বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > পরপর বোমাবাজিতে ফের উত্তপ্ত ভাটপাড়া, অস্ত্র উঁচিয়ে চলল ব্যাপক দৌরাত্ম্য
আলো নিভিয়ে চলে মুহুর্মুহু বোমাবাজি।
আলো নিভিয়ে চলে মুহুর্মুহু বোমাবাজি।

পরপর বোমাবাজিতে ফের উত্তপ্ত ভাটপাড়া, অস্ত্র উঁচিয়ে চলল ব্যাপক দৌরাত্ম্য

  • সাংসদের বাড়ি লক্ষ্য করে গুলি–বোমাবাজির ঘটনায় এনআইএ তদন্তে আসার আগেই ফের এভাবে উত্তপ্ত হয়ে ওঠায় শিউরে উঠেছেন মানুষজন।

ভাটপাড়ায় বোমাবাজি কিছুতেই থামছে না। অর্জুন সিংয়ের গড়ে বোমাবাজির রাতেই আবার উত্তপ্ত হয়ে উঠল এলাকা। বেপরোয়া বোমাবাজিতে ঘুম উড়ে গিয়েছে বাসিন্দাদের বলে অভিযোগ। এমনকী অস্ত্র উঁচিয়ে দাপাদাপি পর্যন্ত হয়েছে বলে খবর। পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছয় যে, পিস্তলের বাঁট দিয়ে মাথায় আঘাত করে তা ফাটিয়ে দেওয়া হয়। রক্তাক্ত হয় যুবক। আর এক যুবক বোমার স্প্লিন্টারের আঘাতে মারাত্মক জখম হন। রাতভর দুষ্কৃতী তাণ্ডবে ভাটপাড়া আতঙ্কিত হয়ে রইল।

সাংসদের বাড়ি লক্ষ্য করে গুলি–বোমাবাজির ঘটনায় এনআইএ তদন্তে আসার আগেই ফের এভাবে উত্তপ্ত হয়ে ওঠায় শিউরে উঠেছেন মানুষজন। স্থানীয় সূত্রে খবর, মঙ্গলবার রাতে ভাটপাড়ার কলাবাগান তিন নম্বর গেট এলাকায় বোমাবাজি হয়। ব্যাপক হামলা চালায় দুষ্কৃতীরা। পিস্তলের বাঁট দিয়ে অজিত কুমার সিং নামে যুবকের মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ উঠেছে। বোমার স্প্রিংটারের আঘাতে বিষ্ণুদেব যাদব নামে আর এক যুবক জখম হয়েছেন। দু’‌জনকে ভাটপাড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এই দু’জনই জগদ্দল জেজেআই জুটমিলের কর্মী। কাজ সেরে বাড়ি ফেরার সময় এই ঘটনা ঘটে।

পুলিশ সূত্রে খবর, মহম্মদ সোনুর নাম এই ঘটনায় উঠে আসছে। মহম্মদ সোনুর নেতৃত্বে একদল বোমাবাজি করতে শুরু করে। তারই পাল্টা এই হামলা। ঘটনায় জড়িতদের খোঁজ চালানো হচ্ছে। এলাকায় থাকা সিসিটিভি ফুটেজ পরীক্ষা করা হচ্ছে। কে বা কারা জড়িত তাদের দ্রুত গ্রেফতার করা হবে। প্রতিটি কোণায় তল্লাশি শুরু হয়েছে।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার সকাল অর্জুন সিংয়ের বাড়ির পিছনে বোমা ছুড়ে মারে দুষ্কৃতীরা। গত ৮ সেপ্টেম্বরের ঘটনার পর এলাকায় নতুন করে আরও ২০টা সিসিটিভি ক্যামেরা বসানো হয়। বাড়ানো হয় পুলিশ পিকেট। সঙ্গে সিআইএসএফ জওয়ানরাও রয়েছে। এমআইএ আধিকারিকদের সঙ্গে কথা হয়েছে অর্জুন পুত্র বিধায়ক পরন সিংয়ের।

বন্ধ করুন