বাংলা নিউজ > ময়দান > IND vs SL: শানাকাকে নন-স্ট্রাইকার এন্ডে রান আউট শামির, আপিল ফেরালেন রোহিত- ভিডিয়ো

IND vs SL: শানাকাকে নন-স্ট্রাইকার এন্ডে রান আউট শামির, আপিল ফেরালেন রোহিত- ভিডিয়ো

নন স্ট্রাইকারে শানাকাকে রান আউট করেন শামি, প্রত্যাহার করার আবেদন রোহিতের।

শেষ ওভারে বল করছিলেন মহম্মদ শামি। তখন ৯৮ রানে ব্যাট করছিলেন শানাকা। শামি যখন ৫০তম ওভারের চতুর্থ বলটি করতে যাচ্ছিলেন, তখন নন স্ট্রাইকারে দাঁড়িয়েছিলেন শানাকা। তাঁকে ক্রিজের বাইরে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখে রান আউট করেন শামি।

৯৮ রানেই আউট হয়ে যাচ্ছিলেন দাসুন শানাকা। কিন্তু সেই আউটের আবেদন শেষ পর্যন্ত প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়। দাসুন তার পর সেঞ্চুরি করেন। তবে দুরন্ত খেলেও দলের হার বাঁচাতে পারেননি শানাকা। মহাভারতের কর্ণ হয়েই থাকতে হয়েছে তাঁকে।

শেষ ওভারে বল করছিলেন মহম্মদ শামি। তখন ৯৮ রানে ব্যাট করছিলেন শানাকা। শামি যখন ৫০তম ওভারের চতুর্থ বলটি করতে যাচ্ছিলেন, তখন নন স্ট্রাইকারে দাঁড়িয়েছিলেন শানাকা। তাঁকে ক্রিজের বাইরে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখে রান আউট করেন শামি। ভারতের তারকা পেসার আউটের আবেদন করলে, ফিল্ড আম্পায়ার তখন তৃতীয় আম্পায়ারের দ্বারস্থ হন।

সেই সময়ে রোহিত এসে শামির সঙ্গে আলোচনা করেন। তার পরেই রোহিতের কথাতেই সেই আবেদন প্রত্যাহার করে নেন শামি। নিঃসন্দেহে স্পোর্টস ম্যান স্পিরিট দেখিয়ে সকলের মন জয় করে নেন ভারত-অধিনায়ক। সোশ্যাল মিডিয়া রোহিতের এই কাজে রীতিমতো মুগ্ধ।

প্রাণ ফিরে পেয়ে পঞ্চম বলেই শামিকে চার মেরে সেঞ্চুরি পূরণ করেন শানাকা। ততক্ষণে ম্যাচ অবশ্য হাতের বাইরে বের হয়ে গিয়েছে। শেষ বলে একটি ছক্কাও হাঁকান শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক। তবু ৬৭ রানে ভারত ম্যাচটি জিতে যায়।

মজার বিষয় হল, শামি যখন নন-স্ট্রাইকার রানআউট করেছিলেন শানাকাকে, তখন ম্যাচের সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ ছিল ভারতেরই হাতে। ভারত তখন ম্যাচ জিতেই গিয়েছে। অনেকেই মনে করছেন, সেই কারণেই রোহিত আবেদন প্রত্যাহার করার সিদ্ধান্ত নেন। বিশেষ করে রোহিত চেয়েছিলেন, শানাকা সেঞ্চুরি পেলে কিছুটা হলেও তাঁর লড়াই মর্যাদা পাবে।

আরও পড়ুন: কোহলির শতরান,রোহিতের রানে ফেরা, বড় জয় ভারতের, কর্ণ হয়ে থাকলেন শানাকা

অধিনায়ক শানাকা শ্রীলঙ্কার হয়ে একাই কুম্ভ রক্ষার চেষ্টা করে গিয়েছেন। ৮৮ বলে ১০৮ রানে অপরাজিত থাকেন শানাকা। তাঁর ইনিংস সাজানো ১২টি চার এবং তিনটি ছক্কায়। নবম উইকেটে কাসুন রাজিথাকে সঙ্গে নিয়ে ১০০ রানের পার্টনারশিপ করেন। তার মধ্যে রাজিথার সংগ্রহ ১৯ বলে ৯ রান। ৯১ রান করেন শানাকা একাই।

ভারতের কাছে শ্রীলঙ্কা ৬৭ রানে হেরে গেলেও, শানাকার এই লড়াইকে স্যালুট করবে গোটা ক্রিকেট বিশ্ব। শানাকার লড়াইয়ের জেরেই ৩০০ রানের গণ্ডি টপকায় শ্রীলঙ্কা। ২০৬ রানে অষ্টম উইকেট পড়ে গিয়েছিল। সেখান থেকে টেল এন্ডার ব্যাটারকে নিয়ে ৮ উইকেটে ৩০৬ রানে শ্রীলঙ্কার ইনিংস টেনে নিয়ে যান শানাকা।

আরও পড়ুন: IND vs SL দ্বিতীয় ম্যাচের জন্য ইডেনে সাজসাজ রব, পর্যবেক্ষণ করতে এসেছিলেন নগরপাল

এর আগে ওপেন করতে নেমে পাথুম নিসঙ্কার করেন ৮০ বলে ৭২। এবং ধনঞ্জয় ডি'সিলভা ৪০ বলে ৪৭ করেছিলেন। ভারতের হয়ে ৩ উইকেট নেন উমরান মালিক, ২ উইকেট নেন মহম্মদ সিরাজ।

প্রথম ব্যাট করে ভারত ৭ উইকেটে ৩৭৩ রানের বড় ইনিংস গড়েছিল। বিরাট কোহলি তাঁর ৪৫তম ওডিআই সেঞ্চুরি করেন। ৮৭ বলে ১১৩ রান করেন তিনি। এ ছাড়া ৬৭ বলে ৮৩ করেন রোহিত। অল্পের জন্য শতরান হাতছাড়া হয় রোহিতের। রান পান ভারতের আর এক ওপেনার শুভমন গিলও। তিনি ৬০ বলে ৭০ রান করেন। শ্রীলঙ্কার কাসুন রাজিথা নেন ৩ উইকেট।

বন্ধ করুন