বাংলা নিউজ > ময়দান > ইংল্যান্ডের প্রথম কৃষ্ণবর্ণ মহিলা ক্রিকেটার রেনফোর্ড-ব্রেন্টকে বর্ণবিদ্বেষী চিঠি
বর্তমানে ধারাভাষ্যকার হিসেবে কাজ করছেন ব্রেন্ট (ছবি:রয়টার্স)
বর্তমানে ধারাভাষ্যকার হিসেবে কাজ করছেন ব্রেন্ট (ছবি:রয়টার্স)

ইংল্যান্ডের প্রথম কৃষ্ণবর্ণ মহিলা ক্রিকেটার রেনফোর্ড-ব্রেন্টকে বর্ণবিদ্বেষী চিঠি

  • ইংল্যান্ডের মহিলা ক্রিকেট দলের প্রথম কৃষ্ণকায় ক্রিকেটার ইবোনি রেনফোর্ড-ব্রেন্টকে এবার বর্ণবিদ্বেষী আক্রমণের শিকার হতে হল। হাতে লেখা একটি চিঠিতে অকথ্য ভাষায় আক্রমণ করা হল ব্রেন্টকে।

শুভব্রত মুখার্জি: একের পর এক ঘটনা। তারপরেই বিতর্কের আগুন যেন ধীরে ধীরে গ্রাস করছে ইংল্যান্ড ক্রিকেটকে। বর্ণবৈষম্যের আঁচ এসে পড়েছে ইংল্যান্ড ক্রিকেটের সর্বত্র। মহিলা ক্রিকেটও তার ব্যতিক্রম নয়। ইংল্যান্ডের মহিলা ক্রিকেট দলের প্রথম কৃষ্ণকায় ক্রিকেটার ইবোনি রেনফোর্ড-ব্রেন্টকে এবার বর্ণবিদ্বেষী আক্রমণের শিকার হতে হল। হাতে লেখা একটি চিঠিতে অকথ্য ভাষায় আক্রমণ করা হল ব্রেন্টকে।

উল্লেখ্য ২০০১ সালে মাত্র ১৭ বছর বয়সে ইংল্যান্ডের হয়ে অভিষেক ঘটেছিল ব্রেন্টের। আজিম রফিকের বয়ান দেওয়ার পরবর্তীতে ব্রেন্ট এদিন সোশ্যাল মিডিয়াতে একটি চিঠি প্রকাশ করেন। হাতে লেখা সেই চিঠিতে দেখা যায় অকথ্য ভাষায় বর্ণবিদ্বেষী আক্রমণ করা হয়েছে ব্রেন্টকে। তাকে হাতে লেখা সেই চিঠিটি ইমেল করা হয়েছে। যেখানে তাকে দেশ ছাড়ার কথা পর্যন্ত বলা হয়েছে।

৩৭ বছর বয়সীকে লেখা সেই চিঠিতে লেখা হয়েছে 'কে তোমাকে আমার দেশে আমন্ত্রণ জানিয়েছে ? অশিক্ষিত, আফ্রিকাতে নগ্ন, পিছিয়ে পড়া মানুষ।' প্রসঙ্গত ৯ বছর ধরে ইংল্যান্ডের হয়ে খেলেছেন ব্রেন্ট। খেলা এবং চ্যারিটির ক্ষেত্রে তার অবদানের জন্য তাকে 'এমবিই' সম্মানে সম্মানিত করা হয়। উল্লেখ্য বর্তমানে ধারাভাষ্যকার হিসেবে কাজ করছেন ব্রেন্ট।

বন্ধ করুন