বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > IND vs PAK: মুহূর্তটা উপভোগ করতে চেয়েছিলাম- দুই পাক ওপেনারকে আউট করে আবেগে ভাসছেন আর্শদীপ

IND vs PAK: মুহূর্তটা উপভোগ করতে চেয়েছিলাম- দুই পাক ওপেনারকে আউট করে আবেগে ভাসছেন আর্শদীপ

আর্শদীপ সিং।

মাত্র মাস খানেকের ব্যবধান। এশিয়া কাপে পাকিস্তানের আসিফ আলির ক্যাচ ফেলে খলনায়ক হয়ে গিয়েছিলেন অর্শদীপ সিং। সোশ্যাল মিডিয়ায় রীতিমতো ট্রোলের শিকার হতে হয়েছিল পঞ্জাবের তরুণকে। বাঁ-হাতি পেসারের যেন পুনর্জন্ম হল পাকিস্তান ম্যাচেই। এবং সেটা বিশ্বকাপের মতো বড় মঞ্চে।

শুভব্রত মুখার্জি: বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচ। তাও পাকিস্তানের বিরুদ্ধে। কিন্তু আর্শদীপ সিং একটুও ঘাবড়াননি। পাকিস্তানের দুই ওপেনার বাবর আজম, মহম্মদ রিজওয়ানকে আউট করে সকলকে চমকে দেন তরুণ আর্শ। 

সুপার-১২ পর্যায়ের নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভারতীয় দল মুখোমুখি হয়েছিল পাকিস্তানের। সেই ম্যাচেই বল হাতে অনবদ্য পারফরম্যান্স করেন আর্শদীপ। ম্যাচে পাকিস্তানের ইনিংসের পর তাঁর অকপট স্বীকারোক্তি, ‘আমি এই মুহূর্তটাকে উপভোগ করতে চেয়েছি মাত্র। আর কোনও কিছু নিয়ে ভাবিনি।’

আরও পড়ুন: মাঠে অনুপ্রবেশকারীকে ৬ লাখ জরিমানা,ভারত অভিযোগ জানালে কঠোর হত শাস্তি

বাবর আজমরা প্রথমে ব্যাট করে ২০ ওভারে ১৫৯ রান করে। বাবরদের ইনিংসের শেষে আর্শদীপ বলেন, ‘আমি মুহূর্তটা উপভোগ করতে চেয়েছিলাম। একে বিশ্বকাপের মতন মঞ্চে দেশকে প্রতিনিধিত্ব করা। তার উপর পাকিস্তান ম্যাচে প্রথম একাদশে সুযোগ পাওয়া। ফলে আমি উপভোগ করার সুযোগ হারাতে চাইনি। আমার মনে হয়েছিল, এ রকম মুহূর্ত আর কখনও আসবে না আমার জীবনে। আমি সেই কারণেই চেয়েছিলাম ম্যাচটা উপভোগ করতে। উদ্দেশ্যে ছিল যতটা সম্ভব মজা করা। এমসিজির দু'দিকের বড় বাউন্ডারির সুবিধা নিতে চেয়েছিলাম। আমাদের পরিকল্পনা ছিল স্টাম্প ও প্যাড লক্ষ্য করে বল করা প্রথম থেকেই । আমার মনে হয় এই রান তাড়া করে আমরাই ম্যাচটা জিতব।’

আরও পড়ুন: বাবরের ক্যাপ্টেন্সি নিয়ে কেন প্রশ্ন করা যাবে না, কবে শিখবে ও- কটাক্ষ পাক প্রাক্তনীর

রবিবাসরীয় মহারণে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে অনবদ্য বোলিং করেন আর্শদীপ সিং । বাঁহাতি এই পেসার প্রথমেই বাবর আজমের উইকেটটি তুলে নিয়ে পাক দলকে জোর ধাক্কা দেন। এরপর মহম্মদ রিজওয়ানকে ফিরিয়ে পাক দলকে ব্যাকফুটে ঠেলে দেন। ৪ ওভার বোলিং করে মাত্র ৩২ রানে তিন উইকেট তুলে নেন তিনি। 

পাকিস্তানের সেরা দুই ব্যাটার- মহম্মদ রিজওয়ান,বাবর আজম ছাড়া ও তিনি তুলে নেন আসিফ আলির উইকেটও। দুরন্ত বাউন্সারে আসিফকে প্যাভিলিয়নের রাস্তা দেখান তিনি।‌ বলটি ছাড়বেন না খেলবেন, তা বুঝে উঠতেই পারেননি আসিফ। এ ছাড়া ও ম্যাচে ভারতের হয়ে তিনটি উইকেট নেন হার্দিক পান্ডিয়া। ফলে ৮ উইকেট হারিয়ে পাকিস্তান ১৫৯ রান তাদের ২০ ওভারে করতে সমর্থ হয়েছিল। ভারত সেই রান তাড়া করে বিরাটের অপরাজিত ৮২ রানের সুবাদে চার উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয়।

বন্ধ করুন