বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > করিমপুরে বাড়ল তৃণমূলের জয়ের ব্যবধান, হেভিওয়েট প্রার্থীতেও হার বিজেপির
করিমপুরে তৃণমূল প্রার্থীর প্রচারে মহুয়া মৈত্র (ছবি সৌজন্য ফেসবুক Mahua Moitra - মহুয়া মৈত্র)

করিমপুরে বাড়ল তৃণমূলের জয়ের ব্যবধান, হেভিওয়েট প্রার্থীতেও হার বিজেপির

  • করিমপুরে বিধানসভা উপ-নির্বাচনে মাটি কামড়ে পড়েছিলেন মহুয়া মৈত্র। জোরদার প্রচার চালান তিনি।

সাংসদ হলেও নিজের ছেড়ে যাওয়া বিধানসভা আসনে দলের বৈতরণী পারের দায়িত্ব নিয়েছিলেন মহুয়া মৈত্র। পড়েছিলেন মাটি কামড়ে। জয়প্রকাশ মজুমদারের মতো রাজ্য-রাজনীতির হেভিওয়েট নেতার বিরুদ্ধে জোরদার প্রচার চালিয়েছিলেন মহুয়া মৈত্র। উপনির্বাচনের ফল ঘোষণার পর পেলেন তার সুফল। করিমপুরে জিতলেন তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী বিমলেন্দু সিনহা রায়। নিকটতম বিজেপি প্রার্থীকে ২৩,৯১০ ভোটে হারান তিনি।

রাজ্যের বাকি দুই বিধানসভার থেকে করিমপুরের ছবিটা একেবারেই ভিন্ন ছিল। জয়প্রকাশের মতো হেভিওয়েট নেতাকে ময়দানে নামিয়ে বিজেপি লড়াইয়ের চেষ্টা করলেও মুর্শিদাবাদ লোকসভার অন্তর্গত এই আসনে প্রথম থেকেই এগিয়ে ছিল তৃণমূল। তবে এক ইঞ্চি জমি ছাড়েননি জয়প্রকাশ। ভোটের দিন করিমপুরের বিভিন্ন প্রান্তে চষে বেড়ান। আজ সকালেও দাবি করেন, তিনিই জিতছেন।

আরও পড়ুন : তিনে তিন : কালিয়াগঞ্জ-খড়্গপুরে প্রথম ফুটল ঘাসফুল, করিমপুর ধরে রাখল তৃণমূল

শুরুটাও সেভাবে করেছিলেন বিজেপি প্রার্থী। পোস্টাল ব্যালট গণনায় এগিয়ে ছিলেন তিনিি পান ৫৮ ভোট। তৃণমূল প্রার্থীর দখলে যায় ১২টি পোস্টাল ব্যালট। ইভিএম গণনা শুরু হওয়ার কিছুক্ষণ পরই বদলে যায় ছবিটা। পিছিয়ে পড়েন জয়প্রকাশ। প্রথম রাউন্ড শেষে প্রায় ১৫,০০০-র বেশি ভোটে এগিয়ে যান বিমলেন্দু। তখনই মোটামুটি স্পষ্ট হয়ে যায়, কী হতে চলেছে করিমপুরের ফলাফল।

আরও পড়ুন : 'তিনে তিন, বিজেপিকে বিদায় দিন', উপনির্বাচনে জয়ের পর বললেন মমতা

পরিসংখ্যান বলছে, গত বিধানসভায় মহুয়া পেয়েছিলেন ৯০,৯৮৯ ভোট। তাঁকেও ছাপিয়ে গেছেন বিমলেন্দু। তাঁর প্রাপ্ত ভোট ১,০৩,২৭৮। জয়ের ব্যবধানও বেড়েছে। মহুয়া জিতেছিলেন ১৫,৯৮৯ ভোটে, সেখানে এবারে তৃণমূলের জয় এসেছে ২৩ হাজারের বেশি ভোটে। লোকসভা ভোটে ১৫ হাজার ভোটে এগিয়ে ছিল তৃণমূল।

আরও পড়ুন : 'মানুষের আশীর্বাদেই জয়', প্রতিক্রিয়া মমতার, 'এই ফল কেন, বুঝছি না', বললেন দিলীপ

কীভাবে এল এই জয় ?

কালিয়াগঞ্জের মতো করিমপুরও সীমান্তঘেঁষা। ফলে এখানেও এনআরসি-র ব্যাপক প্রভাব পড়েছে বলে দাবি রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের। সঙ্গে যোগ হয়েছে জেলার ৩৮ শতাংশ সংখ্যালঘু ভোটব্যাঙ্ক। রাজনৈতিক মহলের একাংশের বক্তব্য, লোকসভা নির্বাচন থেকেই এই কেন্দ্রে ব্যাপক মেরুকরণ শুরু হয়েছে। সেই কারণেই প্রায় ৯০ শতাংশ সংখ্যালঘু অধ্যুষিত করিমপুর ২-র বেশিরভাগটাই গিয়েছে তৃণমূলের দিকে। অন্যদিকে, করিমপুর ১-এ সংখ্যালঘু জনসংখ্যা তেমন নেই। সেখানে বিজেপি বেশি ভোট পেয়েছে বলে বক্তব্য রাজনৈতিক মহলের একাংশের ধারণা। তাতেও অবশ্য রোখা যায়নি তৃণমূলের রথ। বরং এনআরসি-সংখ্যালঘু দুইয়ের মেলবন্ধনে সহজেই করিমপুরে জয় পেয়েছে তারা।

আরও পড়ুন :কোন অঙ্কে কালিয়াগঞ্জে ফুটল ঘাসফুল?

প্রার্থীর নাম ও প্রাপ্ত ভোট

• বিমলেন্দু সিনহা রায় (তৃণমূল কংগ্রেস) - ১,০৩,২৭৮ (৫০.৪৩ শতাংশ)

• জয়প্রকাশ মজুমদার (বিজেপি)- ৭৯,৩৬৮ (৩৮.৭৫ শতাংশ)

• গোলাম রাব্বি (সিপিআইএম)- ১৮,৬২৭ (৯.০৯ শতাংশ) : ূল।

আরও ।

আরও প

মাটি কামড়ে পড়েছিলেন করিমপুরে। সেই সুফল পেল তৃণমূল (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
মাটি কামড়ে পড়েছিলেন করিমপুরে। সেই সুফল পেল তৃণমূল (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
বন্ধ করুন