বাংলা নিউজ > ময়দান > গ্রেফতার মেসি-পিকেদের বদনাম করার অভিযোগে বিদ্ধ প্রাক্তন বার্সা প্রেসিডেন্ট
মেসি-পিকেদের বদনাম রটানোর অভিযোগে বিদ্ধ প্রাক্তন বার্সা প্রেসিডেন্টকে গ্রেফতার। (ছবি সৌজন্য রয়টার্স)
মেসি-পিকেদের বদনাম রটানোর অভিযোগে বিদ্ধ প্রাক্তন বার্সা প্রেসিডেন্টকে গ্রেফতার। (ছবি সৌজন্য রয়টার্স)

গ্রেফতার মেসি-পিকেদের বদনাম করার অভিযোগে বিদ্ধ প্রাক্তন বার্সা প্রেসিডেন্ট

  • তাঁর বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে অভিযোগ করেছিলেন লিওনেল মেসি, লুইস সুয়ারেস, জেরার্ড পিকেরা।

শুভব্রত মুখার্জি

গত বছর তখন সবে সবে করোনাভাইরাসের করালগ্রাস থেকে মুক্ত হয়ে ক্রীড়াক্ষেত্রে ফিরেছে খেলাধুলো। সেসময় হঠাৎ করেই চ্যাম্পিয়ন্স লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে বায়ার্ন মিউনিখের কাছে লিওনেল মেসির বার্সেলোনা পর্যুদস্ত হয় বিরাট ব্যবধানে। আর এই ঘটনার পরেই মেসি এবং ক্লাবের মধ্যে সংঘাত চরমে পৌঁছে গিয়েছিল। মেসির ক্লাব ছাড়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছিল। তাঁর ক্লাব ত্যাগের ইস্যুতে পদত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছিলেন তৎকালীন বার্সেলোনা সভাপতি জোসেপ মারিয়া বার্তামেউ।

তাঁর বিরুদ্ধে প্রকাশ্যে অভিযোগ করেছিলেন লিওনেল মেসি, লুইস সুয়ারেস, জেরার্ড পিকেরা। সমর্থকরা বার্তামেউয়ের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন। এবার সেই বার্তামেউকে গ্রেফতার করল স্প্যানিশ পুলিশ। তাঁর পাশাপাশি গ্রেফতার করা হয়েছে তৎকালীন বোর্ডের বার্সেলোনার মহাব্যবস্থাপকের দায়িত্ব পালন করা অস্কার গ্রাউ ও বোর্ডে আইনি বিষয়ের দায়িত্বে থাকা রোমান গোমেজ পন্তিকে।

স্প্যানিশ সংবমাদমাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী, বার্তামেউ ক্লাবের সভাপতি থাকাকালীন সোশ্যাল সাইটে মেসি-পিকেদের বদনাম রটানোর জন্য একটি সংস্থাকে গোপনে নিয়োগ করেন বলে অভিযোগ উঠেছিল। সেই কোম্পানির নাম 'আই থ্রি'। ফুটবলার এবং তাঁদের স্ত্রী-বান্ধবীদের সোশ্যাল অ্যাকাউন্টে গিয়েও বাজে মন্তব্য করতেন কোম্পানির লোকেরা। বার্সার বোর্ডের বাকিদের অন্ধকারে রেখে প্রায় ১৭০,০০০ পাউন্ডের গোপন চুক্তি করেন বার্তামেউ বলে অভিযোগ করেন। গত বছর ফেব্রুয়ারিতে এই গোপন চুক্তির কথা ফাঁস হলে ক্লাবের আটজন সদস্য পুলিশের কাছে বার্তামেউর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছিলেন। এই কথা জানতে পেরে বার্তামেউর অধীন বোর্ডের ছয়জন পরিচালক একসঙ্গে বোর্ড থেকে পদত্যাগ করেন। গত ২৭ অক্টোবর সভাপতির পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলেন বার্তোমেউ। তাঁর পরিবর্তে ক্লাবের অন্তর্বর্তীকালীন দায়িত্ব পান কার্লেস তুসকেতস।

বন্ধ করুন