বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > লটারিতে জিতলেন ১ কোটি! ডাকাতির ভয়ে টিকিট নিয়ে রাতভর লুকিয়ে থাকলেন ব্যক্তি

লটারিতে জিতলেন ১ কোটি! ডাকাতির ভয়ে টিকিট নিয়ে রাতভর লুকিয়ে থাকলেন ব্যক্তি

আলফাজুদ্দিন পাইক। ছবি সৌজন্যে ফেসবুক।

তার নিজের কোনও বাড়ি নেই। দুই ছেলে, এক মেয়ে এবং স্ত্রীর সঙ্গে পূর্ত দফতরের একটি জমিতে বেড়ার বাড়িতে তিনি থাকেন। 

আজব ঘটনা ঘটল দক্ষিণ ২৪ পরগনার পাথরপ্রতিমা ব্লকের কলাবাগানে। বাড়িতে কাউকে কিছু না জানিয়ে রাতভর ধানের ক্ষেতে লুকিয়ে থাকলেন গৃহকর্তা। অথচ তিনি কোনও অপরাধ করেননি, কোনও হুমকিও পাননি। আসল কারণটা হল ১ কোটি টাকার লটারি জেতার পরে লটারির টিকিট ডাকাতি হওয়ার আশঙ্কায় রাতভর আত্মগোপন করে রইলেন ওই ব্যক্তি। পুলিশ গিয়ে ওই ব্যক্তিকে উদ্ধার করে। এমন কথা জানতে পেরে কার্যত পুলিশও হতবাক।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, পাথরপ্রতিমা ব্লকের দক্ষিণ রায়পুরের ৯ নম্বর ঘেরীর বাসিন্দা আলফাজুদ্দিন পাইক। তার নিজের কোনও বাড়ি নেই। দুই ছেলে, এক মেয়ে এবং স্ত্রীর সঙ্গে পূর্ত দফতরের একটি জমিতে বেড়ার বাড়িতে তিনি থাকেন। কোনওভাবে দিনমজুরি করে সংসার চালান। অভাবের সংসারে ঠিকমত দুবেলা দুমুঠো অন্ন জোগাড় করাটাই দায় হয়ে উঠেছিল তার কাছে। সম্প্রতি, তিনি লটারি কেটেছিলেন। আর সেই লটারিই তার ভাগ্য বদলে দিল। রাতে লটারির দোকান থেকে ফোন আসলে তিনি জানতে পারেন প্রথম পুরস্কার অর্থাৎ এক কোটি টাকা জিতেছেন। আর এই বিষয়টি জানার পরেই আনন্দে আত্মহারা না হয়ে বেড়ার ঘর ভেঙে টিকিট ডাকাতি হয়ে যাওয়ার ভয়ে তিনি এই অদ্ভুত কাণ্ড করে বসলেন।

বুধবার রাতে তিনি ঘরেই শুয়ে ছিলেন। কিন্তু, হঠাৎ করে ওই ব্যক্তি উধাও হয়ে যাওয়ায় উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন তার পরিবারের সদস্যরা। তারা পুলিশের কাছে নিখোঁজ ডায়েরি করেন। এরপর বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি চালায় পুলিশ। অবশেষে পুলিশকে দেখে নিজেই বেরিয়ে আসে ওই ব্যক্তি। লটারিতে এক কোটি টাকা জেতার খবর পেয়ে আনন্দে আত্মহারা হয়ে ওঠেন তাঁর পরিবারের সদস্যরা। পুলিশি জেরায় তিনি জানান, ‘ডাকাতির ভয়ে আমি টিকিট নিয়ে লুকিয়েছিলাম।’ লটারি জিতে এখন নিজেই জায়গা কিনে বাড়ি করার স্বপ্ন দেখছেন আলফাজুদ্দিন।

বন্ধ করুন