বাংলা নিউজ > ময়দান > টি২০ বিশ্বকাপ > বোনের মৃত্যুর পর জীবনের দর্শনটাই বদলে গিয়েছে- আবেগপ্রবণ পাকিস্তানের শান মাসুদ
শান মাসুদ।

বোনের মৃত্যুর পর জীবনের দর্শনটাই বদলে গিয়েছে- আবেগপ্রবণ পাকিস্তানের শান মাসুদ

  • বাঁ-হাতি এই ব্যাটারের কয়েক দিনের মধ্যেই টি-২০ ফর্ম্যাটে জাতীয় দলের হয়ে অভিষেক হতে চলেছে। ঘরের মাঠে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সাতটি টি-২০ ম্যাচের একটি সিরিজ খেলবে পাকিস্তান দল। সেই সিরিজের দলেও রয়েছেন শান মাসুদ। আশা করা হচ্ছে, এই সিরিজেই প্রথম একাদশে অভিষেক হবে তাঁর।

শুভব্রত মুখার্জি

সদ্য ঘোষণা করা হয়েছে পাকিস্তানের বিশ্বকাপ স্কোয়াড। অস্ট্রেলিয়াতে অনুষ্ঠিত হতে চলা টি-২০ বিশ্বকাপে ১৫ সদস্যের দলে জায়গা করে নিয়েছেন ব্যাটার শান মাসুদ। বেশ কয়েক দিন পরে ফের জাতীয় দলে ফিরে এসে স্বাভাবিক ভাবেই উচ্ছ্বসিত তিনি। তবে তাঁর জীবনে রয়েছে, যন্ত্রণার একটি অধ্যায়। নিজের বোনের অকাল মৃত্যুতে তাঁর জীবনটাই এলোমেলো হয়ে গিয়েছিল। আর বোনের মৃত্যুর পর থেকেই নাকি বদলে গিয়েছিল, তাঁর জীবন দর্শনও। সে কথাই স্পষ্ট ভাবে জানিয়েছেন শান মাসুদ।

আরও পড়ুন: ও প্রাপ্য সম্মান পাবে না জেনেই,অবসর নিতে বলেছিলাম-সানিয়ার বরকে নিয়ে দাবি হাফিজের

বাঁ-হাতি এই ব্যাটারের কয়েক দিনের মধ্যেই টি-২০ ফর্ম্যাটে জাতীয় দলের হয়ে অভিষেক হতে চলেছে। ঘরের মাঠে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সাতটি টি-২০ ম্যাচের একটি সিরিজ খেলবে পাকিস্তান দল। সেই সিরিজের দলেও রয়েছেন তিনি। আশা করা হচ্ছে, এই সিরিজেই প্রথম একাদশে অভিষেক হবে তাঁর। তার আগেই তিনি জাতীয় দলের জার্সি পড়াটা, তার কাছে কতটা গর্বের, সে কথা জানিয়েছেন অকপটে। পাশাপাশি এটাও স্বীকার করে নিয়েছেন, জাতীয় দলের হয়ে খেলতে কতটা চাপ তাদের উপর থাকে।

শান মাসুদ বলেছেন, ‘সময়ের সঙ্গে সঙ্গে অনেক জিনিস শিখেছি। মানুষ হিসেবে, খেলোয়াড় হিসেবে অনেকটাই উন্নতি ঘটেছে। তবে জীবনে ক্রিকেট ছাড়াও বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ জিনিস রয়েছে। সেই কারণেই আমি যা করছি, সেই বিষয়টি নিয়ে নিজেকে আশীর্বাদধন্য মনে করি।’

আরও পড়ুন: শাহিন নিজের খরচে লন্ডনে রিহ্যাব করছেন-আফ্রিদির দাবি উড়িয়ে বড় প্রতিক্রিয়া PCB-র

এর পরেই তিনি নিজের বোনের মৃত্যুর বিষয়টি নিয়ে বলেন, ‘আমার বোনের মৃত্যুর পরে আমার জীবন দর্শনটাই বদলে যায়। দেশের হয়ে খেলার সুযোগ পেয়ে আমি এই পরিস্থিতিতে নিজেকে ধন্য মনে করছি। নিজের দেশের হয়ে নিজের পছন্দের, ভালোবাসার খেলাটা খেলতে পারছি, উপার্জন করতে পারছি, সেটা তো কম বড় কথা নয়। ক্রিকেটে সাফল্য বা ব্যর্থতার বাইরেও জগৎটা অনেকটা বড়।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘জাতীয় দলে সুযোগ পাওয়ার পরে সবাই নিজের সেরাটাই দিতে চায়। আমিও সেটাই করব। যদি পারফরম্যান্স না করতে পারো, তা হলে তোমাকেই দোষ দেওয়া হবে। অন্য কাউকে নয়। আমি যদি সাফল্যের সঙ্গে কামব্যাক না করতে পারি, তা হলে আমি নিজেকেই সেই দোষটা দেব।’

বন্ধ করুন