বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ঠাকুরনগরের হরিচাঁদ মন্দিরে চুরির কিনারা করল পুলিশ, গ্রেফতার ৩ উঠতি যুবক
বৃহস্পতিবার সকালে দেখা যায় মন্দিরের দরজার কাচ ভাঙা। 
বৃহস্পতিবার সকালে দেখা যায় মন্দিরের দরজার কাচ ভাঙা। 

ঠাকুরনগরের হরিচাঁদ মন্দিরে চুরির কিনারা করল পুলিশ, গ্রেফতার ৩ উঠতি যুবক

  • তদন্তে নেমে শনিবার রাতে ঠাকুরনগরের বণিকপাড়া থেকে ৩ যুবককে আটক করে পুলিশ। অনুপম রায়, শুভজিৎ সমাদ্দার ও শান্তনু মণ্ডল নামে তিন যুবককে আটক করে গাইঘাটা থানায় নিয়ে আসেন তদন্তকারী আধিকারিকরা।

মতুয়া সংঘের প্রধান ধর্মস্থান ঠাকুরনগরের হরিচাঁদ-গুরুচাঁদ মন্দিরে চুরির কিনারা করল পুলিশ। শনিবার রাতে এই ঘটনায় যুক্ত সন্দেহে ৩ যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনার ৩৬ ঘণ্টার মধ্যে অভিযুক্তদের ধরল পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে হরিচাঁদ মন্দিরে চুরির ঘটনায় তৃণমূল ও বিজেপির তরজা শুরু হয়ে গিয়েছিল। 

শুক্রবার সকালে ঠাকুরনগরের ঠাকুরবাড়ির মন্দিরে গিয়ে দেখা যায় দরজা ভাঙা। বিগ্রহের গলার সোনার গয়না গায়েব। মন্দিরের সামনের মাঠ থেকে প্রণামীর বাক্সটি মেলে। সেটিতে ৫০,০০০ টাকা ছিল বলে দাবি মন্দির কর্তৃপক্ষের। এর পরই গাইঘাটা থানায় অভিযোগ দায়ের করে মন্দির কর্তৃপক্ষ। 

তদন্তে নেমে শনিবার রাতে ঠাকুরনগরের বণিকপাড়া থেকে ৩ যুবককে আটক করে পুলিশ। অনুপম রায়, শুভজিৎ সমাদ্দার ও শান্তনু মণ্ডল নামে তিন যুবককে আটক করে গাইঘাটা থানায় নিয়ে আসেন তদন্তকারী আধিকারিকরা। তাদের কাছ থেকে, চুরি যাওয়া গয়না ও কিছু টাকা উদ্ধার হয়েছে বলে খবর। 

পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতদের বয়স ১৮ – ২৪-এর মধ্যে। কেন তারা ঠাকুরবাড়িতে চুরি করতে গেল তা জানতে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে পুলিশ। ধৃতদের ৩ দিনের পুলিশ হেফাজতে পাঠিয়েছে আদালত। 

স্থানীয়দের দাবি, বেশ কিছুদিন ধরে ঠাকুরনগর এলাকায় মাদকের কারবার ফুলে ফেঁপে উঠেছে। সীমান্ত লাগোয়া এই এলাকায় যুবারা সহজেই মাদকাসক্ত হয়ে পড়ছেন। মাদক কেনার টাকা জোগাড় করতেই উঠতি ছেলেরা এই কাজ করে থাকতে পারে। 

তৃণমূলের দাবি, ঠাকুরনগরে মাদকের কারবারের শ্রীবৃদ্ধির পিছনে স্থানীয় সাংসদ শান্তনু ঠাকুরের মদত রয়েছে। তাঁর আশকারাতেই এলাকায় দিন দিন দাপট বাড়ছে মাদকাসক্তদের।

 

বন্ধ করুন