বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > এক মাস ধরে মায়ের দেহ আগলে বসে ছেলে
প্রতীকি ছবি।

এক মাস ধরে মায়ের দেহ আগলে বসে ছেলে

  • শনিবার কল্যাণীর ৯/২৯৩ নম্বর বাড়ি থেকে উদ্ধার হয় বৃদ্ধার দেহাবশেষ। বাড়িতে ছেলেকে নিয়ে ভাড়া থাকতেন মায়া পাল নামে ওই বৃদ্ধা।

প্রায় ১ মাস ধরে মায়ের দেহ আগলে বসে রইলেন ছেলে। ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে নদিয়ার কল্যাণীতে। নিহত মায়া পাল (৭০) এর দেহ শনিবার উদ্ধার করেছে পুলিশ। আটক করা হয়েছে তাঁর ছেলে সঞ্জয়কে।

শনিবার কল্যাণীর ৯/২৯৩ নম্বর বাড়ি থেকে উদ্ধার হয় বৃদ্ধার দেহাবশেষ। বাড়িতে ছেলেকে নিয়ে ভাড়া থাকতেন মায়া পাল নামে ওই বৃদ্ধা। বাড়ির মালিক জানিয়েছেন, মাসখানেক আগে বাড়ি থেকে প্রথম পচা গন্ধ পাই। সঞ্জয়বাবুকে জিজ্ঞাসা করতে তিনি জানান, মা অসুস্থ, তাই গন্ধ বেরোচ্ছে। কয়েক দিন পর গন্ধ বেরনো বন্ধ হয়ে যায়। কিন্তু দীর্ঘদিন বৃদ্ধার কোনও খবর না পেয়ে সন্দেহ হয় বাড়ির মালিকের। এর পর তিনি জানতে পারেন মৃত্যু হয়েছে বৃদ্ধার। মায়ের দেহের সঙ্গেই বাস করছেন ছেলে।

শনিবার কল্যাণী থানায় খবর দেন তিনি। পুলিশ এসে বাড়িতে ঢুকে বৃদ্ধার দেহাবশেষ উদ্ধার করে। প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, প্রায় ১ মাস আগে মৃত্যু হয়েছে বৃদ্ধার। এর পর ছেলে সঞ্জয়কে আটক করেন আধিকারিকরা। কেন তিনি মায়ের দেহ সৎকার করেননি তা জানার চেষ্টা করছে পুলিশ।

 

বন্ধ করুন