বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ময়নায় তৃণমূল–বিজেপির সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে স্থানীয়দের সঙ্গে খণ্ডযুদ্ধ পুলিশের
তৃণমূল ও বিজেপি–র পতাকা। ফাইল ছবি
তৃণমূল ও বিজেপি–র পতাকা। ফাইল ছবি

ময়নায় তৃণমূল–বিজেপির সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে স্থানীয়দের সঙ্গে খণ্ডযুদ্ধ পুলিশের

গ্রামেরই এক বাসিন্দা জানান, ঘরের মধ্যে ঢুকে মারধর করেছে পুলিশ। শিশুদেরও ছাড়া হয়নি। গ্রামের বেশ কয়েকজনকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

‌টোটো ভাঙাকে কেন্দ্র করে পূর্ব মেদিনীপুরের ময়নায় তৃণমূল ও বিজেপি সমর্থকদের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষ বাধে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় পুলিশ। কিন্তু তখন পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের খণ্ডযুদ্ধ হয়। এই ঘটনায় ইতিমধ্যে ১৫ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে খবর, রবিবার রাতে টোটো ভাঙা নিয়ে ময়নার আড়ং কিয়ানারা গ্রামে তৃণমূল ও বিজেপি সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। পরিস্থিতি ক্রমশই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। পুলিশ গ্রামে ঢুকতে গেলে মহিলারা দা, লাঠি, বটি নিয়ে পথ আটকায়। তখনই পুলিশের সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের খণ্ডযুদ্ধ হয়। তবে পুলিশের তরফে দাবি করা হয়েছে, লাঠিচার্জ করা হয়নি। তবে বিজেপির তরফে অভিযোগ করা হয়েছে, পুলিশ গ্রামে ঢুকে স্থানীয় বাসিন্দাদের ওপর লাঠিচার্জ করেছে। গ্রামের মহিলা ও শিশুদেরও মারধর করার অভিযোগ উঠেছে।

এই ঘটনা প্রসঙ্গে গ্রামেরই এক বাসিন্দা জানান, ঘরের মধ্যে ঢুকে মারধর করেছে পুলিশ। শিশুদেরও ছাড়া হয়নি। গ্রামের বেশ কয়েকজনকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এই ঘটনা প্রসঙ্গে পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, এই ঘটনায় ১৫ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ধৃত ১৫ জনের মধ্যে ১২ জন বিজেপি সমর্থক ও তিনজন তৃণমূল সমর্থক। গ্রেফতার হওয়া ১৫ জনের মধ্যে বেশ কয়েকজন মহিলাও রয়েছেন। বিজেপির তরফে জানানো হয়েছে, 'তৃণমূলের গুন্ডারা বাইরে থেকে এসে আমাদের কর্মীদের মারধর করেছে। পুলিশকে বললেও কিছু লাভ হয়নি। বরং অভিযোগ জানাতে গেলে পুলিশই আমাদের কর্মীদের ওপর মারধর করেছে।' এদিকে এই ঘটনা প্রসঙ্গে তৃণমূলের তরফে অবশ্য জানানো হয়েছে, দুষ্কৃতীদের কোনও দল হয় না। পুলিশ দুষ্কৃতীদের ধরতেই ধরপাকড় চালিয়েছে।

বন্ধ করুন