বহু কাঙ্খিত ট্রফি নিয়ে ঘরে ফেরার আবেগটাই যে একেবারে আলাদা।

রাজার মুকুট পরেই ট্রফি হাতে সবার আগে বাস থেকে নামলেন চেলিনি। তার আগে থেকেই অবশ্য রাস্তার ধারে সমর্থকেরা ভিড় জমিয়েছিলেন। গান গাইছিলেন আনন্দে। চেলিনি নামতেই উন্মাদনার যেন বাঁধ ভাঙল। একে একে বাস থেকে নেমে এলেন সব প্লেয়াররা। সমর্থকদের সঙ্গে গলাতে মেলাতেও দেখা গেল অনেককে।

এই বাঁধ ভাঙা উচ্ছ্বাস হবে নাই বা কেন, এর আগে সেই ১৯৬৮ সালে শেষবার ইউরো কাপ চ্যাম্পিয়ান হয়েছিল ইতালি। ফলে ৫৩ বছর পর দ্বিতীয় বার ইউরো কাপের খেতাব জিতে আজ্জুরিরা ইতিহাস তৈরি করল। পাশাপাশি দু'বার খেতাব জিতে ফ্রান্সকে ছুঁয়ে ফেলল ইতালি। ফরাসিরা ইউরো কাপ জিতেছে ১৯৮৪ ও ২০০০ সালে।

সবচেয়ে বেশিবার ইউরো কাপ চ্যাম্পিয়ন হয়েছে জার্মানি ও স্পেন। তারা তিন বার করে ইউরো কাপ জিতেছে তারা। ১৯৭২, ১৯৮০ এবং ১৯৯৬ সালে ইউরোপ সেরা হয়েছিল চার বারের বিশ্বজয়ী জার্মানি। অন্যদিকে স্পেন প্রথম বার ইউরো কাপ চ্যাম্পিয়ন হয় ১৯৬৪ সালে। তার পর ২০০৮ এবং ২০১২ সালে পরপর দু’বার এই খেতাবের দখল রেখেছিল স্পেন।

বন্ধ করুন