বাংলা নিউজ > ভাগ্যলিপি > Kartik Puja 2022: এবছর কার্তিক পুজো কবে জেনে নিন পুজোর দিনক্ষণ ও শুভ মুহূর্ত

Kartik Puja 2022: এবছর কার্তিক পুজো কবে জেনে নিন পুজোর দিনক্ষণ ও শুভ মুহূর্ত

এটা কার্তিক মাস চলছে, এই মাসেই কার্তিক পুজো হয়।   

Kartik Puja 2022: এবছর কার্তিক পুজো কবে পড়েছে? কার্তিক পূজার সম্পর্কে জেনে নিন এখান থেকে।

মা দুর্গার অন্যতম সন্তান হলেন কার্তিক। সাধারণত দুর্গাপূজায় মা দূর্গার সাথে কার্তিকও পূজিত হন । তবে কার্তিক ঠাকুরের আলাদা করেও পূজা অর্চনা করা হয়। এটা কার্তিক মাস চলছে, এই মাসেই কার্তিক পুজো হয়।

কার্তিকের অনেক নাম এই বাংলায় তিনি কার্তিক নামে পরিচিত হলেও দক্ষিণে তিনি স্কন্ধ বা মুরুগান বা সুব্রম্মণ্য নামে পরিচিত। কার্তিক হলেন দেবতাদের সেনাপতি। তিনি যুদ্ধের দেবতা পার্বতীর পুত্র এই সব নামেও প্রসিদ্ধ।

কেন করা হয় কার্তিক পুজো

পুরানে কথিত আছে কার্তিক ছিলেন মহাপরাক্রমশালী যোদ্ধা। তারকাসুরকে বধ করা দেবতাদের পক্ষে যখন সম্ভবপর হয়ে উঠছিল না, ঠিক সেই সময় দৈববলে প্রাপ্ত অজেয় শক্তির অধিকারী কার্তিক তারকাসুরকে নিধন করেছিলেন । সেই থেকে তিনি দেব সেনাপতি হিসেবেই পূজিত হয়। স্কন্ধ পুরাণে তার সবিস্তার উল্লেখ রয়েছে।

কার্তিকের অনেক নাম আছে অম্বিকেয়, কৃত্তিকাসুত, কুমার, দেব সেনাপতি, গৌরী সুত, শক্তিপানী ইত্যাদি নামেও পরিচিত। পুরান অনুসারে কার্তিকের গায়ের রং হলুদ বর্ণের। কার্তিকের বাহুন ময়ূর। তিনি সাধারণত বাংলায় চিরকুমার নামেই পরিচিত। কার্তিকের নাকি ছয় মাথা তাই তাকে ষড়ানন বলা হয়। কার্তিকের হাতে থাকে ধনুক তীর বর্ষা। 

এ বছর কার্তিক পুজো কবে জেনে নিন

কার্তিক মাসের শেষেই হয় কার্তিক পূজা। সাধারণত কার্তিক মাসের শেষ দিনে এই পুজো আরম্ভ সহকারে পালিত হয়। এ বছর কার্তিক পুজো বাংলা পঞ্জিকা মতে ৩০ শে কার্তিক বৃহস্পতিবার ১৭ই নভেম্বর ২০২২। বাঁশবেড়িয়া কাটোয়া প্রভৃতি জায়গা কার্তিক পুজোর জন্য খুবই বিখ্যাত। লোকমতে যাদের সন্তান হচ্ছে না যারা নিঃসন্তান তারা যদি কার্তিকের পূজা করেন তাহলে তাদের সন্তান লাভ হয়।

কার্তিকের চেহারা অত্যন্ত সুন্দর বলিষ্ঠ, তাই জন্য কার্তিক পুজো করে দম্পতিরা সুন্দর ও বলিষ্ঠ চেহারার সন্তান প্রার্থনা করে থাকেন। কার্তিককে চিরকুমার বলা হলেও কোথাও কোথাও কিন্তু কার্তিকের বিয়ের কথা উল্লেখিত আছে পুরানে। ব্রহ্মা এবং সাবিত্রির মেয়ে দেবী ষষ্ঠী কার্তিকের স্ত্রী। তাই জন্ম ও জন্মসূত্রে সেই কারণেই হয়তো সন্তান লাভের আশায় বাংলায় কার্তিক পূজা করা হয়। সমাজ থেকে যাতে অন্যায় মুছে যায় তাই অনেকে কার্তিক পুজো করে। কারণ তিনি অন্যায়ের বিরুদ্ধে সমস্ত অপশক্তির বিরুদ্ধে অন্যতম যোদ্ধা হিসাবে লড়াই করেন।

কাটোয়ায় কার্তিকের লড়াই বলে কিছু অনুষ্ঠান করা হয়। আসলে ওখানে কার্তিক পূজা এতটাই বিখ্যাত যে একটা পূজার সাথে আর একটা পুজোর যে লড়াই হয় সেটাকেই ওখানে কার্তিকের লড়াই বলে অভিহিত করা হয়। জনপ্রিয়তায় কিছুটা ভাটা পড়লেও এখনো পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জায়গায় এই পুজো অতি মহাসমারোহে উদযাপিত করা হয়।ভারতের দক্ষিণে কার্তিক পূজার প্রচলন আছে। তামিলরা কার্তিক পূজা করেন তবে সেখানে তার নাম স্কন্ধ বা মুরুগান। তাই জন্য বিদেশে যেখানে তামিলরা আছে যেমন শ্রীলংকা মালয়েশিয়া সিঙ্গাপুর সেখানে স্কন্ধ বা মূরুগান অর্থাৎ কার্তিকেরই পুজো করা হয় কিন্তু ভিন্ন নামে।

(উপরোক্ত তথ্য ধর্মীয় আস্থা ও লৌকিক মান্যতার উপর আধারিত)

 

বন্ধ করুন