বাংলা নিউজ > ময়দান > আইপিএল-2022 > IPL 2022: অভিষেক টেস্টে সেঞ্চুরি, KKR তারকাদের ‘গুরু’ - নো বল বিতর্কে মাঠে আসা আমরে কে?
আইপিএলের ম্যাচে আম্পায়ারের সঙ্গে বিতর্কে আমরে{ (ছবি সৌজন্যে আইপিএল)

IPL 2022: অভিষেক টেস্টে সেঞ্চুরি, KKR তারকাদের ‘গুরু’ - নো বল বিতর্কে মাঠে আসা আমরে কে?

  • IPL 2022: ১৯৯২ সালের ১৩ নভেম্বর ডারবানে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে অভিষেক টেস্টেই শতরান করেছিলেন প্রবীণ আমরে। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সেই সিরিজে সার্বিকভাবে অবশ্য তেমন ভালো খেলেননি। যিনি আইপিএলে রাজস্থান রয়্যালস বনাম দিল্লি ক্যাপিটালস ম্যাচে নো বল বিতর্কের সময় মাঠে নেমে আসার পর আবার শিরোনামে উঠে এসেছেন।

ভারতীয় ক্রিকেটের জগতে অত্যন্ত পরিচিত মুখ। তবে শুক্রবার আইপিএলে রাজস্থান রয়্যালস বনাম দিল্লি ক্যাপিটালস ম্যাচে নো বল বিতর্কের সময় মাঠে নেমে আসার পর আবার শিরোনামে উঠে এসেছেন প্রবীণ আমরে।

আরও পড়ুন: IPL 2022: কেন বিতর্কিত 'নো বলে' তৃতীয় আম্পায়ারের সহায়তা চাননি মেনন, জানা গেল আসল কারণ

শুক্রবার রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে ২২৩ রান তাড়া করতে নেমে শেষ ওভারে জয়ের জন্য ৩৬ রান প্রয়োজন ছিল দিল্লির। প্রথম তিনটি বলে ছক্কা মারেন রোভম্যান পাওয়েল। কিন্তু তৃতীয় বলটি কোমরের উপর হয়েছে কিনা, তা নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়। অনফিল্ড আম্পায়াররা নো বল দেননি। তৃতীয় আম্পায়ারের কাছে বিবেচনার জন্য পাঠানো হয়নি। তা নিয়ে তুমুল বিতর্ক শুরু হয়।

ব্যাটার পাওয়েল প্রথমে আম্পায়ার নীতিন মেননের সঙ্গে তর্ক জুড়ে দেন। তারইমধ্যে পাওয়েলদের মাঠ থেকে বেরিয়ে আসার ইঙ্গিত করতে থাকেন পন্ত। সেইসময় দিল্লি অধিনায়কের কাছে চলে আসেন ওয়াটসন। দু'জনকে কিছু কথা বলতে দেখা যায়। তাতেও পরিস্থিতি শান্ত হয়নি। পন্তের সঙ্গে কথা বলে মাঠে নেমে আসেন দিল্লির সহকারী কোচ আমরে। সেজন্য তাঁর ম্যাচ ফি'র ১০০ শতাংশ কেটে নেওয়া হয়েছে। নিষিদ্ধ করা হয়েছে এক ম্যাচের জন্য।

আরও পড়ুন: IPL 2022: আম্পায়ারের অবমাননা করে কঠিন শাস্তি পেলেন ঋষভ, রেহাই পেলেন না শার্দুল, আমরেও

কে এই প্রবীণ আমরে?

  • ১৯৯২ সালের ১৩ নভেম্বর ডারবানে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে অভিষেক টেস্টেই শতরান করেছিলেন আমরে। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সেই সিরিজে সার্বিকভাবে অবশ্য তেমন ভালো খেলেননি। চার টেস্টে (ছয় ইনিংসে) ১৬৯ রান করেছিলেন। গড় ছিল ৩৩.৮।
  • ১১ টি টেস্ট (১৩ ইনিংস) খেলেছিলেন আমরে। করেছিলেন ৪২৫ রান। সর্বোচ্চ ১০৩ রান। গড় ৪২.৫। একটি শতরান করেছিলেন। তিনটি অর্ধশতরান করেছিলেন।
  • একদিনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ৩৭ ম্যাচে ৫১৩ রান করেছিলেন। সর্বোচ্চ অপরাজিত ৮৪। গড় ২০.৫২। দুটি অর্ধশতরান করেছিলেন। স্ট্রাইক রেট ৬৪.২।
  • ১৯৯২-৯৪ সালের মধ্যে ভারতের হয়ে খেলেছিলেন আমরে। তারপর ভারতীয় দল থেকে বাদ পড়েছিলেন। তবে নিয়মিত প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট এবং লিস্ট ‘এ’ ক্রিকেট খেলতেন।
  • পেশাদারি খেলার জীবন শেষ করার পর কোচিং জীবন শুরু করেন আমরে। কলকাতা নাইট রাইডার্স (কেকেআর) অজিঙ্কা রাহানে, রবিন উথাপ্পা, কেকেআর অধিনায়ক শ্রেয়স আইয়ারদের সঙ্গে কাজ করেছেন আমরে। অনূর্ধ্ব-১৭ দলে খেলার সময় বিরাট কোহলি নজর টেনেছিলেন। পরবর্তী ভারতীয় ‘এ’ দলের খেলার সময় বিরাটের সঙ্গেও কাজ করেছেন।
  • আইপিএলে আগেও কোচিংয়ের দায়িত্বে ছিলেন। পুণে ওয়ারির্স ইন্ডিয়ার সহকারী কোচ ছিলেন। এখন দিল্লি ক্যাপিটালসেরও সহকারী কোচের দায়িত্বে আছেন।

বন্ধ করুন