বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ভুয়ো ডেথ সার্টিফিকেট বানিয়ে কৃষকবন্ধু প্রকল্পের টাকা তছরূপে অভিযুক্ত তৃণমূল
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

ভুয়ো ডেথ সার্টিফিকেট বানিয়ে কৃষকবন্ধু প্রকল্পের টাকা তছরূপে অভিযুক্ত তৃণমূল

  • ১৮ থেকে ৬০ বছর বয়সী কোনও কৃষকের মৃত্যু হলে কৃষকবন্ধু প্রকল্পের অধীনে এককালীন ২ লক্ষ টাকা অনুদান মেলে। অভিযোগ, সেই টাকা তুলতে একাধিক মৃত ব্যক্তির বয়স কম দেখিয়ে ভুয়ো ডেথ সার্টিফিকেট বার করা হচ্ছে।

জাল ডেথ সার্টিফিকেট বানিয়ে কৃষকবন্ধু প্রকল্পে প্রতারণার অভিযোগ উঠল উত্তর ২৪ পরগনার দেগঙ্গায়। এই অভিযোগে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে দেগঙ্গার নুরনগর গ্রাম পঞ্চায়েতে। বিজেপির অভিযোগ, কাটমানি তুলতে নিজের সই নিজেই জাল করাচ্ছেন পঞ্চায়েত প্রধান উমা দাস। এখনো পর্যন্ত এভাবে ১৬ জন কৃষকবন্ধু প্রকল্পের টাকা তুলে নিয়েছেন বলে অভিযোগ।

বিজেপির অভিযোগ, নুরনগর গ্রাম পঞ্চায়েতে প্রধানের সই জাল করে ভুয়ো ডেথ সার্টিফিকেট বার করা হচ্ছে। এর সঙ্গে যুক্ত তৃণমূলেরই একাংশ। প্রধান উমা দাস নিজের সই নিজেই জাল করিয়ে কাটমানির বিনিময়ে দিচ্ছেন ওই শংসাপত্র। যাতে মৃত ব্যক্তির বয়স কম করে দেখানো হচ্ছে।

১৮ থেকে ৬০ বছর বয়সী কোনও কৃষকের মৃত্যু হলে কৃষকবন্ধু প্রকল্পের অধীনে এককালীন ২ লক্ষ টাকা অনুদান মেলে। অভিযোগ, সেই টাকা তুলতে একাধিক মৃত ব্যক্তির বয়স কম দেখিয়ে ভুয়ো ডেথ সার্টিফিকেট বার করা হচ্ছে। তার পর তা দিয়ে তোলা হচ্ছে টাকা। এমনকী ১৫ বছর আগে মারা গিয়েছেন এমন ব্যক্তির নামেও তোলা হয়েছে টাকা। অন্তত ১৬ জন এভাবে কৃষকবন্ধু প্রকল্পের টাকা তুলেছেন বলে দাবি বিজেপির।

স্থানীয় বিজেপি নেতার অভিযোগ, পঞ্চায়েত প্রধানের মদতেই তাঁর সই জাল হয়েছে। ধরা পড়ে যাওয়ার পরে তা অন্যের ঘাড়ে চাপানোর চেষ্টা হচ্ছে। এই ঘটনার তৃণমূল জড়িত। নইলে প্যাড, স্ট্যাম্প তারা পেল কোথা থেকে?

 

বন্ধ করুন