বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > শুনশান রেল স্টেশন, বাসের জন্য দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা, বিপাকে নিত্যযাত্রীরা
ট্রেন বন্ধ, বাসে ওঠার জন্য ভিড়। (ছবি সৌজন্য রয়টার্স)
ট্রেন বন্ধ, বাসে ওঠার জন্য ভিড়। (ছবি সৌজন্য রয়টার্স)

শুনশান রেল স্টেশন, বাসের জন্য দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা, বিপাকে নিত্যযাত্রীরা

  • মাস্ক ছাড়া কাউকেই স্টেশনে ঢোকার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না।কোভিড বিধি মানলে তবেই স্টেশনে ঢোকার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে।

আজ থেকে বন্ধ লোকাল ট্রেন।ফলে অন্যান্য দিন যেমন লোকের ভিড় থাকে শিয়ালদহ ও হাওড়া স্টেশনে, সেখানে আজ পুরোপুরি শুনশান এই দুটি স্টেশন। ট্রেন বন্ধ থাকায় লোকে বেশি ভিড় জমাচ্ছে বাসে। দীর্ঘক্ষণ লাইনে দাঁড়িয়ে বাসে উঠতে হচ্ছে যাত্রীদের।সরকারি বাসের সংখ্যা ৫০ শতাংশ কমিয়ে দেওয়ায় বেসরকারি বাসেই ভিড় করছে মানুষ।এরফলে দুর্ভোগ আরও বাড়ছে।

রাজ্যে করোনা সংক্রমণের হার ক্রমশ বাড়তে থাকায় ৬ মাস পর আজ থেকে ফের বন্ধ হল লোকাল ট্রেন। ফলে শিয়ালদহ ও হাওড়া স্টেশনে ভিড় নেই বললেই চলে।তবে দুরপাল্লার ট্রেন চালু থাকায়, কয়েকজন মুষ্টিমেয় লোকজনকে এই স্টেশনে ট্রেন ধরতে আসতে দেখা যাচ্ছে।বেশ কিছু স্টেশনে এমনও দেখা গিয়েছে, দূরপাল্লার ট্রেন এলেই তাতে উঠে পড়ছেন যাত্রীরা।তবে সব জায়গায় যে আগত যাত্রীদের থার্মাল স্ক্রিনিং ঠিকভাবে করানো হচ্ছে এমনটা নয়।খোদ শিয়ালদহ স্টেশনে থার্মাল স্ক্রিনিং ঠিকভাবে করানো হচ্ছে না বলে অভিযোগও উঠেছে।তবে হাওড়া স্টেশনে অবশ্য কড়াকড়িটা একটু বেশি। সেখানে অধিকাংশ গেটই বন্ধ।মাস্ক ছাড়া কাউকেই স্টেশনে ঢোকার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে না। কোভিড বিধি মানলে তবেই স্টেশনে ঢোকার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে।

লোকাল ট্রেন বন্ধ থাকায় এদিকে বাসে ওঠার জন্য লম্বা লাইন চোখে পড়ল শহরতলি থেকে শুরু করে বিভিন্ন জেলায়।তবে সরকারি বাসের সংখ্যা ৫০ শতাংশ কমিয়ে দেওয়ায় যাত্রীদের একটা বাসের জন্য অনেকক্ষণ অপেক্ষা করতে হচ্ছে।যাদবপুর ৮বি বাস স্ট্যান্ডই হোক বা গড়িয়া ৬ নম্বর বাসস্ট্যান্ডই হোক, সব জায়গাতেই এখন একই চিত্র।ফলে অনেক যাত্রীরাই এখন বেসরকারি বাসে ভিড় করছেন। অন্যদিকে লোকাল ট্রেন বন্ধ থাকায় এদিন মেট্রো অনেকটাই ফাঁকা। যাত্রীদের আনাগোনা তেমন নেই বললেই চলে।

বন্ধ করুন