বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > তিস্তার চরে আটকে দেহ, ছড়াল আতঙ্ক
তিস্তার চরে আটকে দেহ, করোনার ভয়ে তীব্র আতঙ্ক ময়নাগুড়িতে (HT_PRINT)
তিস্তার চরে আটকে দেহ, করোনার ভয়ে তীব্র আতঙ্ক ময়নাগুড়িতে (HT_PRINT)

তিস্তার চরে আটকে দেহ, ছড়াল আতঙ্ক

  • মৃতদেহটি সেখানকার একটি চরে আটকে থাকতে দেখা যায়। পরনে হাফ প্যান্ট ও গেঞ্জি পরিহিত দেহটি জলের মধ্যে উপুর হয়ে পড়ে ছিল। তা দেখেই করোনা রোগীর দেহ সন্দেহে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়।

বিহার ও উত্তরপ্রদেশের গঙ্গায় শয়ে শয়ে লাশ ভাসতে দেখে শিউরে উঠেছিল গোটা দেশ। করোনা রোগীর দেহ সন্দেহে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছিল তীরবর্তী এলাকাগুলোয়। ওইসব লাশ যাতে বাংলায় ভেসে চলে না আসে, সেজন্য উদ্যোগ নিয়েছিল নবান্ন। এবারে তিস্তাপাড়ে মৃতদেহ ভাসতে দেখা গেল। যা নিয়ে করোনা রোগীর দেহ ভেসে আসার আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ল জলপাইগুড়ির ময়নাগুড়িতে।

শুক্রবার সকালে ঘটনাটি ঘটেছে ময়নাগুড়ির পদমতি ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার হেলাপারিতে। এদিন সেখানে তিস্তার জলে একটি মৃতদেহ পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। স্থানীয় এক ব্যক্তির দাবি, তিনি সেখানে মাছ ধরতে গিয়েছিলেন। তখনই ওই জায়গায় মৃতদেহটি দেখতে পান। তাঁর আরও দাবি, কোথা থেকে ওই মৃতদেহ ভেসে এল, তা তদন্ত করে দেখুক পুলিশ।

মৃতদেহটি সেখানকার একটি চরে আটকে থাকতে দেখা যায়। পরনে হাফ প্যান্ট ও গেঞ্জি পরিহিত দেহটি জলের মধ্যে উপুর হয়ে পড়ে ছিল। তা দেখেই করোনা রোগীর দেহ সন্দেহে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। দেহটি দেখতে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন স্থানীয় বাসিন্দারা। এর পর ময়নাগুড়ি থানায় খবর দেওয়া হয়। পুলিশ নদী পেরিয়ে ছুটে আসে। কিন্তু আবহাওয়া খারাপ থাকায়, মৃতদেহ উদ্ধার করতে দেরি হয় পুলিশের।

ময়নাগুড়ি থানার পুলিশ জানিয়েছে, এর আগেও এভাবে বহু দেহ তিস্তার জলে ভেসে এখানে এসেছে। তাঁরা স্থানীয়দের আতঙ্কিত হতে মানা করেন। কোথা থেকে ওই দেহ ভেসে এল, তাঁকে খুন করা ফেলে দেওয়া হয়েছে কি না বা ওই দেহ সত্যিই কোনও করোনা রোগীর দেহ কি না তা জানতে তদন্ত শুরু করেছে ময়নাগুড়ি থানার পুলিশ। 

 

বন্ধ করুন