ক্রিকেট দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরব মিয়াঁদাদ। ছবি- স্ক্রিণ গ্র্যাব
ক্রিকেট দুর্নীতির বিরুদ্ধে সরব মিয়াঁদাদ। ছবি- স্ক্রিণ গ্র্যাব

ম্যাচ গড়াপেটাকারীদের ফাঁসি দেওয়া উচিত, দাবি মিয়াঁদাদের

  • দেশ ও সতীর্থ খেলোয়াড়দের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতাকারীদের বেঁচে থাকার কোনও অধিকার নেই, মত বিশ্বকাপজয়ী পাক তারকার।

দেশের সঙ্গে, নিজের দলের সঙ্গে যারা বিশ্বাসঘাতকতা করে, তাদের কঠোর শাস্তি দেওয়া দরকার। ক্রিকেট দু্র্নীতিতে কেউ যুক্ত থাকলে তাঁকে ফাঁসি দেওয়া উচিত, এমনটাই দাবি জানালেন বিশ্বকাপজয়ী প্রাক্তন পাক তারকা জাভেদ মিয়াঁদাদ।

নিজের ইউটিউব চ্যানেলে ক্রিকেট দুর্নীতি নিয়ে কথা বলার সময় রীতিমতো আক্রমণাত্মক মেজাজে ধরা দিলেন প্রাক্তন পাক ব্যাটসম্যান। তিনি বলেন, 'স্পট ফিক্সিংয়ে যুক্ত ক্রিকেটারদের কঠোর শাস্তি দেওয়া উচিত। আমি মনে করি ম্যাচ গড়াপেটাকারীদের ফাঁসি দেওয়া দরকার। কেননা কাউকে হত্যা করার মতোই অপরাধ এটা। তাই দু'টি ক্ষেত্রে একই শাস্তিবিধান হওয়া উচিত। একটা উদাহরণ তৈরি করা দরকার, যাতে আর কেউ এমন ঘৃণ্য অপরাধ করার সাহস না পায়।'

মিয়াঁদাদ এও বলেন যে, ইসলাম কখনও দেশের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করতে শেখায় না। তাই ইসলামে গড়াপেটার কোনও জায়গা নে়ই।

অতীতে দুর্নীতিতে যুক্ত থাকা ক্রিকেটারদের দলে ফেরানো নিয়ে মিয়াঁদাদ একহাত নিয়েছেন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডকে। দেশের হয়ে ১২৪টি টেস্ট খেলা জাভেদের কথায়, 'পিসিবি এই সমস্ত খেলোয়াড়দের ক্ষমা করে ঠিক করছে না। যেসব লোক গড়াপেটাকারীদের দলে ফেরাচ্ছে, তাদের নিজেদের কাজে লজ্জিত হওয়া উচিত।'

শেষে ইমরান খানের বিশ্বকাপজয়ী দলের অন্যতম সেনানী মিয়াঁদাদ বলেন, 'যাঁরা গড়াপেটার সঙ্গে যুক্ত থাকে, তারা নিজের বাবা-মা ও পরিবারের প্রতিও দায়বদ্ধতা দেখায় না। দেশ ও সতীর্থ খেলোয়াড়দের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতাকারীদের বেঁচে থাকার কোনও অধিকার নেই।'

বন্ধ করুন