বাংলা নিউজ > ময়দান > IND vs SL: বল হাতে আগুনে পারফরম্যান্স, লঙ্কাকে ধুলিসাৎ করেও মন ভালো নেই সিরাজের

IND vs SL: বল হাতে আগুনে পারফরম্যান্স, লঙ্কাকে ধুলিসাৎ করেও মন ভালো নেই সিরাজের

মহম্মদ সিরাজ।

এ দিন ১০ ওভার বল করে ৩২ রান দিয়ে সিরাজ ৪ উইকেট তুলে দেন। সিরাজের দাপটেই মাত্র ৭৩ রানে গুটিয়ে যায় শ্রীলঙ্কা। একদিনের আন্তর্জাতিক ইতিহাসে সর্বাধিক ৩১৭ রানের জয় পায় টিম ইন্ডিয়া। তবু মন ভালো নেই ভারতের তারকা পেসারের।

শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে পুরো আগুনে মেজাজে পাওয়া গিয়েছে মহম্মদ সিরাজকে। তিনটি একদিনের ম্যাচে তাঁর বোলিং পরিসংখ্যান বেশ নজর কাড়া। প্রথম ম্যাচে ৩০ রানে ২ উইকেট তুলে নেন সিরাজ। দ্বিতীয় ম্যাচে ৩০ রানে নিয়েছিলেন ৩ উইকেট। আর রবিবার তিরুঅনন্তপুরমে তৃতীয় তথা শেষ ওডিআই ম্যাচেও চোখ ধাঁধানো পারফরম্যান্স করলেন সিরাজ।

এ দিন ১০ ওভার বল করে ৩২ রান দিয়ে সিরাজ ৪ উইকেট তুলে দেন। সিরাজের দাপটেই মাত্র ৭৩ রানে গুটিয়ে যায় শ্রীলঙ্কা। একদিনের আন্তর্জাতিক ইতিহাসে সর্বাধিক ৩১৭ রানের জয় পায় টিম ইন্ডিয়া। তবু মন ভালো নেই ভারতের তারকা পেসারের।

আরও পড়ুন: ১০৬ বলে ১৫০ করে নয়া নজির কোহলির, গুঁড়িয়ে দিলেন অজি তারকার রেকর্ড

রবিবার সিরাজ শ্রীলঙ্কার তিন টপ অর্ডার ব্যাটার আভিষ্কা ফার্নান্দো, নুয়ানেদু ফার্নান্দো, কুশল মেন্ডিসকে সাজঘরে ফেরান। পাশাপাশি তিনি ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গারও উইকেট নেন। এ ছাড়াও চামিকা করুণারত্নেকে রান-আউটও করেন সিরাজ।

তবে পাঁচ উইকেট নিতে না পারার জন্য আফসোস করে চলেছেন ভারতের তরুণ পেসার। এ দিন সিরাজ যাতে ৫ নম্বর উইকেটটি নিতে পারেন, তার জন্য স্লিপে তিন ফিল্ডার, গালিতে ফিল্ডার দিয়ে সাহায্য করেছিলেন রোহিত। সিরাজকে দিয়ে ১০ ওভার বলও করিয়েছিলেন ভারত অধিনায়ক। এমন কী শেষ বলে এলবিডব্লিউ-এর আবেদনও করেছিলেন সিরাজ। আম্পায়ার আউট দিয়েও দেন। কিন্তু রিভিউ নেন শ্রীলঙ্কার ব্যাটার। সেই উইকেটটি না পাওয়ায় হতাশ হয়ে পড়েছিলেন সিরাজ।

আরও পড়ুন: ধোনির মতো হেলিকপ্টার শটে ৯৭ মিটারের লম্বা ছক্কা, ৮টি ছয় মেরে নজির কোহলির

ম্য়াচের পর হতাশ সিরাজ বলেন, ‘একদিনের আন্তর্জাতিকে এখনও পর্যন্ত পাঁচ উইকেট নিতে পারিনি। তবে এই ম্যাচে সেই সুযোগ ছিল। আমি নিজের পঞ্চম উইকেটটা নেওয়ার প্রচুর চেষ্টা করেছি। রোহিত ভাইও চাইছিল, আমি যাতে পাঁচ উইকেট নিই। তবে ভাগ্যে যা লেখা থাকে, এর থেকে বেশি কেউ কিছুই পাওয়া যায় না। আমি বেশ বহু দিন ধরেই ভালো ছন্দে বল করছি। আমার আউট সুইংটা বেশ ভালোই হচ্ছে।’

সিরাজ শেষ পর্যন্ত পাঁচ উইকেট না পাওয়ায় আফসোস করেছেন রোহিতও। ভারত-অধিনায়ক বলেন, ‘সিরাজ যে ভাবে বল করল সেটা দুর্দান্ত। ওর জন্য অতগুলো স্লিপ রাখাই যায়। শেষ কবে এক দিনের ক্রিকেটে এমন ফিল্ডিং সাজানো হয়ে ছিল আমার মনে পড়ছে না। যেভাবে ও বলকে সুইং করাচ্ছিল, নিঃসন্দেহে ও বিরল প্রতিভা। শেষ কয়েক বছরে আমরা বোলার হিসেবে ওকে যথেষ্ট উন্নতি করতে দেখেছি। আমরা ওকে সব রকম সাহায্য করেছি যাতে ও পঞ্চম উইকেটটাও পেয়ে যায়। তবে সেটা হয়নি। ওকে কিন্তু তার মাঝেও যথেষ্ট আত্মবিশ্বাস দেখাচ্ছিল। ও যেভাবে দৌড়াচ্ছিল, সেটা দেখেই বোঝা যাচ্ছিল।।’

বন্ধ করুন