বাংলা নিউজ > ময়দান > ফুটবল > ‘ডাহা মিথ্যা বলছে!’ ব্যালন ডি'অর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আগে চটলেন রোনাল্ডো
ফরাসি সাংবাদিককে একহাত নিলেন রোনাল্ডো (ছবি:ইনস্টাগ্রাম)
ফরাসি সাংবাদিককে একহাত নিলেন রোনাল্ডো (ছবি:ইনস্টাগ্রাম)

‘ডাহা মিথ্যা বলছে!’ ব্যালন ডি'অর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানের আগে চটলেন রোনাল্ডো

  • ব্যালন ডি'অরের মঞ্চে অনুপস্থিতি নিয়ে 'মিথ্যাচার',ফরাসি সাংবাদিককে একহাত নিলেন রোনাল্ডো।

শুভব্রত মুখার্জি: করোনার কারণে ২০২০ সালে ব্যালন ডি'অর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান বাতিল করা হয়েছিল। দুই বছর পরে ২০২১ সালে প্যারিসে অনুষ্ঠিত হচ্ছে সেই অনুষ্ঠান। ভারতীয় সময় মঙ্গলবার ভোর রাত ১টায় শুরু হয় এই অনুষ্ঠান। তবে অনুষ্ঠান শুরুর আগেই বিতর্ক দানা বাঁধে এক ফরাসি সাংবাদিকের দাবি ঘিরে। ফরাসি ফুটবলের এডিটর ইন চিফ পাস্কাল ফেরের দাবি ছিল রোনাল্ডোর জীবনের একমাত্র লক্ষ্য মেসির থেকে বেশি ব্যালন ডি'অর জিতে তার ক্যারিয়ারের সমাপ্তি ঘোষণা। তবে এই দাবিকে নস্যাৎ করে দিয়ে সাংবাদিককে একহাত নিলেন রোনাল্ডো। শুধু সাংবাদিক নয়, যেই সূত্র ধরে খবর করা হয়েছিল সেই সূত্রকেও একহাত নিয়েছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। ব্যালন ডি'অর পুরস্কার

উল্লেখ্য নিউ ইয়র্ক টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে পাস্কাল বলেছিলেন রোনাল্ডো নাকি তাকে জানিয়েছেন তার ক্যারিয়ারের একমাত্র লক্ষ্য মেসির থেকে বেশি ব্যালন ডি'অর জিতে ক্যারিয়ারে ইতি টানা। এই দাবিকে নস্যাৎ করে এক ইনস্টাগ্রাম পোস্ট করেছেন স্বয়ং রোনাল্ডো। রোনাল্ডো লিখেছেন ‘ডাহা মিথ্যা বলছে পাস্কাল ফেরে। আমার নাম ব্যবহার করে যে পাবলিকেশনের হয়েও কাজ করে তাকে প্রোমোট করার চেষ্টা করছে। এতবড় এবং স্বনামধন্য একটি পুরস্কার প্রদানের সঙ্গে যুক্ত এক ব্যক্তি কী করে এইভাবে মিথ্যা বলতে পারে যা একেবারেই গ্রহনযোগ্য নয়। আমার মত এক ব্যক্তি যে সারা জীবন ফরাসি ফুটবল এবং ব্যালন ডি'অরকে সম্মান করে এসেছে তার জন্য এটা বিরাট অসম্মানের বিষয়।’

তিনি আরো যোগ করেন ‘আজকের অনুষ্ঠানে আমার অনুপস্থিতি নিয়েও এক কল্পনার কোয়ারেন্টিনের গল্প ফেঁদেছে। যার কোন ভিত্তি নেই। জীবনের শুরু থেকে আমি আমার ক্যারিয়ারকে স্পোর্টসম্যান স্পিরাটের মধ্যে রেখেই চালনা করেছি। আমি সব সময় যারা বিজয়ী তাদের অভিবাদন, শুভেচ্ছা জানিয়েছি। আমি কখনও কারুর বিরুদ্ধে না বলেই এটা করি। আমি সবসময় নিজেকে, নিজের ক্লাবকে, নিজের দেশকে জেতানোর লক্ষ্য নিয়ে এগিয়েছি। আমার সবথেকে বড় লক্ষ্য বিশ্ব ফুটবলের ইতিহাসে আমার নাম স্বর্নাক্ষরে লিখে যাওয়ার। আমার ফোকাস এই মুহূর্তে ম্যান ইউয়ের পরের ম্যাচে রয়েছে। আমার সতীর্থ, সমর্থকদের নিয়ে এই মরশুমে এখনও ভালো ফল করব আশা রাখি। বাকিটা 'বাকিই' থাকুক‌।’

বন্ধ করুন