বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Tajpur: সমুদ্রে ঘুরতে যাওয়ার আনন্দ বদলে গেল শোকে! কাঁকড়া খেয়ে মৃত্যু বৃদ্ধের
সামুদ্রিক কাঁকড়া রান্না। প্রতীকী ছবি।

Tajpur: সমুদ্রে ঘুরতে যাওয়ার আনন্দ বদলে গেল শোকে! কাঁকড়া খেয়ে মৃত্যু বৃদ্ধের

  • ওই বৃদ্ধের বাড়ি উত্তর ২৪ পরগনার সোদপুরের শুকচর ১৩৯ নরসিংহ দত্ত ঘাট রোডে। পরিবারের সঙ্গে তিনি প্রথমে গত শনিবার দীঘায় বেড়াতে যান। সেখানে একদিন থাকার পর রবিবার সপরিবারে তাজপুরে যান।

পরিবারের সঙ্গে তাজপুরে বেড়াতে গিয়েছিলেন বৃদ্ধ। সমুদ্রে ঘুরতে গিয়ে কাঁকড়া খাওয়ার লোভ সামলাতে পারেননি। আর তাতেই ঘটল বড় বিপদ। সামুদ্রিক কাঁকড়া খেয়ে প্রাণ গেল এক পর্যটকের। মৃত বৃদ্ধর নাম সুদীপ মুখোপাধ্যায়। এই ঘটনায় অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করেছে দীঘা মোহনা কোস্টাল থানার পুলিশ। তারা পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখছেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই বৃদ্ধের বাড়ি উত্তর ২৪ পরগনার সোদপুরের শুকচর ১৩৯ নরসিংহ দত্ত ঘাট রোডে। পরিবারের সঙ্গে তিনি প্রথমে গত শনিবার দীঘায় বেড়াতে যান। সেখানে একদিন থাকার পর রবিবার সপরিবারে তাজপুরে যান। পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, তারা রবিবার সকালে তাজপুরে ঘোরাঘুরি করার পর স্থানীয় একটি হোটেলে খাওয়া-দাওয়া করেন। সেখানে লোভ সামলাতে না পেরে কাঁকড়া খেয়ে ফেলেছিলেন ওই বৃদ্ধ। খাওয়ার কিছুক্ষণ পরেই তার শরীরে সমস্যা দেখা দেয়। শ্বাসকষ্ট ও পেটে ব্যথা শুরু হয়। এরপর সমুদ্রে নামার পর তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। সঙ্গে সঙ্গে পরিবারের সদস্যরা তাকে হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ঘুরতে গিয়ে এরকম মর্মান্তিক ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে পরিবারে। দীঘা মোহনা কোস্টাল থানার পুলিশ ওই বৃদ্ধের দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। এখন কাঁকড়া খাওয়ার জন্যই ওই বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

প্রসঙ্গত, সামুদ্রিক কাঁকড়া খেয়ে মৃত্যুর ঘটনা এই প্রথম নয়। এর আগেও এই ধরনের ঘটনা ঘটেছে। মাসখানেক আগেই দীঘায় বেড়াতে গিয়ে কাঁকড়া খেয়ে মৃত্যু হয়েছিল কলকাতার এক যুবকের। কাঁকড়া খাওয়ার পরেই ওই যুবকের শ্বাসকষ্ট হয়েছিল। তারপর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেছিলেন।

বন্ধ করুন